scorecardresearch

বড় খবর

সিনেমা বানাতে সর্বস্ব খুঁইয়েছেন, সম্পত্তি বন্দক রেখে মাথায় হাত কঙ্গনার

ছবির শুটিং শেষ করতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সেসব গল্প শোনালেন অভিনেত্রী!

সিনেমা বানাতে সর্বস্ব খুঁইয়েছেন, সম্পত্তি বন্দক রেখে মাথায় হাত কঙ্গনার
কঙ্গনার 'এমারজেন্সি'

অভিনয়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিচালক এর দায়িত্ব পালন করা নিতান্তই সাধারণ বিষয় নয়। তবে, এই কাজই দক্ষতার সঙ্গে সম্পূর্ন করেছেন কঙ্গনা রানাউত। ‘এমারজেন্সি’ ছবির শুটিং শেষ হয়েছে, সেই সুখবরের সঙ্গেও এক বিরাট তথ্য সামনে এনেছেন তিনি।

‘মনিকর্নিকা’ ছবির মাধ্যমেই তিনি পরিচালক হিসেবে ডেবিউ করেন। এবার এক ডাকসাইটে রাজনীতিবিদকে নিয়ে ছবি বানাচ্ছেন তিনি। কঙ্গনা অভিনয় করছেন ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে, তাঁর সঙ্গে এই ছবির ক্ষেত্রে ক্যাপ্টেন অফ দ্যা শিপও তিনি। বিরাট দায়িত্ব ছিল তাঁর কাঁধে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি শেয়ার করেই তিনি জানালেন, আজ একজন অভিনেতা হিসেবে এই ছবির কাজ শেষ করেছেন। লিখলেন, “আমার জীবনের এক গৌরবময় সময় এটা। অনেকেই এর শেষে মনে করবে আমি খুব মসৃণ এবং সুন্দর পথ দিয়ে যাত্রা করেছি কিন্তু আসল সত্যটা একেবারে ভিন্ন।”

তবে, এখানেই শেষ নয়! ছবি বানাতে গিয়ে অনেক কিছুই করেন পরিচালকরা। নিজেদের সোনার গয়না বন্দক রেখেও ছবি বানানোর গল্প ইন্ডাস্ট্রি জুড়ে অনেক রয়েছে। এবার কঙ্গনাও হাঁটলেন সেই পথেই। সোনার গয়না না হোক, কিন্তু সমস্ত সম্পত্তি বন্দক রেখে নিজের স্বপ্নের ছবি বানিয়েছেন কঙ্গনা! সেই কথাই জানিয়েছেন তিনি। লিখলেন, “আমার অধীনে থাকা প্রতিটা জিনিস, সম্পত্তি বন্দক রাখা থেকে প্রথম শিডিউলে ডেঙ্গু তারপর রক্তজনিত সমস্যা – কিন্তু সিনেমার প্রতি ভালবাসা সবকিছুই তুচ্ছ করে দিয়েছে। আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেকে নিয়ে খুব সক্রিয় কিন্তু এই অনুভূতিগুলো শেয়ার করতে গিয়ে আজ অদ্ভুত লাগছে”।

কঙ্গনাকে নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। তথাকথিত, নেপটিজম নিয়ে সবসময় সরব তিনি। বলিউডের সঙ্গে প্রকাশ্যে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। সহজে তাঁকে নিয়ে সিনেমা করতে দেখা যায় না অনেক প্রযোজনা সংস্থাকে। তাই তো অভিনেত্রী লিখলেন, আমি কখনোই চাইনি যারা আমায় নিয়ে উদ্বিগ্ন অথবা যারা আমায় সবসময় ভাঙতে দেখতে চান – তাদেরকে এসব ব্যক্ত করতে চাই নি। তাঁদের আনন্দ দেওয়ার কোনও ইচ্ছে ছিল না আমার। কিন্তু, আপনাদের সঙ্গে সমস্ত ঘটনা শেয়ার করতে পেরে আমার ভাল লাগছে। আপনি যা চান তাঁর জন্য কঠোর পরিশ্রম আর স্বপ্ন দেখলেই চলবে… তাহলে বলব এটা সত্যি নয়। পরিশ্রমের কোনও শেষ নেই। অসফল হওয়ার কোনও সীমা নেই। কিন্তু কোনওভাবে হেরে যাওয়া যাবে না। অভিনেত্রীর কথায়, নিজেকে ধরে রাখুন। জীবন যদি আপনাকে বাঁচায় তাহলে ভাগ্যবান আপনি, যদি না বাঁচায় তবে সেটিকেও উপভোগ করুন। উদযাপন করুন, আবার নতুন করে শুরু করুন।

সিনেমার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছেন যারা তাঁদের সকলকে ধন্যবাদ জানালেন কঙ্গনা। শুধু তাই নয়, তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন। এখন অনেকটাই সুস্থ আছেন, সকলের শুভেচ্ছা প্রার্থনা করলেন কঙ্গনা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Kangana ranaut wrote an appreciation letter and said she mortgaging all properties