scorecardresearch

বড় খবর

‘আমার বিয়ে-বিচ্ছেদ নিয়ে লোকে কম ভাবুক, সময় বাঁচবে’, প্রেম নিয়ে অকপট দুর্নিবার

মুখ খুললেন ‘অচেনা উত্তম’-এর গায়ক।

‘আমার বিয়ে-বিচ্ছেদ নিয়ে লোকে কম ভাবুক, সময় বাঁচবে’, প্রেম নিয়ে অকপট দুর্নিবার
দুর্নিবার সাহা

সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে সঙ্গীত শিল্পী দুর্নিবার সাহা এবং তার স্ত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ তথা ঐন্দ্রিলা সেনের সঙ্গে প্রেম নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। এযাবৎকাল এই চর্চা নিয়ে মুখ খোলেননি গায়ক। কেনই বা বিবাহ বিচ্ছেদ, কেনই বা নতুন সম্পর্ক? নিজস্ব জীবনে সম্পর্কের টানাপোড়েন থাকলেও কেরিয়ারে একের পর এক সুযোগ, ‘অচেনা উত্তম’ ছবিতে গান গাওয়া, তাও আবার রবীন্দ্রসঙ্গীত- এবার সবকিছু নিয়েই ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলার কাছে অকপট শিল্পী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বহুল আলোচিত দুর্নিবার-মীনাক্ষীর বিবাহ বিচ্ছেদ। সর্বপ্রথম এই নিয়ে মুখ খোলেন স্ত্রী মীনাক্ষী। তবে কিছুদিন আগে নতুন সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসার পরেও কিন্তু টু শব্দ শোনা যায়নি তার মুখে। আগের মতই সোশ্যাল মিডিয়ায় সমস্ত সুন্দর মুহুর্তের ছবি ফ্রেমবন্দি রেখেছেন। এদিকে ঐন্দ্রিলা ওরফে জানিয়েছিলেন, ‘আজীবনের জন্য দুর্নিবার শুধুই তার।’

কিন্তু দুর্নিবার (Durnibar saha) নিজে কী বলছেন? তার বক্তব্য, “মানুষ যখন আমায় আলোচনায় রেখেছেন তখন কিছু একটা ভেবেই রেখেছেন। গল্পটা অনেকদিন আগে শেষ হয়ে গিয়েছিল। শুধু একটাই কথা বলব, আশপাশ থেকে যা শুনছেন বা বোঝার চেষ্টা করছেন সেটা ঠিক নয় কারণ ওটা আমার অত্যন্ত ব্যক্তিগত বিষয়। দর্শকদের এটুকুই বলতে চাই, যে আমার বৈবাহিক কিংবা প্রেমের জীবন নিয়ে বেশি না ভেবে যদি আমার কাজ নিয়ে ভাবতে শুরু করেন তবে আমি বেশি খুশি হব।”

[আরও পড়ুন: ‘ভয়ংকর! স্বপ্ন বিক্রি করে গণতন্ত্রের উৎসব, ছিঃ!’, SSC দুর্নীতিতে তোপ ঋদ্ধি সেনের]

বৈবাহিক জীবন এবং কলহের বাইরেও যে তার জীবনে অনেক কিছু ঘটে চলেছে সেই নিয়েও যথেষ্ট উত্তেজিত তিনি। একইসঙ্গে দুটি ছবিতে গান গেয়েছেন দুর্নিবার সাহা। ‘অচেনা উত্তম’ ও ‘সহবাস’ মুক্তি পেল এই শুক্রবার। কীভাবে সুযোগ হল? গায়ক বলেন, “উপালিদির তরফেই প্রথম জানতে পারি। তবে উত্তম কুমারের জীবনের ওপর কোনও ছবি তৈরি হচ্ছে সেটায় গান গাইব, এটা ভাবতে পারিনি। ‘তুমি সন্ধ্যার মেঘমালা’ গানটি গেয়েছি এই ছবিতে। এবং একটা সময় অবধি অনেককিছুই আমার কাছে অজানা ছিল। এবং তারপর যখন জানতে পারি যে ‘অচেনা উত্তম’ ছবিতে এই গানটিকে খুব গুরুত্বপূর্ণ অংশে ব্যবহার করা হচ্ছে, সত্যি কথা বলতে খুব খুশি।”

কীরকম অনুভূতি দুর্নিবারের? এপ্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, “জীবনে প্রথম এমন ঘটল। দুটি ছবি একসঙ্গে রিলিজ করছে, যাতে আমি গান গেয়েছি। এবং আমি চাই এটা বারবার হোক আমার সঙ্গে।” এখানেই শেষ নয়! দুর্নিবার শহর কলকাতায় কিংবা বাংলার মানুষের বুকে জায়গা করে নিয়েছেন পুরোদস্তুর। তাহলে বলি পাড়ায় জায়গা করা নিয়ে কী ভাবছেন? এবারেও সহজ উত্তর। তিনি বলেন, “ওই ইন্ডাস্ট্রি সম্পূর্ণ আলাদা। সেই জায়গায় পৌঁছাতে অনেকটা সময় লাগে। তবে হ্যাঁ এটুকু বলতে পারি বোম্বেতে গিয়ে আমার কাজকর্ম চলছে। যখনই খবর পাব, তখনই জানাবো সকলকে।” এখনই হয়তো নয়, তবে ভবিষ্যতে হলেও বলিউডে গান গাইতে পারেন দুর্নিবার – এমনই ইঙ্গিত দিলেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Durnibar saha open up about his personal life and career