বড় খবর

ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুরা ব্যস্ত ভোট নিয়ে, ‘একাকী’ অঙ্কুশের মন্তব্য, ‘হোলির দিনই গায়ে রং মাখবো’

কীসের ইঙ্গিত দিলেন টলিউড অভিনেতা?

ankush

অভিনেতারা এখন নেতা! একুশের বিধানসভা নির্বাচনে রাজনীতি এবং গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রি মিলেমিশে একাকার। এককথায় ‘মাখো-মাখো’ সমীকরণ। ওদিকে পদ্ম কিংবা ঘাসফুল শিবিরের ‘স্টার-স্ট্র্যাটেজি’ও তুঙ্গে! তারকাদের দলবদল কিংবা রাজনীতিতে পদার্পণের খবরে এখন আর হতবাক হন না আম-আদমিরা। নিত্যদিনই ইন্ডাস্ট্রির তারকারা রাজনৈতিক রং গায়ে মাখছেন। ভোটের আগে দলীয় কাজে বেজায় ব্যস্তও তাঁরা। তাই এমন প্রেক্ষিতেই একাকীত্বে ভুগছেন অঙ্কুশ হাজরা (Ankush Hazra)। তাঁর মন্তব্য, “এত একা কোনও দিন লাগেনি! হোলি আসছে তখনই না হয় গায়ে রং লাগাবো..!” অঙ্কুশের এমন মন্তব্যোই শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়। অতঃপর প্রশ্ন উঠেছে, “তাহলে তিনিও কি রাজনৈতির রং গায়ে মাখার কথা বলছেন?”

উল্লেখ্য, বুধবার বনি সেনগুপ্তর (Bonny Sengupta) বিজেপিতে (BJP) যোগদানের পরই অঙ্কুশ এমন টুইট করে বসেন। অঙ্কুশ অবশ্য এপ্রসঙ্গে অনেক আগেই সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, এখনই রাজনীতির ময়দানে নামার কোনও ইচ্ছে নেই তাঁর। তাহলে হঠাৎ কেন ‘গায়ে রং মাখা’ নিয়ে এমন টুইট? আসলে বন্ধুদের মিস করছেন অভিনেতা। কাউকে ফোনে ধরলেই ব্যস্ততার কথা শোনান তাঁরা। এদিকে বহুদিন ধরেই বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা-পার্টি মিস করছেন তিনি। একুশের ভোট আসতে না আসতেই সবাই বেজায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। কিন্তু সহকর্মীদের রাজনৈতিক মতাদর্শ নিয়ে কোনও আপত্তি নেই অঙ্কুশের। তাঁর কথায়, “কে কোন দলে যাচ্ছে যাক, কিন্তু বন্ধুত্ব যেন অটুট থাকে।”

তাই এখন শুধু ভোট (West Bengal Assembly Election 2021) শেষ হওয়ার অপেক্ষা করছেন অভিনেতা। নির্বাচন শেষ হলেই বন্ধুরা ফ্রি হবেন, তারপরই আড্ডা জমবে বলে মত অভিনেতার।

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Amid of tollywood celebs vote campaigning ankush hazra says never felt that left out

Next Story
পদ্ম যোগের পুরস্কার! ভোটের মুখে Y+ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পেলেন মিঠুন চক্রবর্তীmithun
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com