বড় খবর

ভিক্টোরিয়া চত্বরে আবর্জনা, বিজেপিকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ বলে কটাক্ষ সাংসদ মিমির

নেতাজির জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠানের পরদিন থেকেই ভিক্টোরিয়া চত্বরে আবর্জনা। এপ্রসঙ্গে কেন্দ্রের শাসক দলকে তোপ দেগে কী বললেন সাংসদ-অভিনেত্রী?

“শাসক বলেই কি নিয়ম ভাঙা যায়?”, বিজেপির (BJP) উদ্দেশে তোপ দাগলেন তৃণমূলের তারকা-সাংসদ মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)। এমনিতেই দিন দুয়েক ধরে অনুষ্ঠানে জয় শ্রী রাম স্লোগান নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। তার মাঝেই কেন্দ্রের শাসক দলের বিরুদ্ধে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল চত্বরকে নোংরা করার অভিযোগ তুললেন তারকা-সাংসদ।

ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে কেন্দ্রীয় শাসক দল আয়োজিত নেতাজির জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ‘জয় শ্রী রাম’ বিতর্ক এখনও অব্যাহত। তৃণমূল-বিজেপি তরজায় সোশ্যাল মিডিয়ায় আপাতত সরগরম। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) অপমানের কড়া জবাব দিয়েছেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। এবার আরেক সাংসদ-অভিনেত্রীও বিজেপিকে বিঁধলেন। “কেন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল চত্বরকে নোংরা করা হল, শাসক বলেই কি নিয়ম ভাঙবে?” প্রশ্ন তুলেছেন মিমি চক্রবর্তী।

শহরের প্রাতঃভ্রমণকারীদের অনেকেরই নিয়মিত গন্তব্য ভিক্টোরিয়া চত্বর। তার মধ্যে শহরের প্রবীণ নাগরিকরাও রয়েছেন। গত ২৩ জানুয়ারি নেতাজির ১২৫তম জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানের পরদিন এই এলাকাতেই যত্রতত্র আবর্জনা ছড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন তাঁরা। এমনকী বেশ কিছু সংবাদপত্রেও সেই আবর্জিত এলাকার ছবি উঠে আসে। দেখা যায়, খাবারের প্যাকেট, ফাঁকা ক্যান, ময়লা ফেলার ব্যাগ ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে যত্রতত্র। এবার সেই প্রেক্ষিতেই গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন মিমি চক্রবর্তী।

কোনওরকম রেয়াত না করেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাংসদ অভিনেত্রী। “ন্যাশনাল হেরিটেজ বিল্ডিং চত্বরে যদি কোনও অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকেন, তাহলে পরের দিন সেটাকে পরিষ্কার করারও দায়িত্ব নেওয়া উচিত। এটা একেবারেই দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো কাজ। আমি তো জানতাম যে, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের ভিতর খাবারের প্যাকেট নিয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ, কিন্তু যেহেতেু আপনারা শাসকদল তাই নিয়ম ভাঙবেন নাকি?” কড়া প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন মিমি।

তাঁর কথায়, “ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল নিঃসন্দেহে দেশের ঐতিহ্যবাহী সম্পদগুলির মধ্যে একটা। এখানে যাঁরা প্রাতঃভ্রমণ করতে আসেন, তাঁরাও ভিক্টোরিয়ার পরিচ্ছন্নতা নিয়ে সতর্ক থাকেন। সেখানে এত বড়ো মাপের একটা অনুষ্ঠানের আয়োজক হয়ে তাঁরা যথেচ্ছ জলের প্যাকেট, খাবারের প্যাকেট ছড়িয়ে ছিটিয়ে রেখে গেলেন! সবসময়ই বিষয়টা রাজনীতিকেন্দ্রিক নয়। কিছু নীতিবোধও থাকে। তা যদি সেদিন ভিক্টোরিয়ায় আসা অতিথিদের থাকত, তবে এই দূষণ আটকানো যেত।”

Web Title: Mimi chakraborty slams bjp tmc mp calls the opposition irresponsible

Next Story
বিয়ে করলেন বরুণ-নতাশা, অতিথি আপ্যায়ণে বিশেষ ভূমিকা শাহরুখ-গৌরীর
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com