scorecardresearch

বড় খবর

Lok Sabha Election 2019: ‘প্রতিপক্ষকে কখনোই শত্রু বা দেশদ্রোহী ভাবে নি বিজেপি’

General Election 2019: নিজের ব্লগে আডবানি লিখেছেন, “রাজনৈতিক ভাবে যাঁরা আমাদের আদর্শের বিরুদ্ধে বা আমাদের সঙ্গে সহমত নন, তাঁদের কখনোই বিজেপি ‘শত্রু’-র চোখে দেখেনি।”

Lok Sabha Election 2019: ‘প্রতিপক্ষকে কখনোই শত্রু বা দেশদ্রোহী ভাবে নি বিজেপি’
ভোটের মুখে ব্লগে মোদী-শাহর নেতৃত্ব নিয়ে সরব আডবানি।ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

“বিজেপি কখনোই প্রতিপক্ষ শিবিরকে শত্রু বা দেশদ্রোহীর চোখে দেখেনি,” লোকসভা ভোটের মুখে এই মন্তব্য করে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহর নেতৃত্বের সমালোচনায় মুখর হলেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবানি। আগামী ৬ এপ্রিল বিজেপির প্রতিষ্ঠাতা দিবসের প্রাক্কালে বৃহস্পতিবার ব্লগ লিখে পরোক্ষে মোদী-শাহের নেতৃত্বকে বার্তা দিয়েছেন আডবানি।

লোকসভা ভোটের আরও খবর পড়ুন, এখানে

নিজের ব্লগে আডবানি লিখেছেন, “রাজনৈতিক ভাবে যাঁরা আমাদের আদর্শের বিরুদ্ধে বা আমাদের সঙ্গে সহমত নন, তাঁদের কখনোই বিজেপি ‘শত্রু’-র চোখে দেখেনি। দলের জন্মলগ্ন থেকে বিজেপি কখনোই প্রতিপক্ষকে দেশদ্রোহীর তকমা দেয়নি।” প্রসঙ্গত, বিরোধীদের ‘শত্রু’ ও ‘দেশদ্রোহী’ তকমা দিয়ে লোকসভা ভোটের প্রচারে এবার আওয়াজ তুলেছেন মোদী-শাহরা। একইসঙ্গে আডবানি লিখেছেন, “আগে দেশ, পরে দল, শেষে ব্যক্তি, এটাই আমার জীবনের নীতি…”

আরও পড়ুন: Narendra Modi interview: “পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতিতে আমার সমস্যা নেই, তবে দেশের গণতন্ত্রের জন্য বিপজ্জনক”

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা ও তারপর বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ার স্ট্রাইক, এহেন দুই ঘটনায় বিরোধী শিবিরের বক্তব্যকে নিশানা করে ভোটের প্রচারে শামিল হয়েছেন মোদী-শাহরা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজেই বলেছেন, পাকিস্তান ও জঙ্গিরা তাঁকে হারাতে চান আর বিরোধীদের জেতাতে চান। বুধবার মোদী বলেন, কংগ্রেসের নির্বাচনী ইস্তেহার আদতে “পাক ষড়যন্ত্রের ব্লু-প্রিন্ট”। মোদীর মতো বিজেপি সভাপতি অমিত শাহও বিরোধীদের নিশানা করে বলেছেন, পাকিস্তানের হয়ে কথা বলছেন বিরোধীরা। মোদীর মন্ত্রিসভার অন্যতম প্রধান মুখ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির গলাতেও শোনা গিয়েছে এক সুর। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও কংগ্রেসকে বিঁধতে গিয়ে দেশবিরোধী তকমা দিয়েছেন।

লোকসভা নির্বাচনের মুখে দলেরই বর্তমান নেতৃত্বের সমালোচনা করে যেভাবে সরব হলেন আডবানি, তা রাজনৈতিক দিক থেকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল। প্রসঙ্গত, এবার লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন না আডবানি। গান্ধীনগর থেকে জয়ী ছবারের সাংসদকে এবার ভোটের টিকিট দেওয়া হয়নি। তাঁর পরিবর্তে ওই আসনে এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন অমিত শাহ।

অন্যদিকে, আডবানির ব্লগের প্রেক্ষিতে টুইট করেছেন নরেন্দ্র মোদী। টুইটারে মোদী লিখেছেন, বিজেপির আদর্শই তুলে ধরেছেন আডবানি। দলের প্রবীণ নেতার বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে মোদী লিখেছেন, “আগে দেশ, পরে দল, শেষে ব্যক্তি, এটাই বিজেপির নীতি। বিজেপির সদস্য হতে পেরে গর্বিত।”

আডবানির বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে টুইট করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। টুইটে মমতা লিখেছেন, “একদমই ঠিক কথা, বিরোধীদের সরব হওয়া মানেই তাঁরা দেশদ্রোহী নন। আমরা ওঁর বক্তব্যকে স্বাগত জানাচ্ছি…।’’

উল্লেখ্য, এর আগেও মোদী-শাহের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন আডবানি। ২০১৫ সালে বিহার বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির পর আডবানির নেতৃত্বাধীন ‘মার্গদর্শক মণ্ডল’-এর তরফে এক বিবৃতিতে মোদী-শাহর নেতৃত্বের সমালোচনা করা হয়েছিল।

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Election news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp never called its rivals enemies or anti national l k advani pm modi amit shah loksabha election 2019