বড় খবর

“ক্ষমতায় ফিরলে CAA কার্যকর হবে না”, আসামে প্রতিশ্রুতি রাহুলের

আসামের জন্য পাঁচটি অঙ্গীকার করলেন কংগ্রেস সাংসদ।

রাহুল গান্ধী

ভোটের মুখে আসামে জ্বলন্ত ইস্যু নাগরিকত্ব আইন। যতই শাসকদল বিজেপি সিএএ-কে ইস্যু মানতে নারাজ হোক, কিন্তু আসামে নাগরিকত্ব আইন দিয়েই সুফল তুলতে মরিয়া বিরোধী কংগ্রেস মহাজোট। শুক্রবার ফের ভোটমুখী আসামে গিয়ে সিএএ ইস্যুতে বিজেপিকে বিঁধলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। সাফ জানালেন, ক্ষমতায় ফিরলে আসামে নাগরকিত্ব আইন কার্যকর করবে না দল।

এদিন তিনি ডিব্রুগড়ে পড়ুয়াদের একটি অনুষ্ঠানে বিজেপিকে নিশানা করে বলেন, নাগপুর থেকে একটা শক্তি দেশ চালাচ্ছে। একনায়কতন্ত্র দেশকে নিয়ন্ত্রণ করছে। এবার যুব সম্প্রদায় এই শক্তিকে রুখে দেবে ভালবাসা দিয়ে। তিনি আরও বলেন, “বিজেপি চা শ্রমিকদের ৩৫১ টাকা দৈনিক মজুরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১৬৭ টাকা করে দিচ্ছে। আমি নরেন্দ্র মোদী নই, আমি মিথ্যা বলি না। আমি ৫টি অঙ্গীকার করছি, চা শ্রমিকদের দৈনিক ৩৬৫ টাকা, সিএএ বাতিল, ৫ লক্ষ চাকরি, ২০০ ইউনিট পর্যন্ত নিঃশুল্ক বিদ্যুৎ এবং গৃহিনীদের ২ হাজার টাকা করে ভাতা।”

রাহুল গান্ধীর প্রতিশ্রুতি, “চা শিল্পের জন্য আমরা বিশেষ মন্ত্রক তৈরি করব। যাতে শিল্পের সঙ্গে যুক্ত মানুষদের সমস্যা দ্রুত সমাধান করা যায়। চা শ্রমিকদের সঙ্গে সমস্যা গুলি আলোচনা করেই আমরা ইস্তেহার প্রকাশ করব। রুদ্ধদ্বার ঘরে নয়। প্রধানমন্ত্রী ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’র কথা বলেন, কিন্তু আপনারা মোবাইল ফোন-জামাকাপড় দেখলেই বুঝতে পারবেন তাতে লেখা ‘মেড ইন চায়না’। ‘মেড ইন আসাম’ বা ইন্ডিয়া লেখা থাকে না। কিন্তু আমরা ‘মেড ইন আসাম’ দেখতে চাই, ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ দেখতে চাই। বিজেপির দ্বারা এটা সম্ভব নয়, কারণ ওরা শুধু শিল্পপতিদের জন্য কাজ করে।”

Get the latest Bengali news and Election news here. You can also read all the Election news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Well stand against caa rahul gandhi in assam

Next Story
তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়ে কার কপালে জুটল টিকিট, কার হাত রইল খালি?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com