scorecardresearch

বড় খবর

‘অনেক’ ধন্যবাদ কলকাতা, ছবির প্রচারে এসে হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষা মানতে নারাজ আয়ুষ্মান

কলকাতার বুকে দাঁড়িয়ে সর্ব-ভাষা সমন্বয়ের পক্ষে সওয়াল অভিনেতার। বাংলায় অভ্যর্থনায় আপ্লুত অভিনেতা।

‘অনেক’ ধন্যবাদ কলকাতা, ছবির প্রচারে এসে হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষা মানতে নারাজ আয়ুষ্মান
'অনেক' ছবির প্রচারে কলকাতায় আয়ুষ্মান খুরানা

আগামী ২৭ মে মুক্তি পাচ্ছে ‘অনেক’। তার প্রাক্কালেই শুক্রবার কলকাতায় ছবির প্রচারে পা রেখেছিলেন আয়ুষ্মান খুরানা। আর অভিনেতার এই ‘ফ্রাইডে রিলিজ’ সুপারহিট! একথা শুনে হয়তো মনে হতেই পারে যে, এই শুক্রবার আয়ুষ্মানের কোনও ছবি রিলিজ করেছে। তবে না। আসলে এই ফ্রাইডে রিলিজ বলতে বাংলায় আয়ুষ্মানের আগমনের কথা বোঝানো হয়েছে। অভিনেতাকে অভ্যর্থনা জানাতে শহরের মিরাজ মাল্টিপ্লেক্সের মঞ্চে দেশের ভিন্ন প্রদেশের সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়েছিল। আসলে সিনেমার বিষয়বস্তু-ই তো তাই। আর বাংলায় এসে এহেন উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়ে আয়ুষ্মান যারপরনাই আপ্লুত। যাওয়ার কলকাতাকে ‘অনেক’ ধন্যবাদ জানিয়ে গেলেন অভিনেতা।

প্রসঙ্গত, উত্তর-পূর্ব ভারতের সমস্যা-উত্তেজনাকে কেন্দ্র করেই পলিটিক্যাল অ্যাকশন থ্রিলার ‘অনেক’ তৈরি করেছেন পরিচালক অনুভব সিনহা। এর আগে যিনি আয়ুষ্মানকে নিয়ে আর্টিকল ১৫ তৈরি করেছিলেন। সেই ছবির মার্কসিটে সিনে-সমালোচকরা ভাল নম্বর বসিয়েছিলেন। এবার ‘অনেক’-এর ক্ষেত্রেও আয়ুষ্মান খুরানাকেই বেছে নিয়েছেন তিনি। যে ছবিতে অতি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ছুঁড়েছেন অনুভব ও আয়ুষ্মান- অখন্ড ভারত কীভাবে বোঝানো যায়?

[আরও পড়ুন: IPL-এ খেলতে চেয়েছিলেন আমির খান! তীব্র অপমান করে পাল্টা দিলেন শাস্ত্রী]

‘অনেক’ ছবির গল্পে আয়ুষ্মানকে জোসুয়া নামে এক এজেন্টের ভূমিকায় দেখা যাবে। যাঁকে উত্তর-পূর্ব ভারতে পাঠানো হয় এক মিশন নিয়ে। বিচ্ছিন্নতাবাদী কিংবা ভিন্ন রাজ্যের দাবি তোলা দলগুলোর হুমকিকে ঠান্ডা করতে। তবে ময়দানে নেমে জোসুয়া ওরফে আয়ুষ্মান বুঝতে পারেন যে সেখানকার বাসিন্দাদের প্রচুর ক্ষোভ রয়েছে। কীভাবে তাঁদেরকে অপমান-লাঞ্ছনার শিকার হতে হয়, তা নিজে চোখে দেখে উপলব্ধি করতে পারেন তিনি। সেই জোসুয়া ওরফে আয়ুষ্মানকে যখন শুক্রবার জিজ্ঞেস করা হয় যে হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষা বলা যায় কিনা?

কলকাতার বুকে দাঁড়িয়ে অভিনেতা সাফ জানান, “আমরা তো একাধিক ভাষায় মিলিয়ে মিশিয়ে কথা বলি। তাহলে হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষা বলা হবে কেন? আমরা হিন্দিতে কথা বলার সময়ও অনেক উর্দু শব্দ প্রয়োগ করি। এমনকী সিনেমার সংলাপেও হিন্দি-উর্দু-ব্রজ ভাষা মিশে থাকে। অনেক ছবির সংলাপে মারাঠি ভাষাও প্রয়োগ করা হয়। এমনকী, প্রায়ই হিন্দি-ইংরেজি মিশিয়ে কথা বলি। যখন সব ভাষা মিলিয়ে মিশিয়েই কথোপকথন চলে, তাহলে শুধু হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষার তকমা দেওয়া হবে কেন? ভারতের প্রতিটা ভাষাকেই রাষ্ট্রভাষার তকমা দেওয়া উচিত।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ayushmann khurrana in kolkata for his upcoming film anek promotion