বড় খবর

গরীবরা পরিযায়ী শ্রমিক, ধনী বলে ‘পরিযায়ী নেতা’! ‘দল-বদল’ নীতিকে কটাক্ষ কমলেশ্বরের

খেঁটে খাওয়া মানুষগুলোর হয়ে মুখর বামপন্থী মনোভাবাপন্ন পরিচালক।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির পাখির চোখ এখন বাংলার দিকে। বাংলার ঘাস-ফুলের জমিতে পদ্ম ফোটাতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। তাই বঙ্গবিজেপির অন্দরে রণক্ষেত্র জয়ের ‘স্ট্র্যাটেজি’ তুঙ্গে। তবে এতসবের মাঝে দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে রাজধানীর হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় খোলা আকাশের নীচে অর্ধভুক্ত মানুষগুলোর লড়াইটাই ‘ব্রাত্য’ হয়ে উঠেছে! পরিবর্তে ‘ফোকাস’ একুশের লড়াইয়ে। আর ঠিক সেই বিষয়টিই নিয়ে প্রতিবাদে মুখর পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় (Kamaleswar Mukherjee)।

রাজ্য রাজনীতির এই দলবদলের ‘ট্রেন্ড’কে বিঁধলেন অতি সুচারু শব্দচয়নে। কোনওরকম কড়া ভাষার প্রয়োগ নয়। শুধুমাত্র বর্তমান রাজনৈতিক-সামাজিক প্রেক্ষাপটকে আয়নার মতো তুলে ধরলেন তাঁর ফেসবুক পোস্টে। লিখলেন, “গরীব, তাই ওরা Migrant Labour (পরিযায়ী শ্রমিক), ধনী, তাই Migrant Leader (পরিযায়ী নেতা)।” অতঃপর বামপন্থী মনোভাবাপন্ন পরিচালক যে চলতি এই পালাবদলের হাওয়াকেই কটাক্ষ করেছেন, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না।

রাজ্য-রাজনীতি বর্তমানে সরগরম। গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে রাজনীতি মিলে মিশে একাকার। কারও গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোর জল্পনা হাওয়ায় ভাসছে, কেউ বা আবার দলবদলের হাওয়ার মাঝেই রাজ্যের শাসক দলে যোগ দিচ্ছেন। সব মিলিয়ে একুশের বিধানসভা নির্বাচন এখন মধ্যমণি। দল-বদলের হাওয়ায় একের পর এক তৃণমূল নেতামন্ত্রী শিবির বদলাচ্ছেন। শনিবারই গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন রুদ্রনীল ঘোষ, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, বৈশালী ডালমিয়ারা। যাঁরা কিনা একসময়ে তৃণমূলের একনিষ্ঠ নেতা-মন্ত্রী ছিলেন। শোনা যাচ্ছে, যুব তৃণমূলের সহ-সভাপতি হিরণ চট্টোপাধ্যায়-সহ আরও কয়েকজন তারকাও নাকি গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন। আর রাজনৈতিক রং বদলের এই বিষয়টি যেন বর্তমানে একটু বেশি করেই ভাবিয়ে তুলেছে বাংলার মানুষদের। “চেনা মানুষ, অন্য দল… ভোট কাকে দেব? আদৌ কি পরিবর্তন আসবে? ‘আচ্ছে দিন’ কি দেখতে পাব?” প্রশ্ন উঁকি দিয়েছে ওই খেটে খাওয়া মানুষগুলোর মনে।

গরিব, তাই migrant labour
ধনী, তাই migrant leader

Posted by Kamaleswar Mukherjee on Saturday, January 30, 2021

Web Title: Kamaleswar mukherjee opens up on ongoing political scenario

Next Story
ইসলাম ধর্মের মানুষকে বিয়ে করলেও নাম-পদবী পাল্টাইনি, ফের ঝাঁজালো রূপাঞ্জনা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com