scorecardresearch

বড় খবর

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সূচনায় চিরাচরিত অব্যবস্থা

ভিআইপি পাস দুরকমের – ব্যালকনি ও ফ্লোর। সেইমত লাইন দেওয়া শুরু হয়, কিন্তু হঠাৎই উপস্থিত পুলিশকর্তারা ঘোষণা করেন, পাস যেখানকারই হোক, সবাইকে ব্যালকনিতেই যেতে হবে।

24th Kolkata International Film Festival opening ceremony live updates
মঞ্চ প্রস্তুত। ছবি: দেবস্মিতা দাস

আসতবাজির আলো না হোক, দীপাবলির পর তারকাদের উপস্থিতিতে মঞ্চ আলো করে ফি বছর শুরু হয় ২৪ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। একথা সবারই জানা। আর সেকারণেই ভিআইপি পাস হোক বা ডেলিগেট কার্ড, হাতে পেয়েই শনিবার সোজা এসে পড়া নেতাজী ইন্ডোর প্রাঙ্গণে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টানে। মুখ্যমন্ত্রী তো বটেই, এছাড়াও অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, ওয়াহিদা রহমান, মহেশ ভাট, মাজিদ মাজিদিরা উপস্থিত। কড়া নিরাপত্তার বেষ্টনীতে ঘেরা স্টেডিয়াম চত্বর। ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে জনসমুদ্র। অনুষ্ঠান শুরুর আগে আসন দখল করতে হবে তো! আর সেখানেই চোখে পড়ল চরম অব্যবস্থা। আর তা নিয়ে আওয়াজ তুলে পুলিশ আধিকারিকরা রোষের মুখে পড়লেন সাধারণ মানুষ।

স্টেডিয়ামের নীচের তলায়, অর্থাৎ মঞ্চের সামনে জায়গা করা হয় বিশেষ অতিথিদের। ভিআইপি পাসের দুরকমের সিট, ব্যালকনি ও ফ্লোর। সেইমত লাইন দেওয়া শুরু হয়, কিন্তু হঠাৎই  উপস্থিত পুলিশ কর্তারা ঘোষণা করেন, পাস যেখানকারই হোক না কেন, সবাইকে ব্যালকনিতেই যেতে হবে। অথচ নীচে আসন খালি। হিসেবমত প্রায় ২,০০০ ভিআইপি সিটের পাস বিলি করা হয়েছিল। প্রতিবাদ করতেই ধেয়ে আসে কর্কশ কন্ঠে পুলিশি আদেশ। পরে জনতা খানিকটা জোর করেই ঢুকে পড়ে ফ্লোরে। আর সেখানেই বাধে বিপত্তি। গায়ের জোরে, রীতিমতো অসভ্যতা করে বার করে দেওয়া হয় সব বয়সের দর্শককে।

আরও পড়ুন: “হলিউডকে হারানোর ক্ষমতা রাখে বাংলা”, কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনে বললেন মমতা

নিরাপত্তার ঘেরাটোপে নেতাজী ইনডোর

এক পুলিশ আধিকারিক তো গ্রেফতারেরও হুমকি দিয়ে বসেন এক মহিলাকে। তাঁর অপরাধ, তিনি প্রশ্ন তোলেন, “কার্ড ফ্লোরের, তবুও ব্যালকনিতে কেন যাব? সিট তো খালি আছে। আপনারা গায়ের জোরে সব নিয়ম তৈরি করতে পারেন না।” আর এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ওই পুলিশ আধিকারিক। এমনকি গ্রেফতার করার ভয়ও দেখান। দর্শকও কম যান না, বলেই বসলেন, “ক্ষমতা আছে বলেই যা খুশি করছেন আপনারা।” উত্তপ্ত বার্তালাপ চলে দুপক্ষেই। তার মাঝে ভিড় সামলাতে হিমসিম খায় নিরাপত্তা বাহিনী।

এ তো গেল ভেতরে ঢোকার পালা। অন্যদিকে অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার পর দুবার বন্ধ হয়ে যায় পাশের জায়েন্ট স্ক্রিন। তখনও বাইরে আরও কিছু মানুষ ঢুকতে চাইছেন। পুলিশ পুরোপুরি তাঁদের প্রতিরোধ করতে পারেনি। শুরু হয় হাতাহাতি, অবশেষে পুলিশের বিরুদ্ধে পাস ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগও করে জনতা। ভেতরে যতই আনন্দে মাতুন চলচ্চিত্র প্রেমীরা, বাইরে হেনস্থা হতে হল, ভুগতে হল আমজনতা বা ‘ম্যাঙ্গো পিপল’-কেই।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Kiff 2018 police mismanagement tussle for seats