scorecardresearch

বড় খবর

ভবানীপুরে হার! ‘দলবদলু’ রুদ্রনীলকে বহুজন সমাজ পার্টির ‘খোঁজ দিলেন’ পরিচালক অনিকেত

পরাজিত বিজেপিপ্রার্থীর রাজনৈতিক মতাদর্শের অস্থিরতা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন যে, “এবার ভোটে হেরে কি তিনি আবার দলবদল করবেন?” আর সেই প্রেক্ষিতেই খোঁচা দিলেন অনিকেত চট্টোপাধ্যায়।

Aniket

নেটজনতার একাংশের কাছে তিনি ‘গিরিগিটি’। একদা বাম মনোভাবাপন্ন অভিনেতার ভায়া তৃণমূল (TMC) হয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগদান অনেকের কাছেই চক্ষুশূল-সম! সেই জন্যই এহেন কটাক্ষের শিকার রুদ্রনীল ঘোষ (Rudranil Ghosh)। তাঁর রাজনৈতিক কেরিয়ার কম সমালোচিতও নয়। একুশের বিধানসভা ভোটের আগে দলবদলে পদ্ম-পুকুরে গিয়েও তরী বাঁচাতে পারেননি! পরিবর্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) খাসতালুক ভবানীপুরে তৃণমূলপ্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের কাছে একেবারে চূড়ান্তভাবে পরাস্ত হয়েছেন তিনি। অতঃপর পরাজিত বিজেপিপ্রার্থীর রাজনৈতিক মতাদর্শের অস্থিরতা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন যে, “এবার ভোটে হেরে কি তিনি আবার দলবদল করবেন?” আর সেই প্রেক্ষিতেই এবার রুদ্রনীল ঘোষকে বহুজন সমাজ পার্টির ‘খোঁজ দিলেন’ পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায় (Aniket Chattopadhyay)।

“অন্যকে রগড়াতে গিয়ে নিজেই কখন রগড়ে যাবেন, আপনি ধরতে পারবেন না”, বিজেপির ‘ঘোষ ব্রাদার্স’ রুদ্র-দিলীপকে ইতিমধ্যেই মোক্ষম ‘রগড়ানি’ দিয়েছেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় (Srijit Mukherjee)। এবার বাদ গেলেন না টলিপাড়ার আরেক নামজাদা পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ও। তাঁর আক্রমণের তীর অবশ্য রুদ্রনীল ঘোষের দিকে।

রবিবার সন্ধে হারের পর থেকেই নেটমাধ্যমে কটাক্ষের শিকার বিজেপিপ্রার্থী রুদ্রনীল। তবে যাবতীয় পরাজয়ের গ্লানি শিকার করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিরোধীপক্ষের দুই জয়ী প্রার্থীবন্ধু রাজ চক্রবর্তী ও কাঞ্চন মল্লিককে। সেই পোস্টেই কোনওরকম রেয়াত না করে অনিকেতের সপাট মন্তব্য, “বিএসপি (BSP) অফিসের ঠিকানা আর ফোন নম্বর রইল…।” তিনি সম্ভবত মনে করেছেন, ভাবনীপুরে হেরে এবার বোধহয় ফের দল বদল করতে মরিয়া হয়ে উঠবেন রুদ্রনীল ঘোষ। কারণ, ইতিমধ্যেই তিনি বাম শিবির, তৃণমূল (TMC) হয়ে বিজেপির (BJP) মতো তিন তিনটে রাজনৈতিক দল চষে ফেলেছেন। তাই এবার যদি রাজ্য কিংবা দেশের অন্য কোনও পার্টিতে একবার ঘুরে আসতে চান তো! রুদ্রনীলের পোস্টে অনিকেতের এমন মন্তব্যের পর একেবারে শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

তবে এখানেই থামেননি অনিকেত চট্টোপাধ্যায়। তাঁর রুদ্রনীলকে কটাক্ষ করে আরও মন্তব্য, “সাতে পাঁচে দাদা মাত্র ২৯ হাজার ভোটে হেরেছেন। রাস্তায় দেখা হলে কে কী বলবেন, জানতে মন চায়।” পাশাপাশি একুশের (West Bengal Assembly Election 2021) ভোটের আগে মমতা-শিবির ছেড়ে মোদী-শিবিরে যোগ দেওয়া নেতা-মন্ত্রীদের ‘মীরজাফর’ আখ্যা দিয়ে তাঁর মন্তব্য, “রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রবীর ঘোষাল, রুদ্রনীল ঘোষ, শীলভদ্র দত্ত সবকটা হেরেছে। মীরজাফররা সাফ।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Director aniket chattopadhyay slams rudranil ghosh