বড় খবর

পিছু ছাড়ছে না মাদকচক্র যোগ! ভুয়ো প্রেসক্রিপশনের অভিযোগে গ্রেফতার হতে পারেন অর্জুন রামপাল

সোমবার নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর মুম্বইয়ের অফিসে গিয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা।

arjun

এক সপ্তাহ আগেই নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর তরফে অর্জুন রামপালকে (Arjun Rampal) সমন পাঠানো হয়েছিল জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। তখনই এনসিবির কাছে অভিনেতা আবেদন জানিয়েছিলেন, “আমাকে আরেকটু সময় দিন।” অর্জুন জানিয়েছিলেন যে, ব্যক্তিগত সমস্যার জন্য আগামী ২২ তারিখের আগে তিনি এনসিবির দপ্তরে হাজিরা দিতে পারবেন না। সেই প্রেক্ষিতেই আজ, সোমবার নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর মুম্বইয়ের অফিসে গিয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা। তদন্তকারীরা ইতিমধ্যেই নানাভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তাঁকে। তবে এবার শোনা যাচ্ছে, মাদকচক্র যোগের জন্য গ্রেফতার করা হতে পারে অর্জুন রামপালকে।

সূত্রের খবর, এনসিবি আধিকারিকরা অভিনেতার কাছে থেকে বেশ কিছু নথিপত্র-সমেত বেশ কিছু তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছিলেন। সেই মতো অর্জুন একটি প্রেসক্রিপশনও জমা দিয়েছেন। আর সেই প্রেসক্রিপশন নিয়েই এখন জল্পনার সূত্রপাত। এনসিবি আধিকারিকরা সেটিকে জাল বলে মনে করছেন। শোনা যাচ্ছে, এটি যদি ভুয়ো হয় তাহলে বলিউড অভিনেতাকে গ্রেফতার করা হতে পারে। ওই প্রেসক্রিপশনে নাকি মানসিক রোগের উল্লেখও রয়েছে। সেই বিষয়েও তদন্ত করে দেখছে এনসিবি।

সোমবার বর্ধিত সময়ের আগেই নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর অফিসে হাজিরা দিলেন বলিউড অভিনেতা অর্জুন রামপাল। অর্জুনের উপর এনসিবির নজর পড়ার অন্যতম একটি কারণ হল, এর আগে মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন গ্যাব্রিয়েলার ভাই অ্যাগিসিয়ালোস ডেমিট্রিয়াডেস। চরস ও অ্যালপ্রাজোল ট্যাবলেটের মতো নিষিদ্ধ মাদক পাওয়া গিয়েছিল তাঁর কাছ থেকে। জানা যায়, মুম্বইয়ের কোকেন পাচারকারী ওমেগা গডউইনের সঙ্গেও তাঁর যোগাযোগ রয়েছে। কারণ জেরার সময়ে নাইজেরিয়ার নাগরিক ওমেগা নাম নিয়েছিল অ্যাগিসিয়ালোসের।

প্রসঙ্গত, নভেম্বর মাসের ১৩ তারিখ এনসিবি আধিকারিকদের জেরার মুখে পড়তে হয়েছিল অভিনেতাকে। প্রসঙ্গত, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির মাদকচক্র যোগে অর্জুন রামপালের (Arjun Rampal) নাম জড়ানোর খবর গত মাসেই প্রকাশ্যে এসেছে। ১০ নভেম্বর বলিউড অভিনেতার মুম্বইয়ের বাড়িতে হানা দিয়েছিলেন নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (Narcotics Control Bureau) আধিকারিকরা। এরপর প্রেমিকা গ্যাব্রিয়েল দিমেত্রিয়াদেস-সহ অর্জুনকেও তলব করেছিল এনসিবি। অর্জুন রামপালের বাড়িতে তল্লাশি চালানোর পর গ্রেফতার করা হয়েছিল অভিনেতার গাড়ির চালককে। বাজেয়াপ্ত করে নেওয়া হয়েছিল অর্জুনের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন-সহ বাড়ির যাবতীয় গ্যাজেটসও।

প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃত্যু মামলায় মাদকযোগের পর থেকেই একাধিক বলিউড অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নাম জড়িয়েছে। দীপিকা পাড়ুকোনের ম্যানেজার থেকে শুরু করে শ্রদ্ধা কাপুর, রকুলপ্রীত সিং-এর মতো অনেককেই এযাবৎকাল তলব করেছেন এনসিবির আধিকারিকরা। তবে মাঝে কিছুটা থিতিয়ে গেলেও এবার পুজোর পর থেকে ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে এই প্রসঙ্গ।

Web Title: Arjun rampal reaches to ncb office

Next Story
জলপাইগুড়ির ‘অ্যাম্বুল্যান্স দাদা’র হাসপাতালের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হচ্ছেন সোনু সুদSonu-Sood
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com