scorecardresearch

‘যতদিন ডাল-ভাত জুটবে, ততদিন ওঁর কাছে আমরা কৃতজ্ঞ’, রাজু শ্রীবাস্তবের স্মৃতিচারণায় মীর

কমেডিয়ান রাজু শ্রীবাস্তবের প্রয়াণে স্মৃতিমেদুর মীর আফসার আলি।

‘যতদিন ডাল-ভাত জুটবে, ততদিন ওঁর কাছে আমরা কৃতজ্ঞ’, রাজু শ্রীবাস্তবের স্মৃতিচারণায় মীর
কমেডিয়ান রাজু শ্রীবাস্তবের প্রয়াণে স্মৃতিমেদুর মীর আফসার আলি

বুধবার সকাল। হাসির সভায় কান্নার রোল! কারণ, চিরকালের জন্য বন্ধুদের কাছ থেকে বিদায় নিয়েছেন রাজু ভাইয়া। দিল্লি থেকে দুঃসংবাদ আসা মাত্রই কলকাতায় বসে শোকাতুর মীর আফসার আলি। বললেন, “ঈশ্বর দুঃখে ছিলেন। হাসতে চেয়েছিলেন। তাই রাজু ভাইয়াকে ওপরে ডেকে নিলেন প্রাইভেট শোয়ের জন্য।”

মীরের স্মৃতিচারণায় ওঠে এল অতীতে রাজু সাক্ষাতের কথা। ২০০৪ সালে মুম্বইতে ‘গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ’ শোয়ে প্রথম আলাপ। একসঙ্গে ‘লাফটার কিং’ হওয়ার দৌঁড়ে নাম লিখিয়েছিলেন। সেখান থেকে বছর ছয়েক বাদে সেই রাজু শ্রীবাস্তব-ই কলকাতায় এলেন মীরের শো ‘মীরাক্কেল’-এর বিশেষ অতিথি হয়ে। সেটা ২০১০ সাল। গ্র্যান্ড ফিনালেতে বিচারকের আসনে রাজু। মীরকে দেখেই জড়িয়ে ধরেছিলেন।

সেই স্মৃতি ঘেঁটে মীর আফসার আলি জানালেন, খুব খুশি হয়ে সেদিন রাজু ভাইয়া বলেছিলেন, “২০০৪ সালে যে মীরকে আমি দেখেছিলাম, সে দু বছর বাদে মীরাক্কেল শুরু করল। আর আজ তার চার বছর পর আমি সেই শোয়ের অতিথি বিচারক হয়ে এসেছি। ঠিক এই মানুষটাকেই দেখতে চেয়েছিলাম ভবিষ্যতে, যে ২০০৪ সালে আমার সামনে চুপচাপ বসে থাকত।”

[আরও পড়ুন: থামল ৪১ দিনের লড়াই, প্রয়াত কমেডিয়ান রাজু শ্রীবাস্তব]

‘গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ’-এর দিনগুলোর কথাও তুলে ধরলেন মীর আফসার আলি। বললেন, “সেইসময়ে শোয়ের শুটিং-এর পর হোটেলে ঢুকে যে যার নিজের ঘরে বসে পরের এপিসোডের প্রস্তুতি নিচ্ছে। মানে সত্যিই গম্ভীর আলোচনা হচ্ছে ‘লোক হাসানো’ নিয়ে। সবাই যে যার রুমে ব্যস্ত আর অন্যদিকে একজনের মাথায় তখন অন্য প্ল্যান। অনেক রাতে হঠাৎ ঘরে ঘরে ফোন এল- রাজু ভাই সবাইকে নিজের রুমে ডাকছে। তারপর যেটা হত সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। কমেডিয়ানদের মহাসমারোহ। একটা হোটেল রুমে। সুনীল পাল, নবীন প্রভাকর, আহসান কুরেশি, এখনকার পাঞ্জাব মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান এবং রাজু শ্রীবাস্তব, আমি সবাই একটা ছাদের নিচে বসে আড্ডা মারতাম।”

স্মৃতিমেদুর মীর জানালেন, “রাজু শ্রীবাস্তবের মধ্যে কোনও প্রতিদ্বন্দীতা ছিল না। খুব সহরজেই মিশে যেত সকলের সঙ্গে। ১৮ বছর ধরে নীরবে কষ্ট করে গিয়েছে উনি। কিন্তু প্রকৃত অর্থে stand up comedy বলতে আমরা যা বুঝি, তার সর্বপ্রথম না হলেও pioneer artist কিন্তু ছিলেন রাজু ভাই। আজকে যাঁরা শুধু কমেডি করে পেট চালাচ্ছেন, তাঁদের জন্য প্রথম মাইক ধরেছিলেন তিনি। বলিউডের বিখ্যাত গায়ক-গায়িকাদের জলসায় একজন কমেডিয়ান নিছকই কোনো ‘filler artist’ নন… সেই কমেডিয়ানও যে একজন সম্মানিত শিল্পী, এই দাবী প্রথম শোনা যায় তাঁর মুখে। পোস্টারে কমেডিয়ানের ছবির আয়তন কত হওয়া উচিত সেটার জন্যও লড়তেন রাজু শ্রীবাস্তব। কপিল শর্মাদেরও হাতেখড়ি রাজু শ্রীবাস্তবের কাছেই।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Mir afsar ali remembering raju srivastava