scorecardresearch

বড় খবর

‘মির্জাপুর’ নির্মাতাদের গ্রেপ্তারিতে স্থগিতাদেশ জারি এলাহাবাদ কোর্টের, স্বস্তিতে ফারহান

উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুর শহরের ভাবমূর্তি নষ্ট করা থেকে শুরু করে, সামাজিক সহিষ্ণুতা লঙ্ঘন, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের মতো একাধিক অভিযোগ উঠেছে এই ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে।

‘মির্জাপুর’ নির্মাতাদের গ্রেপ্তারিতে স্থগিতাদেশ জারি এলাহাবাদ কোর্টের, স্বস্তিতে ফারহান

গত ১৯ জানুয়ারি ‘মির্জাপুর’ নির্মাতাদের বিরুদ্ধে FIR দায়ের হয়েছিল। একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে উঠেছিল গ্রেপ্তারের দাবি। এবার সেই বিতর্কেই এলাহাবাদ কোর্টের রায়ে স্বস্তি পেলেন ওয়েব সিরিজের দুই প্রযোজক ফারহান আখতার এবং রীতেশ সিধওয়ানি। ‘মির্জাপুর’ নির্মাতাদের আইনি বিপাকে পড়ার জল্পনা যখন তুঙ্গে, তখন ফারহান ও রীতেশের গ্রেপ্তারের উপর স্থগিতাদেশ জারি করল এলাহাবাদ উচ্চ আদালত। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মামলাকারী এবং উত্তরপ্রদেশ সরকারের প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়েছে আদালতের তরফে। এর পাশাপাশি মামলার তদন্তে প্রযোজকদ্বয়কে যোগ দেওয়ার নির্দেশও দিয়েছে এলাহাবাদ হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত, উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুর শহরের ভাবমূর্তি নষ্ট করা থেকে শুরু করে, সামাজিক সহিষ্ণুতা লঙ্ঘন, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের মতো একাধিক অভিযোগ উঠেছে এই ওয়েব সিরিজের প্রযোজক রীতেশ সিধওয়ানি (Ritesh Sidhwani), ফারহান আখতার (Farhan Akhtar), ভৌমিক কোন্ডালিয়ার বিরুদ্ধে। সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়েরকারীর অভিযোগ, ‘মির্জাপুর’-এর দ্বিতীয় সিজনে উত্তরপ্রদেশকে অপরাধপ্রবণ জায়গা হিসেবে দেখানো হয়েছে। যেখানে কিনা সবসময়ে খুন-রাহাজানি কিংবা যাবতীয় বেআইনি কাজকর্ম হয়। আর সেই প্রেক্ষিতেই আমাজন প্রাইমের এই ওয়েব সিরিজ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন এসকে কুমার নামে জনৈক ব্যক্তি। যার জেরে সম্প্রতি দেশের শীর্ষ আদালতের তরফে নোটিস গিয়েছিল সংশ্লিষ্ট ওয়েব সিরিজের নির্মাতাদের কাছে। স্বাভাবিকবশতই রোষানল থেকে বাদ যায়নি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আমাজন প্রাইমও। সুপ্রিম কোর্টের তরফে নোটিস গিয়েছে সংশ্লিষ্ট চ্যানেল কর্তৃপক্ষের কাছেও। এবার সেই মামলার শুনানিতেই শুক্রবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন দুই প্রযোজক- ফারহান আখতার এবং রীতেশ সিধওয়ানি।

এর আগে মির্জাপুরেরই এক বাসিন্দা অরবিন্দ চতুর্বেদী এই ওয়েব সিরিজের নির্মাতাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিলেন মির্জাপুরের কোতওয়ালি দেহাত পুলিশ স্টেশনে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত হানা এবং অশালীন কন্টেন্ট প্রদর্শনের জন্য ভারতীয় সংবিধানের মোট তিনটি ধারায়- ২৯৫এ, ৫০৪ এবং ৫০৫ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ফারহান আখতার, রীতেশ সিধওয়ানি ও ভৌমিক কোন্ডালিয়ার বিরুদ্ধে।

আবারও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ আমাজন প্রাইমের (Amazon Prime) ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে। দিন কয়েক ধরেই সইফ আলি খান অভিনীত ‘তাণ্ডব’ (Tandav) নিয়ে বিজেপি শিবির তুলকালাম শুরু করেছে। এই একই অভিযোগে বিদ্ধ হয়েছিল অনুষ্কা শর্মা প্রযোজিত জনপ্রিয় ওয়েব সিরিজ ‘পাতাল লোক’ও। এবার ফের আরও এক ওয়েব সিরিজের জন্য রোষানলে পড়ল ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আমাজন প্রাইম। হিন্দুধর্মের ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগে কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে খ্যাতনামা ওয়েব সিরিজ ‘মির্জাপুর’কে (Mirzapur)। ইতিমধ্যেই জল গড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্ট অবধি। সংশ্লিষ্ট তিন ওয়েব সিরিজই যে আমাজন প্রাইমের প্ল্যাটফর্মে তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন নেই। কিন্তু বারবার কেন আমাজনের বিরুদ্ধেই ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ তোলা হচ্ছে? প্রশ্ন তো উঠছেই।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Allahabad high court stays arrest of mirzapur makers farhan akhtar ritesh sidhwani