scorecardresearch

Lok Sabha Election 2019: ‘কেন্দ্রে সরকার গড়ছে তৃণমূল’, শপথ নিয়েই প্রথম পদক্ষেপ কী?

2019 Lok Sabha Elections: ডেরেক ও’ব্রায়েন বলেন, ২৩ মের পর বিরোধী (বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে) দলগুলির সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে কেন্দ্রে সরকার গড়বে তৃণমূল।

mamata, tmc, loksabha election 2019, মমতা, লোকসভা ভোট, তৃণমূল
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

General Election 2019: ২০১৯ সালে দেশের সরকার গড়বে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল। অন্যন্য বিরোধী (বর্তমানে) দলকে সঙ্গে নিয়েই সরকার গড়বে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস। মঙ্গলবার দিল্লিতে এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই দাবি করলেন একদা প্রখ্যাত ক্যুইজ মাস্টার তথা তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। তাঁর দাবি, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর দেশের তিনটি শীর্ষ রাজনৈতিক দলের অন্যতম হবে তৃণমূল। বিজেপির নানা ‘মিথ্যা’ ফাঁস করতে এদিন ‘জুমলামিটার’ও প্রকাশ করেছেন ডেরেক।

লোকসভা ভোটের আরও খবর পড়ুন, এখানে

কীভাবে সম্ভব?

ডেরেক বলেন, তাঁদের হিসাব অনুযায়ী আসন্ন নির্বাচনে বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট সর্বোচ্চ ১৮০টি আসনে জয়লাভ করবে। এরপরই জোরের সঙ্গে তিনি জানান, ২৩ মের পর বিরোধী (বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে) দলগুলির সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে কেন্দ্রে সরকার গড়বে তৃণমূল। উল্লেখ্য, ২০১৪ নির্বাচনের পর লোকসভায় প্রতিনিধি সংখ্যার নিরিখে দেশের চতুর্থ বৃহৎ রাজনৈতিক দলের স্বীকৃতি পেয়েছিল তৃণমূল।

আরও পড়ুন- ‘‘হামাগুড়ি দিয়ে ক্ষমা চাইব’’, কেন একথা বললেন মমতা?

এই সরকারে তৃণমূলের অগ্রাধিকার কী?

ডেরেক বলেন, “তৃণমূল যেদিন ক্ষমতায় আসবে, সেদিনই মহিলা সংরক্ষণ বিল পাশ করাবে”। সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস যে আক্ষরিক অর্থেই ‘সর্বভারতীয়’ লক্ষ্য নিয়ে চলছে, এদিন সে কথা স্পষ্ট করে দেন ডেরেক ও’ব্রায়েন। তিনি জানান, কেন্দ্রে সরকার গড়ার পর কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন করানো এবং মহিলা সংরক্ষণ বিল পাশ করাই হবে তাঁদের অগ্রাধিকার।

আরও পড়ুন- মমতাই সারদায় সবথেকে বড় ‘সুবিধাভোগী’, বিস্ফোরক মুকুল

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এসেছিল তৃণমূল। এই নির্বাচনের আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের প্রতিশ্রুতি ছিল, ক্ষমতায় এসে প্রথম দিনই ক্যাবিনেট বৈঠক করে সিঙ্গুরের অধিগৃহীত জমি ফেরৎ দেওয়া হবে। প্রতিশ্রুতি মতো রাজভবনে শপথ গ্রহণ করেই রাইটার্স বিল্ডিং-এ আসেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। এরপর সেই রাতেই তিনি মন্ত্রিসভার বৈঠকে জমি ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পরে কৃষকরা জমি ফিরে পেয়েছেন।

এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে দার্জিলিং-এর বিজেপি প্রার্থী রাজু বিস্তকে নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ডেরেক। তিনি বলেন, “দার্জিলিং-এ আমাদের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এক ভূমিপুত্র। আর বিজেপির প্রার্থী এসেছেন মণিপুর থেকে”। বিজেপির এই প্রার্থী পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি সম্পর্কে কতটা অজ্ঞ তা বোঝাতে ডেরেক বলেন, “৪২ আসনের পশ্চিমবঙ্গে উনি ৫০টি আসন জিততে চান”।

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Election news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Lok sabha polls tmc will form government with other oppositions