scorecardresearch

বড় খবর

‘ধনুশের মতো ছেলে হয় না’, জামাইয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন রজনীকান্ত

মঙ্গলবারই রজনীকান্তের মেয়ে ঐশ্বর্যার সঙ্গে ১৮ বছরের দাম্পত্যজীবনে ইতি টেনেছেন ধনুশ

ধনুশ – রজনীকান্ত

দক্ষিণী সিনেমার অন্দরমহলে বিবাহ বিচ্ছেদের একের পর এক সংবাদ। নাগা চৈতন্য এবং সামান্থা প্রভুর পর, গত দুদিন ধরেই শিরোনামে ধনুশ ( Dhanush ) এবং ঐশ্বর্য রজনীকান্ত ( Aishwarya Rajinikanth )। তাদের আকস্মিক এই সিদ্ধান্ত যেন বাকরুদ্ধ করে দিয়েছে অনুরাগীদের। সবই ঠিক ছিল, বেশ কিছুদিন আতরঙ্গী রে সিনেমার প্রমোশনেও দিব্য ঠিকই ছিলেন অভিনেতা। 

সুপারস্টার রজনীকান্ত ( Rajinikanth ) এর কন্যা ঐশ্বর্য এবং ধনুশ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন অনেকদিন, তাদের সম্পর্ক নিয়ে কোনওরকম খারাপ কিছুই শোনা যায়নি কোনওদিন। এমনকি শ্বশুরমশাই হিসেবে রজনীকান্ত নিজেও যথেষ্ট প্রশংসা করতেন ধনুশের। শেষবার, জাতীয় পুরস্কার গ্রহণের সময়ও দুজনের মধ্যেই বেশ সক্ষতা দেখা যায়। রজনীকান্ত এর আগেও জানিয়েছিলেন, ধনুশের মত ছেলে হয় না। সে বেশ সরল, সাদামাটা এমনকি কাজের প্রতি মনোযোগী! তাকে নিয়েই থালাইভা যথেষ্ট গর্বিত বোধ করেন।

তিনি জানিয়েছিলেন, একজন দক্ষ অভিনেতা তো বটেই তার সঙ্গেও এখন নিদারুণ মনের মানুষ ধনুশ। এক্কেবারে ‘গোল্ডেন বয়’। এমন ছেলে, স্বামী এবং জামাই খুব কম দেখা যায়। সমাজ সম্পর্কিত প্রতিটি ক্ষেত্রেই তাকে সম্পূর্ণ নম্বর দেওয়া যায় বলেই জানিয়েছিলেন রজনী সাহেব। তবে এতবছর পর আসলেই কী কারণে দুজনে আলাদা রাস্তা বেছে নিয়েছেন সেই প্রসঙ্গেও যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায় নি কিছুই। 

১৮ বছরের বিবাহিত জীবনে ইতি টেনেছেন দুজনে। যথারীতি ধনুশ অনুরাগীরা ছাড়াও রজনীকান্তের অনুরাগীরা যথেষ্ট মর্মাহত। এমন একটি সিদ্ধান্তের পেছনে কারণ কী থাকতে পারে সেই নিয়েই তারা উদগ্রীব। নিতান্তই কম নয়, এতদিনের সম্পর্কে ভাঙার পেছনে কী এবং কেন এটি জানতে পারলেও যেন শান্তি হত সকলের।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rajinikanth praised dhanush for being a good husband and son in law