বড় খবর

‘আর কত কাঁদবে হৃতিক?’, পুরনো মামলা মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চের হাতে যাওয়ায় বিস্ফোরক কঙ্গনা

২০১৬ সালে কঙ্গনার বিরুদ্ধে একটি FIR দায়ের করেছিলেন হৃতিক। সেই পুরনো মামলা নিয়েই এবার ফের চর্চায় কঙ্গনা-হৃতিকের সম্পর্ক, বিচ্ছেদ।

Kangana-hrithik

কঙ্গনা রানাউতের (Kangana Ranaut) আনা অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২০১৬ সালে একটি এফআইআর দায়ের করেছিলেন হৃতিক রোশন (Hrithik Roshan)। বলিউডের কন্ট্রোভার্সি ক্যুইনের পাঠানো যাবতীয় ই-মেলের প্রেক্ষিতেই দায়ের হয়েছিল সেই অভিযোগ। এবার বছর চারেক পর সেই পুরনো কেচ্ছা নিয়েই সরগরম সোশ্যাল দুনিয়া। কারণ, সোমবারই ২০১৬ সালে দায়ের করা সেই মামলা মুম্বই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের হাতে ন্যাস্ত করা হয়েছে।

তাঁর নামে ভুয়ো ই-মেল আইডি বানিয়ে কঙ্গনার সঙ্গে যোগাযোগ করার অভিযোগ এনে ২০১৬ সালে পুলিশে একটি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন হৃতিক রোশন। সংশ্লিষ্ট অভিযোগনামায় তিনি এও উল্লেখ করেছিলেন যে, ২০১৩ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে তিনি কঙ্গনার কাছ থেকে অসংখ্য আপত্তিজনক ই-মেল পেয়েছিলেন। বিচ্ছেদের পর সেই মামলা তুলেই আইনি দ্বৈরথে নামেন বলিউডের দুই তারকা। ২০১৬ সালের মার্চ মাসে কঙ্গনার বিরুদ্ধে ভুয়ো অভিযোগ আনার অভিযোগ তুলে এফআইআর দায়ের করেন অভিনেতা। কিন্তু তারপর থেকে সেই মামলা আর এগোয়নি। তাই এবার সংশ্লিষ্ট বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য মুম্বই পুলিশের ক্রাইম ইন্টেলিজেন্স ইউনিটকে দায়িত্ব দেওয়া হল। আর তার প্রেক্ষিতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের হৃতিকের বিরুদ্ধে কাদা ছুঁড়েছেন কঙ্গনা।

টুইটে হৃতিককে আক্রমণ করে কঙ্গনার মন্তব্য, “আবার গল্প শুরু! আমাদের বিচ্ছেদের পর আর ওঁর ডিভোর্সের পর এত বছর কেটে গিয়েছে, কিন্তু ও মুভ অন করতে চায়নি। এমনকী, অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্কেও যায়নি। কিন্তু আমি যখন সামান্য সাহস যোগাড় করে ব্যক্তিগত জীবনে এগিয়ে যাচ্ছি ও আবার এক নাটক শুরু করল। একটা ছোটখাট সম্পর্কের জন্য আর কতদিন কাঁদবে হৃতিক রোশন?”

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Hrithik roshan vs kangana ranauts 2016 case to be investigated by crime branch

Next Story
হাসপাতালের বেডেই গানের ছন্দে সাড়া দিচ্ছে শরীর, ভিডিও শেয়ার করলেন রেমোর স্ত্রীRemo-DSouza.
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com