scorecardresearch

বড় খবর

শহরজুড়ে ছড়াল রক্তে লেখা মাও পোস্টার! ‘নরেনজি জিন্দা হ্যায়’

‘ইস্কাবন’-এর টেক্কা নরেনজি!

শহরজুড়ে ছড়াল রক্তে লেখা মাও পোস্টার! ‘নরেনজি জিন্দা হ্যায়’
'ইস্কাবন'-এর জন্য রক্তে লেখা পোস্টার কলকাতাজুড়ে

সারা কলকাতাজুড়ে মাওবাদী পোস্টার। তাও আবার যে-সে পোস্টার নয়! তাতে রীতিমতো রক্ত দিয়ে লেখা স্লোগান- ‘নরেনজি জিন্দা হ্যায়’, ‘মাওবাদীরা ১৭ জুন আসছে..’। একনজরে সেই পোস্টার দেখলে ভিরমি খাওয়ার জোগাড়। কপালে উঠবে চোখ। বুধবার মাঝরাতে যখন শহর তিলোত্তমা ঘুমে আচ্ছন্ন, তখন একদল যুবক-যুবতীর এহেন কাণ্ডকারখানা। কারা ওঁরা?

টিম ‘ইস্কাবন’ (Iskabon)। উত্তপ্ত জঙ্গলমহল ও সেখানকার মানুষদের কষ্টের প্রেক্ষাপটে তৈরি এই সিনেমা। যেখানে অভিনয় করেছেন সৌরভ দাস, অনামিকা চক্রবর্তী, খরাজ মুখোপাধ্যায়, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, পুস্পিতা মুখোপাধ্যায়, সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়, দুলাল লাহিড়ি-সহ আরও অনেকে। সেই টিম ‘ইস্কাবন’-ই গোটা কলকাতায় রক্তে লেখা মাও-পোস্টার সাঁটিয়েছে। এই অভিনব ভাবনা প্রচারের দায়িত্বে থাকা রুদ্রাক্ষ টিমের। উল্লেখ্য, এযাবৎকাল বাংলা সিনেমার ইতিহাসে এমন প্রচারভাবনা দেখা যায়নি।

তবে মাও পোস্টার দেখে শোরগোলের অন্ত নেই। ঠিক তারপরই এক ভিডিও বার্তায় পুরো বিষয়টা খোলসা করা হয়। ১৭ জুন শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে ‘ইস্কাবন’। পরিচালনায় মন্দীপ সাহা এবং কাহিনিকার রাধামাধব মণ্ডল। জঙ্গলমহলে যেসমস্ত ঘটনা ঘটেছে, সেই বাস্তবের সঙ্গে চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে কল্পনার মিশেলে এক গল্প সাজানো হয়েছে। মাও পোস্টার ছেয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে পরিচালকের মন্তব্য, কাউকে আঘাত করার জন্য নয়। আসলে সিনেমার জন্যই এমন অভিনব প্রচার।

[আরও পড়ুন: ‘হাবজি গাবজি’ দেখে আগুন! রাজকে হুমকি, ‘কী বাজে ছবি বানিয়েছো..’]

কোথায় কোথায় সেই মাও পোস্টার দেখা গেল? নন্দন-সহ একাডেমি চত্বর, টালিগঞ্জে মহানায়ক উত্তম কুমার মেট্রো স্টেশনে, পাটুলিতে নচিকেতার চায়ের দোকানে, যাদবপুর ইউনিভার্সিটিতে, নিউটাউনে এক হোটেলের সামনে, আনোয়ার শাহ থেকে বিধাননগর অরণ্যভবনের উল্টোদিকে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Maoist poster written by blood for film iskabons promotion