বড় খবর

শতবর্ষে ফিরে দেখা হেমন্তের শ্রেষ্ঠ গানের ডালি

বলা হয়, নিখুঁত ‘ব্যারিটোন’ বলতে যা বোঝায়, তা ভারতের চলচ্চিত্র জগতে স্রেফ দুজন গায়কের ছিল – এক, পঙ্কজ মল্লিক; দুই, তাঁরই গুণমুগ্ধ হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

hemanta mukherjee songs
১৯৫৬ সালে বসুশ্রী সিনেমা হলে তোলা এই ছবিটিতে রয়েছেন প্রতিমা বন্দ্যোপাধ্যায়, হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, আলপনা বন্দ্যোপাধ্যায়, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, এবং হেমন্তের স্ত্রী বেলা মুখোপাধ্যায়। ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস আর্কাইভ থেকে

‘এই পথ যদি না শেষ হয়, তবে কেমন হতো তুমি বলো তো…’

গায়ক বা সুরকার হিসেবে হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের সেরা দশটি গান বাছা, আর সমুদ্রের ঢেউ গোনা, একই রকমের ব্যর্থ প্রয়াস। অবিস্মরণীয়, অনবদ্য, কালজয়ী, যে বিশেষণই ব্যবহার করা যাক না কেন, অধিকাংশ বাঙালিরই তা যথেষ্ট মনে হবে না। বলা হয়, নিখুঁত ‘ব্যারিটোন’ বলতে যা বোঝায়, তা ভারতের চলচ্চিত্র জগতে স্রেফ দুজন গায়কের ছিল – এক, পঙ্কজ মল্লিক; দুই, তাঁরই গুণমুগ্ধ হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, যাঁকে তাঁর গায়কীর দৌলতে একসময় ‘ছোট পঙ্কজ’ বলে ডাকা হতো কলকাতার গান মহলে।

আরও পড়ুন: মুছে যাওয়া দিনগুলি: শতবর্ষ শেষে হেমন্তের জীবনের জানা-অজানা মুহূর্ত

বাঙলা এবং হিন্দি, এই দুই ভাষার মধ্যে অবাধে বিচরণ করতেন হেমন্ত। সিনেমার গান হোক, বা রবীন্দ্রসঙ্গীত, বা আধুনিক, গায়ক হিসেবে কোনও ক্ষেত্রেই বিন্দুমাত্র অস্বচ্ছন্দ বোধ করতেন না। সুরকার হিসেবেও বারবার প্রমাণ দিয়ে গিয়েছেন অগাধ বৈচিত্র্যের। একদিকে পশ্চিমী শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ভক্ত ছিলেন, অন্যদিকে ভারতীয় সঙ্গীতের নানা আঙ্গিকও ছিল তাঁর নখদর্পণে। তাই একদিকে যেমন রয়েছে ‘মণিহার’ ছবিতে শাস্ত্রীয় আঙ্গিক ‘কে যেন গো ডেকেছে আমায়’, আবার অন্যদিকে রয়েছে ‘পলাতক’ ছবিতে মেঠো সুরে ‘জীবনপুরের পথিক রে ভাই’। এই দুটি দিয়েই শুরু করা যাক তালিকা, তবে আপনাদের অংশগ্রহণে তা ফুলেফেঁপে উঠবে, এই আশা।

১। জীবনপুরের পথিক রে ভাই (পলাতক, ১৯৬৩); কথা: মুকুল দত্ত, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

২। কে যেন গো ডেকেছে আমায় (মণিহার, ১৯৬৬); কথা: মুকুল দত্ত, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, লতা মঙ্গেশকর

৩। এই রাত তোমার আমার (দীপ জ্বেলে যাই, ১৯৫৯); কথা: গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

৪। এই পথ যদি না শেষ হয় (সপ্তপদী, ১৯৬১); কথা: গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার, কণ্ঠ: হেমন্ত ও সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

৫। ইয়াদ কিয়া দিল নে কাহাঁ হো তুম (পতিতা, ১৯৫৩); কথা: হসরত জয়পুরি, সুর: শঙ্কর-জয়কিষণ, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, লতা মঙ্গেশকর 

৬। ইয়ে রাত ইয়ে চাঁদনী ফির কাহাঁ (জাল, ১৯৫২); কথা: সাহির লুধিয়ানভি, সুর: শচীন দেববর্মণ, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

৭। গাঁয়ের বধূ (আধুনিক); কথা ও সুর: সলিল চৌধুরী, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

৮। আমি ঝড়ের কাছে রেখে গেলাম (আধুনিক); কথা ও সুর: সলিল চৌধুরী, কণ্ঠ: হেমন্ত মুখোপাধ্যায়

৯। আমার মাথা নত করে দাও হে (রবীন্দ্রসঙ্গীত)

১০। যখন পড়বে না মোর পায়ের চিহ্ন (রবীন্দ্রসঙ্গীত)

পঞ্চাশ এবং ষাটের দশকের হিন্দি ছবির জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাকিলা একবার বলেছিলেন, “হেমন্তদা কি আওয়াজ মে শাম কি গঙ্গা কি লহরোঁ কি খামোশি হ্যায় (হেমন্তদার গলায় সন্ধ্যাবেলার গঙ্গার ঢেউয়ের নীরবতা রয়েছে)। এবং প্রবাদপ্রতিম কবি এবং গীতিকার গুলজার তাঁর বিখ্যাত সৃষ্টি, হেমন্তের সুরে লতা মঙ্গেশকরের গাওয়া ‘খামোশি’ ছবির গান ‘হাম নে দেখি হ্যায় ইন আখোঁ কি মেহেকতি খুশবু’ সম্পর্কে বলেছিলেন, গানটির সুরে যে “পবিত্রতার” প্রয়োজন ছিল, তা একমাত্র হেমন্তই আনতে পারতেন।

সময় আসবে, যাবে, তবে হেমন্তের সঙ্গীত অমর হয়েই থাকবে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Hemant kumar hemanta mukherjee hindi bengali songs

Next Story
মুছে যাওয়া দিনগুলি: শতবর্ষ শেষে হেমন্তের জীবনের জানা-অজানা মুহূর্ত
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com