scorecardresearch

বড় খবর

Lok Sabha polls 2019: অন্যকে ছোট করে নিজে বড় হওয়া যায় না: মিমি

Lok Sabha polls 2019: “যাঁরা আমার বিপরীতে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা আমার গুরুজন, এই কথাটা আমি বারবার বলব। ছোট থেকে এই শিক্ষাটাই পেয়েছি,” বললেন মিমি চক্রবর্তী।

Lok Sabha polls 2019: অন্যকে ছোট করে নিজে বড় হওয়া যায় না: মিমি
যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী

Lok Sabha polls 2019: বচ্ছরকার দিন। বসন্তের আনন্দ-উৎসব। আজকের দিনে কোনও কাজ রাখেন নি যাদবপুর লোকসভা ভোটের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী। যে টলিউড নায়িকার প্রার্থী হওয়া রাতারাতি গ্ল্যামার-রঞ্জিত করে দিয়েছে যাদবপুরের ভোট-ময়দানকে।

সকাল সকাল যখন ফোনে ধরা গেল তাঁকে, প্রশ্ন করার আগেই হাসি ছিটকে এল দূরভাষের অন্য প্রান্ত থেকে, “আজ তো দোল! ছুটির দিন।” হালকা মেজাজেই বলা, কিন্তু সদ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হওয়ার সুবাদে মিমি বিলক্ষণ জানেন, মানুষের জন্য কাজে কোনও ছুটি নেই। বুঝিয়েও দিলেন সেটা।

আরও পড়ুন: Lok Sabha Election 2019: মিমি-নুসরত, মমতার পুরনো চালের নতুন মুখ

বিপরীতে সিপিএমের বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য, একজন দুঁদে রাজনীতিক। সুতরাং নিশ্চয়ই কিছু পরিকল্পনা নিয়েই এগোচ্ছেন? স্ট্র্যাটেজি ? মিমির উত্তর, “ধরুন যদি প্ল্যান করেও থাকি, সেটা তো সবাইকে জানাব না। আর আমি কোনও লড়াই করতে কিন্তু এই ময়দানে নামি নি, কেরিয়ারের পিক সময়ে এই সিদ্ধান্তটা নিয়েছি একটাই কারণে। বৃহত্তর স্বার্থে মানুষের সেবা করার জন্য। যাঁরা আমার বিপরীতে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা আমার গুরুজন, এই কথাটা আমি বারবার বলব। ছোট থেকে এই শিক্ষাটাই পেয়েছি। উনি কলকাতার মেয়র ছিলেন। এতগুলো বছর নিজের দলকে দিয়েছেন। ওঁকে প্রণাম জানানো ছাড়া আমার কিছু বলার থাকতে পারে না।”

যে কয়েকদিন আপনি প্রচারে নেমেছেন তাতে মানুষের সমস্যা কিছু সামনে এসেছে? “এখনও পর্যন্ত সেভাবে নয়।” কীভাবে আগামীদিনে এগোবেন তা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা হয়েছে? “ডেফিনিটলি! দিদি, অরূপদা.. ওঁদের দেখানো পথেই চলার চেষ্টা করছি। ওঁদের পরামর্শ ছাড়া এগোচ্ছি না।”

আরও পড়ুন: Lok Sabha Election 2019: “কোথায় সুগত বসু, আর কোথায় মিমি”!

মিমের তরজা শেষ, এবার গান বিতর্ক শুরু। কী বলবেন? একটা সুস্থ রাজনৈতিক পরিবেশ তো প্রত্যেকের প্রাপ্য? নায়িকার উত্তরে পাওয়া গেল পরিণতির ছোঁয়া, “এগুলো সারা জীবনই কিছু মানুষ করে এসেছে। আমরা ভাবি যে একজনকে ছোট করে নিজেরা বড় হব। কিন্তু সেটা তো হয় না। আমার বড় হওয়াটা নির্ভর করবে কাজের উপর। আমি গানটা পুরোটাই শুনেছি। বাবুলদাকে আমি শ্রদ্ধা করি। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন যা করার করবে।”

এখন দেশের যা অবস্থা, তাতে বিজেপি ক্ষমতায় না এলে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল মিলিয়ে একটা জোট সরকার তৈরি হতে পারে। সেক্ষেত্রে তৃণমূলের একটা বড় ভূমিকা থাকবে, ধরেই নেওয়া যায়। জাস্ট কথার কথা বলছি, আপনাকে যদি সংস্কৃতি মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হয় আপনার প্রথম কাজ কী হবে? মিমির উত্তর, “এটা বলার সঠিক সময় এখনই নয়। ইটস টু আর্লি টু সে।”

কী বেরিয়ে আসছে স্বল্পক্ষণের আলাপচারিতায়? বড় পর্দার ‘রিল লাইফ’ থেকে ভোটযুদ্ধের ‘রিয়েল লাইফ’-এ দ্রুত মানিয়ে নিতে শুরু করেছেন মিমি চক্রবর্তী। মেপে পা ফেলছেন কাঙ্খিত গন্তব্যের উদ্দেশ্যে। ভোটের লড়াই ক্রমে জমে উঠছে যাদবপুরে। জটায়ু হলে লিখতেন, ‘যাদবপুর জমজমাট’।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Election news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mimi chakraborty tmc candidate jadavpur interview