বড় খবর


নৃশংস ধর্ষণ আর মাংসের জন্য প্রাণী হত্যা, খুব আলাদা কী? সিনেমায় প্রশ্ন তুলছেন তথাগত

Tathagata Mukherjee Film: একটি কুকুর বা শূকরের হত্যা আর একটি মহিলার ধর্ষণ-হ্ত্যার মধ্যে কোনও পার্থক্য দেখে না যে সিরিয়াল কিলার, তার গল্পটা বলবেন পরিচালক তথাগত মুখোপাধ্যায়।

Tathagata Mukherjee film How to become a rapist
ছবি: সৌজন্য তথাগত মুথোপাধ্যায়।

Tathagata Mukherjee’s film on animal cruelty: একজন ধর্ষক যখন নারী শরীরকে ছিন্নভিন্ন করে আর মানুষ যখন তার নিজের ভোগের জন্য যথেচ্ছ প্রাণী হত্যা করে, দুটোই সমান নৃশংসতা– ঠিক এই ভাবনা থেকেই তৈরি হতে চলেছে পরিচালক তথাগত মুখোপাধ্যায়ের ছবি ‘হাউ টু বিকাম আ রেপিস্ট’। চার্লস ডারউইন-এর ‘অরিজিন অফ স্পিসিজ’ বইটির ৬টি অধ্যায়ের উপর ভিত্তি করে তৈরি হবে ৬টি ছোট ছবির এই সম্মেলন, যার মধ্যে একটির কাজ আপাতত সম্পূর্ণ।

”আমার ছবির মূল বিষয় হল প্রাণিজগতের প্রতি মানবসভ্যতার নিষ্ঠুরতা। সেই নিষ্ঠুরতার সঙ্গে একজন ধর্ষকের নিষ্ঠুরতার কোনও পার্থক্য নেই। যে পশুপাখিদের মাংস খেতে মানুষ অভ্যস্ত, ঠিক কতটা নিষ্ঠুরতার সঙ্গে তাদের হত্যা করা হয়, অনেকেরই ধারণা নেই সেই বিষয়ে”, বলে চলেন তথাগত মুখোপাধ্যায়, ”এই ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্র মনে করে পৃথিবীতে দুধরনের জীব রয়েছে, উদ্ভিদ ও প্রাণী। তাই একটি কুকুর বা শূকরের হত্যা আর একটি মহিলার হ্ত্যার মধ্যে সে কোনও পার্থক্য দেখে না।”

আরও পড়ুন: ‘সিতারা’ রিভিউ: ছবির রাশ কেমন যেন বার বার ফসকে যায়

তথাগত মুখোপাধ্যায় বহুদিন ধরেই প্রাণিকল্যাণ নিয়ে কাজ করছেন স্ত্রী দেবলীনা দত্তকে সঙ্গে নিয়ে। তথাগত ও দেবলীনার প্রযোজনা সংস্থার উদ্যোগেই সম্প্রতি শেষ হয়েছে ‘হাউ টু বিকাম আ রেপিস্ট’-এর প্রথম অধ্যায়ের কাজ। সম্পূর্ণ ছটি অধ্যায় তৈরি করতে অনেকটা অর্থের প্রয়োজন। ছবির বিষয়বস্তু এবং আঙ্গিক অত্যন্ত কড়া। এই ধরনের প্রয়োগের জন্য উপযুক্ত প্রযোজক পাওয়া কঠিন। তথাগত চান না তাঁর সৃজনশীলতায় কেউ হস্তক্ষেপ করুক। তাই ‘হাউ টু বিকাম আ রেপিস্ট’-এর প্রথম অধ্যায়টি নিজেই প্রযোজনা করেছেন। ছবির মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন সত্রবিৎ পাল ও উষসী ভৌমিক। চিত্রগ্রহণ ও এডিটিং আমির মন্ডলের। সঙ্গীত পরিচালক ময়ূখ ভৌমিক। লুক ডিজাইনার দেবলীনা দত্ত।

Tathagata Mukherjee film How To Become a Rapist
তথাগত মুখোপাধ্যায়ের ছবির পোস্টার

”আমি খুবই যত্ন করে এই ছবিটা বানাতে চাই। একটাই ছবি যা ৬টি পর্যায়ে বিভক্ত। ‘অরিজিন অফ স্পিসিজ’-এর প্রত্যেকটি অধ্যায় নিয়েই আমার ছবির এক একটি অধ্যায়। প্রথম অধ্যায়ের কাজ প্রায় শেষ। বিভিন্ন ওয়েব প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে কথা চলছে। কিন্তু এই ছবি এমন কিছু কথা বলবে যা অত্যন্ত কঠিন সত্য। আমরা বহু রিয়েল লাইফ ফুটেজ, ইউটিউব ভিডিও ব্যবহার করেছি ছবিতে। বিনোদন আর ভোগের জন্য পশুপাখিদের প্রতি মানুষের নিষ্ঠুরতা যে কতদূর যেতে পারে, সেটা হয়তো অনেকেরই জানা নেই”, বলেন তথাগত।

আরও পড়ুন: শুধু ওয়েবক্যামে শুটিং! সৌমন বসু নিয়ে আসছেন অভিনব ওয়েব সিরিজ

‘হাউ টু বিকাম আ রেপিস্ট’-এর কেন্দ্রীয় চরিত্র এক পুরুষ যে মহিলাদের ধর্ষণ করে নৃশংস ভাবে খুন করে এবং এই কাজটিকে সে কোনও অপরাধ বলে মানতে রাজি নয়। তার যুক্তিমতো, যে সমস্ত পশুর মাংস মানুষ খেয়ে থাকে, তাদের সঙ্গে মানুষের কোনও পার্থক্য নেই। আসলে মানুষ ও পশু একই গোষ্ঠীভুক্ত– প্রাণিজগতের অংশ। আর তাকে ছোটবেলার জীবনবিজ্ঞানের পাঠক্রম শিখিয়েছে, জীবজগতের মোট দুটি ভাগ– উদ্ভিদ ও প্রাণিজগত। তাই প্রাণিজগতের সব প্রাণীদের সঙ্গেই নিষ্ঠুরতা ও নৃশংসতার ধরন এক ও অভিন্ন হওয়া উচিত!

Tathagata Mukherjee film How To Become a Rapist
‘হাউ টু বিকাম আ রেপিস্ট’ ছবির একটি দৃশ্যে মুখ্য চরিত্র। ছবি সৌজন্য: তথাগত

ভোগবাদী সভ্যতা প্রকৃতি ও প্রাণিজগতকে ঠিক কীভাবে ধ্বংস করছে, তা সম্পূর্ণ বিপরীত একটি দৃষ্টিকোণ থেকে দর্শকের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করছেন তথাগত। যাতে দর্শক একটা সময়ের পর নিজেই নিজের যুক্তির জালে আটকে পড়তে বাধ্য হন। সিনেমা যেন তাদের কাছে একটি আয়না হয়ে ওঠে। এই অভিনব কাজটি ঠিক কবে দর্শক দেখতে পাবেন, তা এখনই বলতে অপারগ পরিচালক। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে তিনি জানালেন, যদি কোনও উপযুক্ত প্ল্যাটফর্ম এই কাজটিকে সম্প্রচার করতে রাজি না হয়, তবে তিনি নিজেই ডিজিটাল মাধ্যমে সেটি প্রকাশ করে দেবেন। তথাগত চান, সবাই এই ছবিটি একবার দেখুন।

Web Title: Tathagata mukherjee film how to become a rapist on animal cruelty

Next Story
যৌনস্বাস্থ্য নিয়ে সোনাক্ষীর ছবি, এল নতুন ট্রেলারSonakshi Sinha Khandani Shafakhana trailer
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com