scorecardresearch

বড় খবর

শতরূপের বউ যেন অবিকল শ্রীলেখা! নেটিজেনের মশকরা ভাইরাল হতেই আসরে অভিনেত্রী

শতরূপের স্ত্রী পহেলির সঙ্গে শ্রীলেখাকে গুলিয়ে ফেললেন নেটিজেনরা।

শতরূপের বউ যেন অবিকল শ্রীলেখা! নেটিজেনের মশকরা ভাইরাল হতেই আসরে অভিনেত্রী
শতরূপ ঘোষের স্ত্রীয়ের সঙ্গে শ্রীলেখা মিত্রকে গুলিয়ে ফেললেন নেটিজেনরা

রবিবারই বিয়ে করেছেন শতরূপ ঘোষ। বাম শিবিরের যুবনেতার বিয়ে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম। পাত্রী ইন্ডাস্ট্রির চেনা মুখ। খাওয়া-দাওয়া, আড্ডায় জমে উঠেছিল বিবাহ বাসর। আর সেই ছবি ভাইরাল হতেই নেটদুনিয়ায় ফিসফাস! একাংশ তো শতরূপের স্ত্রীয়ের সঙ্গে শ্রীলেখা মিত্রকেই গুলিয়ে ফেললেন। সেকথা টলিউড নায়িকার কানে যেতে সময় নেয়নি। শুনেই আসরে নামলেন শ্রীলেখা মিত্র।

প্রসঙ্গত, শ্রীলেখাও বামপন্থী মনোভাবাপন্ন অভিনেত্রী। শতরূপ ঘোষের সঙ্গে বেজায় সুসম্পর্ক। অতঃপর যুবনেতার বিয়েতে আমন্ত্রিত ছিলেন তিনিও। তবে ড্রাইভার না থাকায় শতরূপ ঘোষের বিয়েতে আর যাওয়া হয়নি তাঁর। তাই বাড়িতেই সেজেগুজে রিল শুট করেছেন। দুঃখের সঙ্গে এও জানান যে তিনি এই বিয়েতে যেতে পারছেন না। তবে নেটপাড়ার একাংশ শতরূপের স্ত্রী পহেলি সাহার সঙ্গে অভিনেত্রীকে গুলিয়ে ফেলেছেন।

বেশ কয়েকটা ভাইরাল পোস্টে দেখা গেল, পহেলিকে অনেকেই শ্রীলেখা মিত্র ভেবেছেন। তাঁদের কথায়, “পাত্রীকে দেখে প্রথমে ভেবেছিলাম শ্রীলেখাদি। তারপর খবর নিয়ে আমার ভুল ভাঙলো।” সেই পোস্টের স্ক্রিনশট শেয়ার করে এবার ময়দানে নামলেন শ্রীলেখা।

অভিনেত্রীর কথায়, “যাহ! আমি কেন লোকনাথ বাবা তো নই। যাক এই বয়সেও বিয়ের পাত্রী ভাবছে আমায়..।” শ্রীলেখার পোস্টে কমেন্ট করে রসিকতা করেন প্রযোজক রানা সরকার এবং সঞ্চালিকা লাজবন্তী রায়ও। কেউ বা আবার লিখলেন, ‘মন্দ হতো না..।’

উল্লেখ্য, পহেলি সাহা টলিউডের এক জনপ্রিয় প্রযোজনা সংস্থার জনসংযোগের দায়িত্বেও ছিলেন। দুজনেই আশুতোষ কলেজের প্রাক্তন। সেখান থেকে বন্ধুত্ব এবং পরে প্রেম। দীর্ঘ কয়েক বছর পর এবার সেই প্রেম পরিণতি পেল। ৪ ডিসেম্বর ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধবদের সাক্ষী রেখে রেজিস্ট্রি বিবাহ করলেন শতরূপ, পহেলি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Sreelekha mitra on cpim leader shatarup ghosh marriage