বড় খবর

এখনই পেট্রোল-ডিজেল GST-র আওতাভুক্ত নয়! বৈঠকের শেষে ঘোষণা অর্থমন্ত্রীর

ক্যান্সার চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ওষুধের ওপর জিএসটি ১২% থেকে কমিয়ে ৫% করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কাউন্সিল।

GST Council, Petrol-Diesel, Nirmala SItharaman
বৈঠকের নেতৃত্বে অর্থমন্ত্রী।

Petrol-Diesel Price: একাধিক পণ্যের দাম পর্যালোচনা, সরলীকরণ এবং রাজ্যের বকেয়া নিয়ে ৪৫তম জিএসটি পরিষদের বৈঠক আয়োজিত হল লখনউতে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলার প্রতিনিধি হিসেবে এই বৈঠকে যোগ দিয়েছেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। সম্ভাবনা থাকলেও পেট্রোপণ্যকে জিএসটির আওতায় আনতে নারাজ কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে সেই প্রসঙ্গেই সম্ভাবনা খারিজ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এখনই পেট্রোল-ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনা হবে না। কাউন্সিল সদস্যরা এই প্রস্তাবে সহমত নয়। তাই কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।‘ যদিও এই গুরত্বপূর্ণ ইস্যুতে এদিন দীর্ঘ চর্চা হয়েছে কাউন্সিল বৈঠকে। তবে জীবনদায়ী কয়েকটি ওষুধকে জিএসটির বাইরে রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। জীবনদায়ী ওষুধে জিএসটি ছাড়ের মেয়াদ বাড়ল ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

কয়েকটি করোনা ড্রাগকেও এই ছাড়ের আওতায় আনা হয়েছে। সেই তালিকায় আছে টসিলিজুমাব, রেমডেসিভির, অ্যাম্ফোটেরিসিন-বি এবং হেপারিন। পাশাপাশি ক্যান্সার চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ওষুধের ওপর জিএসটি ১২% থেকে কমিয়ে ৫% করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কাউন্সিল। এদিন জানান নির্মলা সীতারমণ। তিনি বলেছেন, ’কয়েকটি জীবনদায়ী ওষুধ, করোনা ড্রাগ নয়। তবে মানুষের জীবন বাঁচাতে কার্যকরী। জিএসটির আওতায় দাম মহার্ঘ। সেগুলোকে জিএসটির বাইরে আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে।‘ এদিন অবশ্য প্রথম থেকেই পেট্রোল-ডিজেলকে জিএসটির অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে কেরল-মহারাষ্ট্র।

সম্প্রতি ধাপে ধাপে দাম বেড়েছে এই দুই পরিবহণ জ্বালানির। করোনাকালে এই দামবৃদ্ধির জেরে একদিকে যখন নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের, তখন আবার কিছুটা কোষাগার ভরেছে কেন্দ্র-রাজ্যের অর্থভাণ্ডার।

এই আবহে গত জুন মাসে কেরল হাইকোর্ট অর্থ মন্ত্রককে নির্দেশ দিয়েছিল পেট্রোপণ্যের মুল্য নিয়ন্ত্রণে সিদ্ধান্ত নিতে। কোনওভাবে জিএসটির আওতায় এই পণ্যকে আনা যেতে পারে কিনা, আলোচনা করে দেখে কাউন্সিল।

এদিকে, এই বৈঠকে সুইগি-জোম্যাটোকে রেস্তোরাঁর মর্যাদা দেওয়া যায় কিনা খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে করছাড়ে বড় সুবিধা পাবে এই দুই সংস্থা। অপরদিকে। কর্নাটক থেকে প্রস্তাব এসেছে তামাকজাত পণ্যের দাম বাড়ানোর। পৃথক সেস বসিয়ে প্রাপ্তবয়স্ক এবং শিশু দেহের পক্ষে হানিকারক এই পণ্যর দাম পর্যালোচনায় বৈঠকে হতে পারে। জানা গিয়েছে, প্রায় কয়েক বছর পর সশরীরে একছাদের তলায় জিএসটি কাউন্সিল।  

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Business news here. You can also read all the Business news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Gst council may bring petrol diesel under its regime while two states opposed the move business

Next Story
ব্যাঙ্ক পুনর্জীবন-অনাদায়ী ঋণ উদ্ধারে উদ্যোগ! ৩০ হাজার ৬০০ কোটির রক্ষাকবচ কেন্দ্রেরCovid Relief Pkg, Tourism, Finance Minister
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com