বড় খবর

দাদাসাহেব ফালকে পাচ্ছেন ‘থালাইভা’ রজনীকান্ত, দাক্ষিণাত্য ভোটে না লড়ার পুরস্কার?

কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তরফে নেটমাধ্যমে ঘোষণার পরই নেটজনতার একাংশের কটাক্ষের মুখে দক্ষিণী সুপারস্টার।

Rajinikanth

দাদাসাহেব ফালকে (Dada Saheb Phalke Award) পাচ্ছেন ‘থালাইভা’ রজনীকান্ত (Rajinikanth)। বুধবারই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। অভিনেতা, প্রযোজক এবং চিত্রনাট্যকার হিসেবে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে তাঁর অবদানের জন্য দাক্ষিণাত্যের সুপারস্টারকে এই সম্মান দেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এদিন মোদী-মন্ত্রকের তরফে দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার ঘোষণা করার পরই, নেটজনতার একাংশ ‘থালাইভা’কে কটাক্ষ করেন। উত্থাপন করেন, ‘পাশা পাল্টে’ রজনীর রাজনীতিতে নাম না লেখানোর প্রসঙ্গ। সেই প্রেক্ষিতেই প্রশ্ন ওঠে যে, দাদাসাহব ফালকে কি দাক্ষিণাত্য ভোটে রজনীকান্তের না লড়ার পুরস্কার?

দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার গত বছরই ঘোষণা হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অতিমারীর কারণে তা হয়ে ওঠেনি। অন্যদিকে, রজনীকান্তেরও গতবছর শেষেরদিকে সক্রিয় রাজনীতিতে অবতরণ করার কথা ছিল। কিন্তু শেষবেলায় হঠাৎ-ই মতবদল করেন তিনি! সেই সমীকরণও খুঁজছেন নিন্দুকরা।

প্রসঙ্গত গতবছর নভেম্বর মাসেই শোনা গিয়েছিল যে, এবার সক্রিয়ভাবে রাজনীতির ময়দানে নামতে চলেছেন রজনীকান্ত। গত ৩১ ডিসেম্বর নিজস্ব রাজনৈতিক দল সম্পর্কে বিস্তারিত ঘোষণা করার কথা জানিয়েছিলেন থালাইভি। কিন্তু পাশা পাল্টে গেল তার দিন কয়েক আগেই। অসুস্থ রজনীকান্ত হাসপাতাল থেকে বেরিয়েই ঘোষণা করলেন যে দ্রাবিড়ভূমের আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তিনি লড়বেন না। এবং শারীরিক অসুস্থতার জন্য এখনই কোনও রাজনৈতিক দল ঘোষণা করতে চান না তিনি! যা নিয় দাক্ষিণাত্যের রাজনৈতিক মহলের অন্দরেও কম জল্পনা-কল্পনা হয়নি। রাজনীতিকদের একাংশ সেই সময়ই দাবি করেছিলেন যে, সমীকরণ বদলেছে। নভেম্বরের ২১ তারিখে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই পালানিস্বামী এবং উপমুখ্যমন্ত্রী পনিরসেলভাম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে একই মঞ্চে হাজির হয়ে একুশের ভোটে মহাজোটের কথা ঘোষণা করে। এরপর রজনীর রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই পালে হাওয়া লাগে। AIADMK-এ তখনই রজনীকান্তের সঙ্গে জোটের ছক কষে ফেলে। কিন্তু রাজনৈতিক দল ঘোষণা করার দিন কয়েক আগেই প্রিয় আন্না জানিয়ে দেন যে, তিনি রাজনীতির ময়দানে অবতরণ করবেন না।

স্বাভাবিকবশতই, রজনীকান্ত তামিলনাড়ুর একুশের নির্বাচনের আগে নিজস্ব রাজনৈতিক দল ঘোষণা করলে, তাঁর পাল্লা যে ভারী হবেই এবং বর্তমান শাসকদলের পক্ষে তা যে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিং হত, তা বলাই বাহুল্য। কারণ, দ্রাবিড়ভূমের আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রজনীকান্তকে নিয়ে অনেকেই অনেক স্বপ্ন দেখে ফেলেছিলেন। এমনকী থালাইভাকে মুখ্যমন্ত্রীর পদে দেখারও ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন অনেকে। অন্য়দিকে, কমল হাসানের (Kamal Hasaan) মাক্কাল নিধি মাইয়ামের সঙ্গেও রজনীকান্তের জোট সমীকরণ হতে পারে বলে রাজনৈতিকমহলের অন্দরে জোর ফিসফাস শুরু হয়েছিল। কাজেই ভোটের মুখে দাক্ষিণাত্যে দুই সুপারস্টারের দাপাদাপি বর্তমান শাসকদল AIADMK-কে কুপোকাত করতেই পারত! কিন্তু রজনী রাজনীতির ময়দানে পা না রাখায় যাবতীয় জল্পনা বিফলে যায়। অতঃপর বিজেপির (BJP) সঙ্গে জোট বাঁধা বর্তমান পালানিস্বামী-সরকারেরও আর চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হওয়ার প্রশ্ন ওঠে না। এবার সেই প্রেক্ষিতেই নেটজনতার একাংশ প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন, তাহলে কি তামিলনাড়ু বিধানসভা নির্বাচনের (Tamil Nadu Assembly Election 2021) আগে রাজনীতিতে অবতরণ না করারই পুরস্কার পেলেন রজনীকান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে?

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Modi government announced dada saheb phalke award to rajinikanth

Next Story
ক্যানসারে আক্রান্ত বিজেপি সাংসদ তথা অভিনেত্রী কিরণ খের, মন খারাপ বলিউডেরKirron Kher
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com
X