বড় খবর

‘আমি ডান-বাম নই, প্রকৃত ভারতীয়’, সমালোচকদের ঝাঁজালো উত্তর সোনু নিগমের

ছেলেকে ভারতের গায়ক বানাতে চান না! বলে সম্প্রতি নেটিজেনদের রোষানলে পড়েছিলেন সোনু নিগম।

sonu

“আমি ডান-বাম নই, প্রকৃত ভারতীয়”, সমালোচকদের সপাটে উত্তর দিলেন সোনু নিগমের। “ছেলে ভারতে থেকে সংগীতশিল্পী হোক চাই না!…”, এক সাক্ষাৎকারে দিন কয়েক আগেই কথা প্রসঙ্গে এমন মন্তব্য করেছিলেন সোনু নিগম (Sonu Nigam)। যার জেরে তাঁকে নেটিজেনদের কাছে জোর কটাক্ষের শিকারও হতে হয়। “ভারতে থেকে, ভারতে খেয়ে, শেষে কিনা ভারতীয় গায়কের মুখেই এমন মন্তব্য?” এমন তিক্ততাই ঝরে পড়েছিল নেটদুনিয়ায়। সমালোচনার ঝড় বইতেই এবার সেই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন সোনু নিগম। কোনওরকম রেয়াত না করেই একহাত নিলেন সমালোচকদের।

ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে সোনু স্পষ্ট বলেন, “আরে ভাই তোরা ঘুমোস কী করে রে? তুই আমাকে বলবি যে, আমি আমার ছেলের সঙ্গে কী করব? আমার ছেলে ভীষণই ট্যালেন্টেড। ওর যা ইচ্ছে, ও তাই করবে। ও গান গায়, তার মানে এই নয় যে ওকে একজন গায়কই হতে হবে! প্রথম কথা তো, তোরা এতটাই বামপন্থী যে নিজেদের ডান হাতকেও ঘেন্না করিস। আমি প্রকৃত ভারতীয়। না বামপন্থায় বিশ্বাসী না ডানপন্থায়! তাহলে দালাল শুনে রাখ, নেপোটিজম ইস্যুতে এটা বলা হয়েছিল যে অভিনেতার ছেলে অভিনেতা হবে। গায়কের ছেলে গায়ক হবে.. কিন্তু আমি তো বলছি যে আমি আমার ছেলেকে এই পেশার দিকে ঠেলে দিতে চাই না! তো এবার এটার প্রশংসা কর।”

সোনুর এই ঝাঁঝালো মন্তব্যকে যদিও অনেকে সমর্থন জানিয়েছেন। কেউ বা আবার এধরনের তীর্যক মন্তব্য করার জন্য সোনুকে কটাক্ষ করেছেন।

আসলে দুবাইয়ে ফোর্টনাইটে গেমার হিসেবে দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছে সোনু নিগমের ছেলে। সোনুর এর আগে মন্তব্য করেছিলেন, “ওকে আমি ভারত থেকে বের করে নিয়ে গিয়েছি। ও দুবাইতে থাকে এখন। ছোট থেকে ভাল গাইলেও ওর জীবনের আরেকটা দিক আছে, যা নিয়ে পরিচর্যা করতে ও খুবই ভালবাসে। নিভান ভীষণই ব্রিলিয়ান্ট আর ট্যালেন্টেড। তাই আমি ওকে বলব না জীবনে কী করতে হবে। ওর নিজের ইচ্ছেয় ও যা বেছে নেবে, সেটাই মেনে নেব।” কিন্তু এসবের মাঝে ভারতে থেকে ছেলেকে সংগীতশিল্পী হিসেবে দেখার অনিচ্ছা কেন প্রকাশ করলেন সোনু নিগম? তা কিন্তু স্পষ্ট নয়!

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Sonu nigam opens up on why he does not want his son to become a singer

Next Story
‘বাজি পোড়ানো হিন্দু সংস্কৃতি নয়’, আইপিএস অফিসারের এই মন্তব্যের বিরোধিতা কঙ্গনার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com