বড় খবর

নিয়মের উলটপুরাণ! মামাভাত নয়, বোনপোকে ‘মাসিভাত’ খাইয়ে প্রথা ভাঙলেন শ্রুতি

অভিনেত্রীকে কুর্নিশ নেটপাড়ার।

Shruti Das, Bengali television actress, শ্রুতি দাস, মাসিভাত খাওয়ালেন শ্রুতি, bengali news today
শ্রুতি দাস

সমাজ-পরিবারে অগ্রাধিকার, যত অনুষ্ঠান-আচারের রাশ কি পুরুষদেরই হাতে? সেই প্রশ্নের উত্তরে অনেক তর্ক-বিতর্ক বহুকাল ধরে। তবে সেই প্রেক্ষিতেই অন্য পথে হাঁটলেন টেলি-নায়িকা শ্রুতি দাস (Shruti Das)। মামাভাত-এর পরিবর্তে আয়োজন করলেন মিমিভাত-এর। আরেকটু খোলসা করে বলতে গেলে, একরত্তির মুখে প্রথম অন্ন তুলে দিলেন মাসি শ্রুতি।

নিয়মের উলটপুরাণ-ই বটে! শুধু মামারাই কেন অন্নপ্রাশনে ভাত তুলে দেবে খুদের মুখে? সেই ভাবনা থেকেই অন্যরকম পদক্ষেপ করলেন জনপ্রিয় টেলিনায়িকা। শ্রুতি বরাবরই স্পষ্টবাদী। সমাজের বাঁকা নিয়মেও চোখ রাঙান তাঁর পোস্টে। এবার বোনের ছেলেকে ভাত খাওয়ালেন তিনি। সাধ করে যে রীতির নাম শ্রুতি রেখেছেন ‘মিমিভাত’।

অন্নপ্রাশনের ছবি শেয়ার করে নায়িকার মন্তব্য, “নিজের বোনপোকে মিমিভাত খাওয়ানোর মজাই আলাদা। সেই সঙ্গে একটা অন্যরকম সাফল্যও। প্রথা ভাঙার আনন্দটাই আসলে আলাদা। সবসময়ে কেন শুধু মামাভাত হবে? মা-মাসিরাই তো রোজ বাচ্চাদের খাওয়ায়, আর বাবা-মেসোরা কদাচিৎ…।” এমনটাই ভাবনা শ্রুতির।

[আরও পড়ুন: ১ মাস শুয়েছেন মেঝেতে, পাতে শুধু নিরামিষ! ব্রহ্মচর্য মেনে শবরীমালায় পুজো দিলেন অজয় দেবগণ]

প্রথা অনুযায়ী, অন্নপ্রাশনে মামা কিংবা দাদুরাই প্রথম ভাত তুলে দেন শিশুর মুখে। চিরাচরিত সেই প্রথাকেই চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন নায়িকা। উল্লেখ্য, উলটোপথে হেঁটে শ্রুতি কিন্তু এর আগে একাধিকবার সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছেন।

গায়ের রং নিয়েও কম কটাক্ষ শুনতে হয়নি নায়িকাকে। এখানেই অবশ্য থামেননি নেটজনতা। টেলিপাড়ার খ্যাতনামা পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দারের সঙ্গে সম্পর্কে যাওয়ার পরও অনেকে কটাক্ষ করেছিলেন তাঁকে। তবে থেমে থাকেননি শ্রুতি। বরং প্রতিবাদ করে নিজের ইচ্ছেমতোই এগিয়ে গিয়েছেন। অভিনেত্রীর এহেন সাহসী পদক্ষেপকে বারবার কুর্নিশ জানিয়েছেন অনুরাগীরা। এবার ‘মিমিভাত’ চালু করার পরও তার অন্যথা হল না।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Shruti das celebrates rice ceremony of her relative

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com