scorecardresearch

বড় খবর

‘তুনিশাকে হিজাব পরতে কেউ জোর করেনি..’, অভিনেত্রীর মায়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক শিজানের পরিবার

তুনিশার মায়্বর বিরুদ্ধে সরব শিজানের পরিবার…

‘তুনিশাকে হিজাব পরতে কেউ জোর করেনি..’, অভিনেত্রীর মায়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক শিজানের পরিবার
তুনিশার মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলল শিজানের পরিবার…

তুনিশা শর্মার মৃত্যুতে অভিযুক্ত তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক শিজান খান। তাকে নেওয়া হয়েছে পুলিশি হেফাজতে। তুনিশার মা অভিযোগ করেছিলেন, মানসিক অত্যাচার করতেন শিজান। প্রকাশ্যে চড়ও মেরেছিলেন তুনিশাকে। এবার পাল্টা জবাব দিয়েছেন শিজানের পরিবার।

শিজানের পরিবারের তরফে এদিন আয়োজিত প্রেস কনফারেন্সে তাঁরা জানিয়েছেন নানা তথ্য। অভিযোগ তোলা হয়েছে তুনিশার পরিবারের তরফে। আঙুল উঠেছে অভিনেত্রীর মা এবং কাকার বিরুদ্ধে। ডিসেম্বরের শেষে তুনিশার মৃত্যুর পরই অভিনেত্রীর মা শিজানের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তবে, এবার শিজানের উকিল বলেন, “তুনিশা তাঁর পরিবারের থেকেই সবথেকে বেশি অত্যাচারিত হয়েছে। ওর মা এবং চণ্ডীগড়ের এক কাকা সঞ্জীব কৌশল ভীষণ বাজে ভাবে ব্যবহার করেছেন। শুধু তাই নয়, নিজের টাকার ওপর তুনিশার কোনও অধিকার ছিল না। ও মায়ের কাছে হাত পেতে টাকা চাইত”।

অভিযোগ আরও জোরাল হয়েছে তাঁর কাকা সঞ্জীব কৌশলের বিরুদ্ধে। শিজানের আইনজীবী জানিয়েছেন, এই ব্যক্তির নাম শুনলেই তুনিশা প্যানিক করত। শুধু তাই নয়, এই লোকটির জন্যই তুনিশার মা তাঁর ফোন ভেঙে দেয়। সবসময় ওকে নিজেদের কন্ট্রোলে রাখার চেষ্টা করত। তাহলে কি শিজান এবং তাঁর পরিবারের তরফে আনা অভিযোগ সব মিথ্যে? এমনকি হিজাব পরার বিষয়টিও সম্পূর্ণ মিথ্যে?

আরও পড়ুন [ ‘মেয়েরা এদেশে সুরক্ষিত নয়’, তুনিশা শর্মার মৃত্যুতে গর্জে উঠলেন কঙ্গনা, দাবি করলেন… ]

তুনিশাকে দেখা গেছে হিজাব পরিহিত অবস্থায়। তারপর থেকেই আরও শোরগোল। এদিকে, ফলক নাজ অর্থাৎ শিজানের বোন এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, কখনই তাঁরা তুনিশাকে হিজাব পরার কথা বলেননি। ওটা শুধুমাত্র চ্যানেলের তরফে একটি ভিডিও ছিল। অনেকবার তুনিশার পরিবার তাঁদের বাড়িতে এসেছে, কিন্তু এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি। বরং তাঁরা পাল্টা অভিযোগ করে বলেন, “যদি শিজান চড় মেরেই থাকে তাহলে ওঁর মা কেন আমাদের বলল না। উল্টে আমাদের ছেলেকে চড় মারলেন না কেন? সকলে সবকিছু জানে। ওঁর মা কীভাবে ওর সঙ্গে কথা বলতেন, একথা কারওর অজানা নয়”।

তুনিশার জন্য সমান ব্যথিত শিজানের পরিবার। তারাও চান তুনিশা বিচার পাক, তবে ভুলভাবে ফাঁসানো হচ্ছে তাঁদের ছেলেকে। এই ঘটনার সঙ্গে শিজানের কোনও সম্পর্ক নেই বলেই তাঁরা দাবি করেছেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sheezan khans family said tunishas mother is one of them who torture heroine