বড় খবর

সরকারের আচমকা নির্দেশে রাজ্যে ফিরল ছাত্র সংসদ নির্বাচন

২০১৬ সালে শেষবারের মতো রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজগুলিতে ছাত্র সংসদ নির্বাচন হয়েছিল। তারপর রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের মতো কলেজে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অরাজনৈতিক ছাত্র সংগঠন সংসদ চালাবে।

Presidency University , প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়
প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

একেবারে চমকে দিয়ে রাজ্যের চারটি বিশ্ববিদ্যালয়কে স্টুডেন্ট ইউনিয়ন বা স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচনের জন্য নির্দেশ দিল রাজ্য উচ্চশিক্ষা দপ্তর। যে চারটি বিশ্ববিদ্যালয়কে ভোট করানোর জন্য বলা হয়েছে, তাদের মধ্যে তিনটির অধীনে অবশ্য কোনও কলেজ নেই। বিজ্ঞপ্তিতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় এবং ডায়মন্ডহারবার উইমেন্স ইউনিভার্সিটিতে ভোট করানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের অধিকাংশ ছাত্র সংগঠন এই নির্দেশকে স্বাগত জানিয়েছে। আবার কিছুটা “দায় এড়িয়ে” এই চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভোট করানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে মনে করছে অভিজ্ঞ মহল।

২০১৬ সালে শেষবারের মতো রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজগুলিতে ছাত্র সংসদ নির্বাচন হয়েছিল। তারপর রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের মতো কলেজে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অরাজনৈতিক ছাত্র সংগঠন সংসদ চালাবে। সেই থেকে রাজ্য সরকার কোনও কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাচন করানোর কোনও ব্যবস্থা নেয় নি। ছাত্র সংসদের নির্বাচন না করানোর ব্যাপারে কার্যত অনড়ই ছিল সরকার।

সরকারি নির্দেশ

রাজনৈতিক মহলের মতে, মে মাসের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি রাজ্যে ৪২টি আসনের মধ্যে ১৮টি আসনে জয়লাভ করায় গেরুয়া শিবিরের চাপ বাড়তে থাকে তৃণমূলের উপর। এই রাজনৈতিক চাপের পাশাপাশি বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন কলেজে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদের নির্বাচনের দাবি জানাতে থাকে। সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে অন্যান্য ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে সুর মিলিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদও কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাচনের দাবি জানায়। ২০১৬ সালে ছাত্র সংসদ নির্বাচন বন্ধ হওয়ার পর যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে ঘেরাও আন্দোলন পর্যন্ত হয়েছে ভোটের দাবিতে। তা সত্ত্বেও রাজ্য সরকার ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দিকে এক পাও এগোয়নি। এমনকী একসময় অরাজনৈতিক ছাত্র সংসদ গঠন করার জন্য বিধানসভায় বিল পাশ করারও প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল বলে খবর।

আরও পড়ুন- সতর্ক যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, প্রশাসনিক বৈঠকে যোগ দিতে যাচ্ছেন রাজ্যপাল

তবে এবার যে চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাচন করানোর কথা বলা হয়েছে, সেখানে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়কেই নির্বাচনের দায়িত্ব নিতে হবে। কবে, কীভাবে নির্বাচন হবে, তার দায়িত্বও নেবে বিশ্ববিদ্যালয়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, যে চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাচনের কথা বলা হয়েছে, যাদবপুর বাদে তাদের কারোর অধীনে কোনও কলেজ নেই। একমাত্র যাদবপুরের অধীনে রয়েছে বেসরকারি জেডি বিড়লা কলেজ।

অর্থাৎ নির্বাচন বন্ধ করার পর পরীক্ষামূলকভাবে নির্দিষ্ট চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন করে দেখা হচ্ছে। এমনটাই মনে করছে শিক্ষা মহল। এতে বড় রকমের ঝঞ্ঝাট ঘটার তেমন একটা সম্ভাবনা থাকবে না। তবে নির্বাচনের ওই বিজ্ঞপ্তি ঘিরে উৎসাহ দেখা দিয়েছে রাজ্যের বাম ও অবাম ছাত্র সংগঠনগুলির মধ্যে। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে প্রতিটি ছাত্র সংগঠন।

Web Title: Elections in four bengal universities first time since 2016 jadavpur presidency

Next Story
আজ যাদবপুরের প্রশাসনিক বৈঠকে রাজ্যপাল, কড়া নিরাপত্তা ক্যাম্পাসেjadavpur university
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com