scorecardresearch

বড় খবর

কে এই রোশনি আলি? যাঁর করা মামলায় দীপাবলিতে বাজি নিষিদ্ধ করল হাইকোর্ট

পেশায় এই চলচ্চিত্র পরিচালক, কী আবেদন করেছিলেন হাইকোর্টে?

কে এই রোশনি আলি? যাঁর করা মামলায় দীপাবলিতে বাজি নিষিদ্ধ করল হাইকোর্ট
কলকাতার চলচ্চিত্র পরিচালকের আবেদনেই দীপাবলিতে বাজি নিষিদ্ধ করল হাইকোর্ট

অতিমারী আবহে গতবছরও দীপাবলিতে (Diwali 2021) বাজি নিষিদ্ধ করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। এবারও তার অন্যথা হয়নি। কালীপুজোর দিন কয়েক আগেই উচ্চ আদালতের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, এবারও কোনওরকম বাজি পোড়ানো যাবে না। এমনকী, নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে বাজি বিকিকিনির ওপরেও। দীপাবলি মানে শুধু আলোর উৎসব। মোম-প্রদীপ জ্বালিয়েই দীপাবলি, গুরুনানকের জন্মদিন পালন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta HC) তরফে। অতঃপর বাজি-প্রেমীরা মনমরা। কিন্তু বাড়ির পোষ্য কিংবা পথপশুদের জন্য যে এই নির্দেশ বেজায় মঙ্গলের, তা বলাই বাহুল্য। এনেকেই কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে সায় জানিয়ে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন। কিন্তু এই রায়ের নেপথ্যের মানুষটিকে চেনেন? তিনি রোশনি আলি (Roshni Ali)।

একজন পরিবেশকর্মী। পেশায় চলচ্চিত্র পরিচালক তথা প্রাক্তন সাংবাদিক। রোশনির সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল অন্তত এমনটাই বলছে। তিনিই কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন জানিয়েছিলেন যাতে এবার বাজি পোড়ানো নিষিদ্ধ হয়। সেই জনস্বার্থ মামলার রায় দেন বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টচার্য ও অনিরুদ্ধ রায়ের ডিভিশন বেঞ্চ।

[আরও পড়ুন: কালীপুজোর আগেই মাতৃ-বিয়োগ কৌশানীর, মাকে হারিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়লেন অভিনেত্রী]

আদালতে রোশনি দাবি তুলেছিলেন যে, অতিমারী পরিস্থিতি এখনও পুরোপুরি কাটেনি। এমতাবস্থায় গত বছর যেভাবে বাজি পোড়ানো নিষিদ্ধ হয়েছিল, এবছরও তাই করা হোক। কারণ, বাজির ধোঁয়ায় যে বায়ুদূষণ হয় তাতে বয়স্কদের পাশাপাশি বাচ্চাদেরও শ্বাসকষ্টের সমস্যা হতে পারে। আর কলকাতার সেই মহিলা চলচ্চিত্র পরিচালকের আবেদনেই সারা দিয়েছে আদালত। গত বছরের মতো এবারও নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে বাজি।

প্রসঙ্গত, শুক্রবারই যেকোনও ধরনের বিক্রি এবং বাজি পোড়ানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। বাজি ফাটানো যাবে না ছটপুজো, বড়দিন ও ইংরেজি নববর্ষেও। করোনা আবহে গত বছরও যেকোনও ধরনের বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল আদালত। এবারও গতবারেরইনির্দেশিকাই বহাল রাখা হল। করোনা সংক্রমণ এখনও কমেনি। এরমধ্যেই স্বাস্থ্যবিধিকে উপেক্ষা করে শারদীয়া উৎসবে বেলাগাম ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে। ফলে রাজ্যে কালীপুজোয় বাজি ফাটানোয় গতবারের নিষেধাজ্ঞা বহালের আবেদন জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিল রোশনি। শেষমেশ আদালতের রায়ে খুশি তিনি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Calcutta hc filmmaker roshni ali filed petition on banning firecrackers