scorecardresearch

বড় খবর

‘ইন্ডাস্ট্রির কাছের বন্ধুরাই আমাকে ধোঁকা দিল’, নুসরতের নিশানায় কে?

কাকে নিয়ে এমন আক্ষেপ প্রকাশ করেন সাংসদ নায়িকা?

‘ইন্ডাস্ট্রির কাছের বন্ধুরাই আমাকে ধোঁকা দিল’, নুসরতের নিশানায় কে?
বিস্ফোরক নুসরত জাহান

নুসরত জাহান বরাবরই স্পষ্টবাদী। বিস্ফোরক মন্তব্যের জন্য একাধিকবার বিতর্কেও জড়িয়েছেন। তবে বর্তমানে মাস খানেক ধরেই নুসরত চুপচাপ! কেন? “প্রয়োজন ছাড়া এখন আর কথা বলি না, তবে আমার চুপ থাকাটাকে ভুল ব্যখ্যা করা উচিত নয় “, সাফ মন্তব্য সাংসদ-নায়িকার।

নিখিল জৈনের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ থেকে শুরু করে সন্তানের জন্ম নিয়েও বেজায় বিতর্কের মুখে পড়তে হয় নুসরতকে (Nusrat Jahan)। ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুরাও তখন নায়িকার পাশে দাঁড়াননি। কিংবা তাঁর সমর্থনে মুখ খোলেননি। সেই প্রেক্ষিতেই এবার সাংসদ নায়িকার মন্তব্য, “প্রকৃত বন্ধুর অভাব আমার জীবনে। যখনই আমি কোনও সমস্যায় পড়েছি, তখনই দেখেছি আমার তথাকথিত বন্ধুরাই সবথেকে আগে আমাকে ছেড়ে পালিয়েছে। শুধু তাই নয়, আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিচারসভা বসিয়েছে। আমার জীবনে সত্যিকারের বন্ধু বলতে বর্তমানে যশ এবং আমাদের পরিবার।”

নুসরত জাহান

[আরও পড়ুন: ‘২২ বছরের বিয়েও ভুলে যেতে পারে..’, হিরণের স্ত্রীয়ের ‘বিস্ফোরক’ পোস্ট]

এবার প্রশ্ন, ইন্ডাস্ট্রির তথাকথিত বন্ধু বলতে নুসরত জাহান কাকে বা কাদের নিশানা করলেন? মিমি চক্রবর্তী, দেব থেকে শুরু করে তনুশ্রী চক্রবর্তী, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, পার্ণো মিত্র সকলের সঙ্গেই নুসরতের একসময়ে বেজায় ঘনিষ্ঠতা ছিল। টলিউডের ‘গার্ল গ্যাং’ একসঙ্গে পার্টিও করতেন। তবে হালফিলে একফ্রেমে আর তাঁদের দেখা যায় না।

সাংসদ-নায়িকা এও যোগ করেন যে, “আমি কোনও দিন ওমেইন কার্ড কিংবা ভিকটিম কার্ড দেখাইনি।” সন্তান জন্ম দেওয়ার পরে প্রথমবার নুসরতকে যখন তাঁর বাচ্চার বাবার নাম জিজ্ঞেস করা হয়, তখনও অভিনেত্রী প্রকাশ্যেই বলেন, “এরকম উদ্ভট প্রশ্ন করা মানে একজন নারীর চরিত্রে কালো দাগ দেওয়ার সমান। যিনি সন্তানের প্রকৃত বাবা, তিনি নিজে জানেন এবং আমরা খুব ভাল প্যারেন্টহুড কাটাচ্ছি। আমি আর যশ একসঙ্গে ভাল সময় কাটাচ্ছি।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Nusrat jahan says her so called friends have always been the first to run away