‘কালী’ পোস্টার বিতর্কে খুনের হুমকি! হিন্দুত্ববাদীদের রোষে লীনা মণিমেকালাই

ভয়ে ভয়ে মুখ খুললেন পরিচালক লীনা।

Leena Manimekalai, Kaali, Kaali poster controversy, লীনা মণিমেকালাই, মা কালীর মুখে সিগারেট, বিতর্কিত পোস্টার কালী, bengali news today
চলচ্চিত্র নির্মাতা মণিমেকালাই।

‘কালী’ তথ্যচিত্রের পোস্টার ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে। হিন্দু দেবী মা কালীর মুখে জ্বলন্ত সিগারেট এবং হাতে এলজিবিটি সম্প্রদায়ের প্রাইড পতাকা দেখে রে-রে করে উঠেছেন হিন্দুত্ববাদীরা। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে পরিচালক লীনা মণিমেকালাইয়ের বিরুদ্ধে একাধিক এফআইআর দায়ের হওয়ার পাশাপাশি তাঁকে গ্রেপ্তারের দাবিও উঠেছে। নেটদুনিয়াতেও কটাক্ষ-সমালোচনা এমনকী প্রাণনাশের হুমকির দ্বারস্থ হচ্ছেন লীনা। এবার সেই প্রেক্ষিতেই মুখ খুললেন পরিচালক।

মালয়ালাম মহিলা পরিচালক লীনার মন্তব্য, “এই মুহূর্তে কোথাও সুরক্ষিত মনে করছি না নিজেকে। মনে হচ্ছে গোটা দেশটা যেন গণতান্ত্রিক থেকে মুহূর্তের মধ্যে ঘৃণার যন্ত্রে পরিণত হয়েছে। আমাকে নিষিদ্ধ করতে চাইছে। কোথাও সুরক্ষিত মনে হচ্ছে না।”

‘কালী’ তথ্যচিত্রের পোস্টার প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই প্রায় ২ লক্ষ সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে প্রাণনাশের হুমকি খেয়েছেন লীনা মণিমেকালাই। শুধু তাই নয়, পরিচালকের পরিবার-সহ ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধবরাও হুমকির সম্মুখীন হয়েছেন। হিন্দু দেবীকে অসম্মানের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন লীনা সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে।

[আরও পড়ুন: শিল্পের নামে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত! ‘কালী’ পোস্টার বিতর্কে তীব্র প্রতিক্রিয়া নুসরতের]

লীনার মন্তব্য, তামিলনাড়ুতে এক হিন্দু বাড়িতেই বড় হয়েছি আমি। তামিলনাড়ুর যে রাজ্যের বাসিন্দা আমি সেখানে কালী পূজিতা হন। পাঠার রক্তে রান্না করা মাংস দেওয়া হয় দেবীকে ভোগে। সুরা পান করেন। বিড়ি খান এবং মনে আনন্দে উত্তাল হয়ে নাচেন। আর আমার ছবিতে কালীর সেই অবতারকেই আমি দেখানোর চেষ্টা করেছি।

উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লিতে দুটি আলাদা আলাদা এফআইআর দায়ের হয়েছে লীনার বিরুদ্ধে। তবে বুধবার ভোপাল ও রাতলামে দুটো আলাদা মামলা দায়ের হয় পরিচালকের বিরুদ্ধে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Leena manimekalai opens up on kaali row

Next Story
একঘেয়েমি হয়ে যাচ্ছে, মিঠাইয়ের গল্প বদলের সুর সোশ্যাল মিডিয়ায়