”জিতদা পরিচালকের উপর নিজের সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেন একথা মিথ্যে”

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে জিতের নতুন ছবি 'প্যান্থার'। জিৎ-শ্রদ্ধা জুটিতে মাতোয়ারা দর্শক। এদিন এই ছবি প্রতিক্রিয়া নিয়ে কথা বললেন পরিচালক অংশুমান প্রত্যুষ। নায়ক থেকে বক্স অফিসের অঙ্ক, বাদ গেলনা কিছুই।

By: Kolkata  Updated: August 14, 2019, 09:31:02 AM

প্রথমবার স্বাধীনতা দিবসে মুক্তি পেল জিতের ছবি ‘প্যান্থার’। প্রথম সপ্তাহে ব্যবসার নিরিখে বেশ ভালই ফল করেছে এই ছবি। জিৎ-শ্রদ্ধা জুটি জনপ্রিয়ও হয়ে উঠেছে। আর সব দেখে যোগাযোগ করা হল ছবির পরিচালক অংশুমান প্রত্যুষের সঙ্গে। প্রথম সপ্তাহ অতিক্রান্ত, ‘প্যান্থার’-এর কেমন প্রতিক্রিয়া পাচ্ছেন? পরিচালক বললেন, ”প্রতিক্রিয়া তো খুবই ভাল। দু’জন বন্ধুর সঙ্গে রবিবার দক্ষিণ কলকাতার একটি মাল্টিপ্লেক্সে গিয়েছিলাম, সেখানে ছবি হাউসফুল। দর্শক টিকিট না পেয়ে কাউন্টার থেকে ফিরে যাচ্ছে। সবথেকে বড় বিষয় ফিডব্যাক ভাল পাচ্ছি।”

প্রথমবার বড়পর্দায় একসঙ্গে দেখা গেল জিত্ এবং শ্রদ্ধা দাসকে। এই জুটিকে নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতাও দারুন বলছেন অংশুমান। ”জিত্ স্যারের সঙ্গে প্রায় ছয় বছরের সম্পর্ক। উনি আমার গড ফাদার। যখন খুব খারাপ সময় চলছিল তখন জিত্ স্যারই একমাত্র যিনি ভরসা জুগিয়েছিলেন যে আমি লিখতে পারি।তারপরেও তিনিই একজন যাঁর কারণে পরিচালক তকমা পেলাম”, অনর্গল বলে চললেন ‘প্যান্থার’ পরিচালক।”আর শ্রদ্ধার কথা বলতে হলে, বলতে পারি শ্রদ্ধা ভীষণ মনোযোগী। ওর সঙ্গে কাজ করা সুবিধে”, অংশুমান।প্যান্থারের চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন অংশুমান ও পরমপ্রীত।

আরও পড়ুন, সিরিয়াল কিলারের গল্প নিয়ে রাতের টেলিপর্দায় লাবণী

জিতের ছবি মানেই লার্জার দ্যান লাইফ চরিত্ররা। জিত্ মানেই সিঙ্গেল স্ক্রিন হাউসফুল। প্রায় কথা কেটে পরিচালকের বক্তব্য, ”সিঙ্গেল স্ক্রিনেও খুবই ভাল যাচ্ছে। এটা একটা কর্মাশিয়াল ছবি, সেই জায়গায় দাঁড়িয়েও মাল্টিপ্লেক্সে ছবি বল্কবাস্টার। রুরাল এবং আরবান দুটো জায়গাতেই ছবিটা সাফল্য পাচ্ছে, কারণটা চিত্রনাট্য। মনে হচ্ছে আমরা ঠিক রাস্তায় চলছি।”

anshuman পরিচালক অংশুমান প্রত্যুষ।

সামনে বলিউডে মিশন মঙ্গল মুক্তি পেতে চলেছে। টাফ টক্করে পড়তে চলেছে ‘প্যান্থর’, অন্তত বক্স অফিসের অঙ্ক তাই বলে। তবে অংশুমানের কথায়, ”ছবি ভাল হলে মানুষ একসঙ্গে তিনটে ছবিও দেখে। সেটা অক্ষয় কুমার হোক বা জিত স্যারের সিনেমা। স্বাধীনতা দিবসে তো এখন জন আব্রাহমও ছবি আনে, তাই বলে কি অক্ষয় কুমারের ছবি দর্শক দেখে না।”

আরও পড়ুন, আলিয়া ভাটের বাবার ভূমিকায় যিশু সেনগুপ্ত

আরও একটা কথা যা ইন্ডাস্ট্রিতে কান পাতলে শোনা যায়, জিত্ নাকি ছবিতে নিজের মতামত চাপিয়ে দেন। কথাটা কতটা সত্যি? অংশুমান বললেন, ”এটা একেবারেই মিথ্যে কথা। যখন পরিচালক ছিলাম তখনও দেখেছি, আজ ওনাকে পরিচালনা করতে গিয়ে দেখছি, কথাটা ভুল। এক শতাংশ সত্যি হতে পারে। কারণ স্যার, প্রি-্প্রোডাকশন ও পোস্ট প্রোডাকশনে প্রযোজক হিসাবে থাকেন, সঠিক মতামত দেন। কিন্তু ফ্লোরে উনি অভিনেতা, বলা যায় ‘ডিরেকটর্স অ্যাক্টর’। তবে হ্যাঁ, নিজের কাছে আপনাকে পরিস্কার থাকতে হবে।পরিচালকের পয়েন্ট অফ ভিউ বুঝে কাজ করেন। সেখানে নিজের মতামত দেন ঠিকই কিন্তু পরিচালক নিজের কাজ সম্পর্কে নিশ্চিত থাকলে উনি পরিচালকের রাস্তাতেই চলেন। সুতরাং, ‘চাপিয়ে দেন’ কথাটা আদ্যন্ত ভুল।”

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Entertainment News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Jeets film panther director anshuman pratyush interview

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং