বড় খবর

শঙ্কুদেবের সঙ্গে দেখা, কৈলাসের সঙ্গে সাক্ষাতে রাজি, বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন রুদ্রনীল ঘোষ?

সক্রিয় রাজনীতিতে নামা নিয়ে ঠিক কী বললেন অভিনেতা?

rudranil

চরম অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে রাজ্যের শাসকদল। একের পর এক তৃণমূল নেতামন্ত্রী শিবির বদলাচ্ছে। এর মাঝেই শোনা গেল অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষের (Rudranil Ghosh) সক্রিয় রাজনীতিতে নামার কথা। এযাবৎকাল তাঁর নামের পাশে শাসকদল ঘনিষ্ঠ অভিনেতার তকমা থাকলেও বছর খানেক ধরে খুব একটা সক্রিয়ভাবে রাজনীতির ময়দানে দেখা যায়নি তাঁকে। তবে গতকাল অর্থাৎ বুধবার তাঁর জন্মদিনে সক্রিয় রাজনীতিতে নামার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন অভিনেতা। শুধু তাই নয়, সন্ধেবেলা বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পান্ডার সঙ্গে দেখাও করেন রুদ্রনীল। শুধু তাই নয়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়র (Kailash Vijayvargiya) সঙ্গে সাক্ষাতের প্রস্তাবে সম্মতিও জানান। আর সেখানেই জল্পনার সূত্রপাত। তাহলে কি এবার রুদ্রনীল ঘোষও বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন?

সেই ধোঁয়াশা অবশ্য জিইয়ে রেখেছেন অভিনেতা। তবে তাঁর দলীয় রং বদলানোর জল্পনা কিন্তু দেড় বছর ধরেই চলছে। কারণ, সাম্প্রতিক অতীতে রাজ্যের শাসকদলের বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে প্রতিবাদের সুর তোলা শুরু করেছিলেন। জন্মদিনের সকালেই বলেছিলেন ফেব্রুয়ারি থেকে সক্রিয় রাজনীতিতে নামার কথা। আর সন্ধেবেলাই তাঁর বাড়িতে গোলাপের তোড়া নিয়ে হাজির বিজেপির (BJP) যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক শঙ্কুদেব পণ্ডা। সূত্রের খবর, রুদ্রনীলকে বিজেপিতে যোগদানের প্রস্তাব দিয়ে এসেছেন শঙ্কু। দলের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় এই মুহূর্তে কলকাতায় নেই। তিনি ফিরলে তাঁর সঙ্গে দেখা করার প্রস্তাবও দেওয়া হয় রুদ্রকে। তাতেও নাকি সায় দিয়েছেন রুদ্রনীল ঘোষ।

এদিন সকালেই ফুল পাঠিয়ে রুদ্রনীলকে শুভেচ্ছা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এরপরই ইঙ্গিতপূর্ণভাবে এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রুদ্রনীল জানিয়েছিলেন যে, রাজনীতিতে ফের সক্রিয় হতে চান তিনি। আকার ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দেন যে, রাজ্য রাজনীতির উত্থান-পতনের কোনও ট্রেন্ডই তাঁর নজর এড়ায়নি। তবে, আরও কিছু দিন অপেক্ষা করতে চান তিনি। দেখতে চান জল কোন দিকে গড়ায়। শাসকদলের একাংশের কার্যকলাপে যে তিনি বিশেষ খুশি নন, সে ইঙ্গিত অবশ্য অনেক আগেই মিলেছে। এদিন রাতে অভিনেতার টালিগঞ্জের বাড়িতে শঙ্কুদেব পান্ডার সঙ্গে প্রায় ঘণ্টাখানেক কথা হয় তাঁর। এর আগেও নাকি ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের আগে গেরুয়া শিবিরের তরফে রুদ্রনীলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি এখনও স্থির সিদ্ধান্ত নেননি, বলেই জানিয়েছেন। তবে এই মুহূর্তে রাজনৈতিক অবস্থান স্পষ্ট না করলেও, জল্পনা বাড়িতে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় রাজি হয়েছেন অভিনেতা।

এপ্রসঙ্গে রুদ্রনীলের মত, দীর্ঘদিন যেহেতু রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তিনি, তাই যে কোনও দলের অভিজ্ঞ রাজনীতিকের সঙ্গে দেখা করতে তাঁর কোনও বাধা নেই।

Web Title: Rudranil ghosh met bjp leader shanku dev panda will he join bjp

Next Story
দীর্ঘ বিরতির পর, সিঙ্গাপুর থেকে ফিরেই হিন্দি ছবি ‘সল্ট’-এর শুটিং শুরু করলেন ঋতুপর্ণাRituparna-Sengupta
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com