scorecardresearch

বড় খবর

বাঙালি পরিচালকের ‘রাইটিং উইথ ফায়ার’ নিয়ে উচ্ছ্বসিত প্রিয়াঙ্কা, বলছেন, ‘অস্কারের উপযুক্ত মনোনয়ন’

অস্কারের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন অনেকদিন, এবার ভারতীয় ছবির চর্চায় আনন্দ ধরছে না তাঁর

ছবির সাফল্যে আপ্লুত প্রিয়াঙ্কা

দিন কয়েক আগেই অস্কার মনোনয়ন পায়, সুস্মিত ঘোষ ( Sushmit Ghosh ) এবং রিন্টু থমাস ( Rintu Thomas ) এর তথ্যচিত্র ‘রাইটিং উইথ ফায়ার’। শ্রেষ্ঠ ডকুমেন্টরি ক্যাটাগরিতেই মনোনয়ন পেল এই ছবি, আর তাতেই নিদারুণ খুশি প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ( Priyanka Chopra ), অ্যাকাডেমি পুরস্কারে ভারতীয় ছবির চর্চা দেখেই আবেগে আপ্লুত দেশি গার্ল। একরাশ শুভেচ্ছা বার্তা দিলেন গোটা দলকে। 

ইনস্টাগ্রামে উচ্ছাস প্রকাশ করে অভিনেত্রী লেখেন, দারুণ লেগেছিল ছবিটি। অনেক দূর এগিয়ে যাও দল, অসংখ্য শুভেচ্ছা সকলকে, সবথেকে উপযুক্ত মনোনয়ন – সঙ্গেই জুড়েছেন সদস্যদের নাম, জানালেন সাবাশি! তথ্যচিত্র মানেই এমন কিছু যা মানুষকে একেবারেই আলোড়িত করে তোলে, সেরকম ভাবনা চিন্তা নিয়েই সিনে ময়দানে নেমেছিলেন সুস্মিত এবং তার স্ত্রী রিন্টু। ‘খবর লহেরিয়া’ কে সামনে রেখে সাংবাদিকতার রাস্তায় দাপিয়ে বেড়ানোর গল্প নিয়েই সুস্মিত বানিয়েছিলেন এই ছবি। দেশে বিদেশে বহু প্রশংসা কুড়িয়েছে এই তথ্যচিত্র। 

priyanka chopra writing with fire

উত্তরপ্রদেশের প্রত্যন্ত এক গ্রাম থেকে আঞ্চলিক মিডিয়া হাউস পরিচালনা করেন দলিত সাংবাদিক মীরা দেবী সঙ্গে তার দুই সাগরেদ শ্যামকলি এবং সুনীতা। চকচকে উন্নতমানের মিডিয়া হাউসের পাশে পাল্লা দিয়ে কাজ করার কঠোর পরিশ্রম, প্রতিদিন সংগ্রাম এবং দলিত তকমা নিয়েই মোবাইল সহযোগে খবর জোগাড় করতেন তাঁরা। ২০১৬ সালে মীরাদেবীর সাংবাদিকতার যাত্রাপথ নিয়ে ছবি বানানোর কাজ শুরু করেন সুস্মিত এবং রিন্টু।

প্রসঙ্গত, রাইটিং উইথ ফায়ারের ঝুলিতে রয়েছে কম করে ২০টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার। এর আগে জয় ভীম অস্কারের ময়দানে পা রেখেছিল বটে তবে পুরস্কার ভারতের ঝুলিতে আসেনি। এখন রাইটিং উইথ ফায়ার অ্যাকাডেমি পুরস্কার ছিনিয়ে আনতে পারে কিনা সেটাই দেখবার। 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Priyanka chopra shout out over oscar nomination writing with fire