scorecardresearch

বড় খবর

গোয়ার সমুদ্র সৈকতে ‘নগ্ন’ দৌড়, পুনমের পর এবার মিলিন্দ সোমানের বিরুদ্ধে দায়ের FIR

মেয়েরা নগ্ন হলেই অশ্লীলতা! আর পুরুষদের বেলায়? নেটদুনিয়ার বিতর্কের মাঝেই পুলিশি বিপাকে মিলিন্দ।

গোয়ার সমুদ্র সৈকতে ‘নগ্ন’ দৌড়, পুনমের পর এবার মিলিন্দ সোমানের বিরুদ্ধে দায়ের FIR

“মেয়েরা নগ্ন হলেই অশ্লীলতা? আর পুরুষদের বেলায়?…” গোয়ার সমুদ্র সৈকতে অশ্লীল ছবি-ভিডিও শুট করার দায়ে যদি পুনম পাণ্ডের (Poonam Pandey) বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের হতে পারে, তাহলে মিলিন্দ সোমানের (Milind Soman) নগ্ন হয়ে দৌড়নোটা কতটা যুক্তিযুক্ত? আর এই প্রেক্ষিতেই বা তাঁর বিরুদ্ধে কেন কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হবে না! সম্প্রতি এই প্রশ্ন তুলেই শোরগোল শুরু হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। অতঃপর যাবতীয় বিতর্কের পর পুলিশি বিপাক থেকে রেহাই পেলেন না মিলিন্দ সোমান। পুনমের পর এবার অশ্লীলতার অভিযোগ তুলে তাঁর বিরুদ্ধেও দায়ের হল এফআইআর।

সমুদ্র সৈকতে নগ্ন হয়ে দৌড়ানো এবং সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করার অভিযোগে গোয়া সুরক্ষা মঞ্চ নামে এক রাজনৈতিক সংগঠনের তরফে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে মিলিন্দ সোমানের বিরুদ্ধে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৪ (অশ্লীলতা) ধারা ও তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৭ ধারায় (অশ্লীল ছবি প্রকাশ) গোয়ার কোলবা থানায় এফআইআর দায়ের হয়েছে অভিনেতার বিরুদ্ধে, জানিয়েছেন দক্ষিণ গোয়ার পুলিশ সুপারিটেন্ডেন্ট পঙ্কজকুমার সিং। শুক্রবারই তাঁকে গোয়া পুলিশ আটক করেছিল বলে জানা গিয়েছে। যদিও অভিনেতা খোদ এই প্রসঙ্গে কোনওরকম মন্তব্য করেননি।

প্রসঙ্গত ৪ নভেম্বর, নিজের জন্মদিনে গোয়ার সমুদ্র সৈকতে নগ্ন হয়ে দৌড়নোর ছবি পোস্ট করেছিলেন মিলিন্দ সোমান। ক্যাপশনে লিখেছেন, “নিজেকে শুভ জন্মদিন জানাই। বয়স ৫৫, আর দৌড়ে যাচ্ছি।” মডেল-অভিনেতার স্ত্রীয়ের তোলা এই ছবিই শোরগোল ফেলে দিয়েছিল নেটদুনিয়ায়। অনেকেই উচ্চকণ্ঠে প্রশ্ন তুলেছিলেন, আবার কেউ বা পুনম পাণ্ডের প্রসঙ্গ তুলে মিলিন্দ সোমানকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি! এবার তার জেরেই পুলিশি বিপাকে পড়লেন অভিনেতা।

 

View this post on Instagram

 

Happy birthday to me ! . . . #55 ???? @ankita_earthy

A post shared by Milind Usha Soman (@milindrunning) on

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Fir against milind soman for posting obscene material