scorecardresearch

বড় খবর

‘বিজেপির সঙ্গে জোটের অতীত আছে তৃণমূলের’, উত্তর দিনাজপুরে খোঁচা রাহুলের

তাঁর অভিযোগ, ‘বিজেপি বাংলায় বিভাজনের রাজনীতি করে ক্ষমতায় আসতে চাইছে৷’ পাশাপাশি তাঁর দাবি, ‘গত ১০ বছরে বাংলায় কোনও উন্নতি করেনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।‘

BJP, RSS attacking culture & harmony of Jammu, says Cong Leader Rahul Gandhi
ফের রাহুলের নিশানায় বিজেপি-আরএসএস

বাংলায় হয়ে গিয়েছে চার দফার ভোট। তৃণমূল,বিজেপির তারকা প্রচারকরা ঝড় তুলে ফেলেছে বঙ্গ ভোটে। কিন্তু কংগ্রেসের প্রচারকের তালিকায় নাম থাকলেও, প্রথম চার দফায় অনুপস্থিত ছিলেন তিনি। অবশেষে পঞ্চম দফার ভোটের আগে গোয়ালপোখরে জনসভা করলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। মঙ্গলবার একযোগে তিনি আক্রমণ করলেন তৃণমূল-বিজেপিকে। তাঁর বক্তব্যে মোদী-মমতা, দু’জনের বিরুদ্ধেই ঝাঁঝ ছিল।

তাঁর অভিযোগ, ‘বিজেপি বাংলায় বিভাজনের রাজনীতি করে ক্ষমতায় আসতে চাইছে৷’ পাশাপাশি তাঁর দাবি, ‘গত ১০ বছরে বাংলায় কোনও উন্নতি করেনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।‘ এমনকি, পাশাপাশি, অতীতে বিজেপি-র সঙ্গে জোটের কথা মনে করিয়ে দিয়েও মমতার অস্বস্তি বাড়ানোর চেষ্টা করেছেন কংগ্রেস নেতা৷

এদিন উত্তর দিনাজপুরের গোয়ালপোখরের জনসভায় বক্তব্যের বেশির ভাগ অংশেই অবশ্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিজেপি-কে আক্রমণ করেছেন রাহুল৷ তাঁর অভিযোগ, ‘উত্তর প্রদেশের মতো বাংলাতেও বিভাজনের রাজনীতি করে ক্ষমতায় আসতে চাইছে বিজেপি৷ আর একবার তা হলে বাংলায় আগুন জ্বলবে৷ নরেন্দ্র, অমিত শাহদের কিছু হবে না৷ আগুন লাগলে এখানে লাগবে৷ নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ পুড়বেন না, ওনাদের নিরাপত্তা আছে৷ বাংলা জ্বলবে৷ বাংলার মা বোনেরা পুড়বে৷ একবার বাংলাকে বিভক্ত করতে পারলে এখানে আগুন লাগা কেউ আটকাতে পারবে না৷ এমন আগুন জ্বলবে যা আগে কেউ কোনওদিন দেখেননি৷ আমরা ভোটে লড়ছি না৷ ইতিহাস, ভাষাকে রক্ষা করার লড়াইয়ে নেমেছি৷ বাংলা ভাগ হলে সবথেকে বেশি ক্ষতি হবে বাংলার জনতার, বাংলার ভবিষ্যতের৷’

রাহুল গাঁধির অভিযোগ, ‘বাংলার মতো অসম, তামিলনাড়ুতেও একই ভাবে হিংসা আর ঘৃনা ছড়াচ্ছে বিজেপি৷’ এর পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করেন রাহুল গাঁধি৷ তিনি বলেন, ‘এখানকার লক্ষ লক্ষ মানুষ কাজের খোঁজে বাইরে যান৷ এখানে কাজ মেলে না৷ না মোদিজি দেয়, না মমতাজি দেয়৷ আর যেটুকু মেলে, তার জন্য আগে কাটমানি দিতে হয়৷ বাংলাই প্রথম রাজ্য যেখানে রোজগারের জন্য আগে টাকা দিতে হয়৷ এটাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবদান৷ বলছে ভোটের সময় খেলা হবে৷ এখানে রাস্তা, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় কে করবে? নাটক চলছে৷ মোদিজি বলছেন করোনা এলে থালা, ঘণ্টা বাজাও, মোবাইলের টর্চ জ্বালাও৷ ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী এ রকম হয়?’

নোটবাতিল, জিএসটি, লকডাউন, নয়া কৃষি আইন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করে রাহুল বলেন, ‘প্রথমে দেশের ছোট ব্যবসায়ী তার পরে এখন কৃষকদের সর্বনাশ করে বাংলায় এসে বলছেন সোনার বাংলা গড়ব৷ সব জায়গায় গিয়ে তাই বলছেন৷ ভারতের অর্থনীতিকে নষ্ট করে দিয়েছেন৷ আগে ভারতের অর্থনীতি নিয়ে বিদেশেও প্রশংসা হত৷ গোটা দুনিয়া ভারতের পরিস্থিতি দেখে হাসছে৷’

কংগ্রেস এবং তাদের জোট প্রার্থীদের জয়ী করার আবেদন করে রাহুল বলেন, ‘মমতাজিকে আপনারা দায়িত্ব দিলেন বাংলা চালানোর৷ উনি কি আপনাদের জন্য কাজ করেছেন? আপনাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন? রাস্তা, কলেজ বানিয়েছেন? তাহলে কী লাভ হল? ফলে আপনাদের ভেবেচিন্তে সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থীদের জয়ী করুন৷’

উত্তর প্রদেশের উদাহরণ দিয়ে রাহুল বলেন, ‘বিজেপি উত্তরপ্রদেশে বিভাজনেপ আগুন লাগিয়ে ভোটে জিতেছে৷ তার পরে কী হয়েছে? হাসপাতালগুলি করোনায় মৃতদের লাশে ভরে গিয়েছে৷ যেদিকেই তাকাবেন, মানুষ করোনায় মরছে, মুখ্যমন্ত্রীর কোনও হেলদোল নেই৷ উন্নয়নের নিরিখেও কিছু হয়নি৷’

বক্তব্যের শেষ দিকে অতীতে তৃণমূল- বিজেপি-র জোটের প্রসঙ্গও তোলেন রাহুল৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অস্বস্তিতে ফেলতে রাহুল বলেন, ‘কংগ্রেস কোনওদিন বিজেপি-র সঙ্গে সমঝোতা করেনি৷ মমতা করেছেন৷ মনে রাখবেন, আমাদের আরএসএস- বিজেপির সঙ্গে আদর্শগত লড়াই, শুধু রাজনৈতিক লড়াই নয়৷ আরএসএস-এর আদর্শ আমাদের সবথেকে বড় নেতা, গাঁধিজির হত্যার জন্য দায়ী৷ মরে গেলেও বিজেপি-র সঙ্গে আমরা হাত মেলাবো না৷ মমতাজির কাছে এটা শুধু রাজনৈতিক লড়াই৷ এই কারণেই কংগ্রেস মুক্ত ভারতের কথা বলেছেন মোদি৷ তৃণমূল মুক্ত ভারতের কথা বলেনি৷ কারণ তৃণমূলে ওদের আপত্তি নেই৷ ওনাদের লড়াই কংগ্রেসের সঙ্গে, কংগ্রেসের আদর্শের সঙ্গে৷ কারণ উনি জানেন যে রাহুল গাঁধি ওদের ভয় পায় না, বরং ওঁরাই রাহুল গাঁধিকে ভয় পায়৷’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Election news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rahul gandhi attacks tmc and bjp over non development and divisive politics while campaigning in north bengal state