scorecardresearch

বড় খবর

‘কালীঘাটে পুজো দেওয়া উচিত দলের’, শ্রাবন্তী বিজেপি ছাড়ায় কটাক্ষ তথাগতর

Shrabanti Chatterjee: স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই তথাগত রায় বলেন, ‘গিয়েছে ভালোই হয়েছে। বিজেপির ঘাড় থেকে ভূত নেমেছে।’

‘কালীঘাটে পুজো দেওয়া উচিত দলের’, শ্রাবন্তী বিজেপি ছাড়ায় কটাক্ষ তথাগতর
শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে তোপ তথাগত

Shrabanti Chatterjee: একুশের ভোটের পর বিজেপির দলত্যাগীদের তালিকায় নতুন নাম জুড়লেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। গত বিধানসভা ভোটে বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রের প্রার্থী হয়েছিলেন অভিনেত্রী। হেভিওয়েট পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে ৫০ হাজারের বেশি ভোটে হেরেও যান তিনি। সেই অভিনেত্রী বৃহস্পতিবার সকালে বিজেপি ত্যাগের খবর প্রকাশ্যে আনেন। আর সেই নিয়ে বঙ্গ রাজনীতিতে শুরু চর্চা। তবে অভিনেত্রীর এই সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি পদ্ম শিবিরের প্রবীণ নেতা তথাগত রায়। শ্রাবন্তী যে দলে ছিলেন, এতদিন তিনি জানতেন না। এভাবেই মুখ খোলেন প্রাক্তন রাজ্যপাল।

স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই তথাগত রায় বলেন, ‘গিয়েছে ভালোই হয়েছে। বিজেপির ঘাড় থেকে ভূত নেমেছে। যারা এনেছিল তাঁরা গেলেও ভালো হত। ও যে বিজেপিতে ছিল, সেটাই জানতাম না। দলের এই কারণে কালীঘাটে গিয়ে পুজো দেওয়া উচিত। তিনি রাজ্যের উন্নয়নের জন্য এত গভীরভাবে চিহ্নিত, জেনে আমি অভিভূত।‘

এখানেই থামেননি তিনি। ঘুরিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে কটাক্ষ করেছেন তথাগত রায়। তিনি বলেছেন, ‘শ্রাবন্তীর বিজেপির যোগদানের দিন পাশের জনের হাসি দেখেই বোঝা যাচ্ছিল, কোথায় কী হয়েছে। সব কথা সেভাবে বলা যায় না।‘ উল্লেখ্য, একুশের ভোটের আগে তৎকালীন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়র উপস্থিতিতে গেরুয়া পতাকা হাতে তোলেন শ্রাবন্তী। এদিন ঘুরিয়ে সেই যোগদানকে কটাক্ষ করেন প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ।   

এদিকে, একুশের নির্বাচনের আগে পদ্মশিবিরে যোগ দিয়েছিলেন। ভোটে লড়ার টিকিটও পেয়ে যান। তৃণমূলের হেভিওয়েট প্রার্থী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে হেরেও যান। সেই অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের আট মাসের মধ্যেই মোহভঙ্গ হল। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সদর্পে ঘোষণা করলেন, বিজেপি ছাড়লেন তিনি। এরপরই শ্রাবন্তীকে কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না গেরুয়া শিবিরের নেতারা।

বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা টুইট করে ব্যঙ্গ করেছেন শ্রাবন্তীকে। লিখেছেন, “শ্রাবন্তীর মতো নেত্রী বিজেপি ছেড়ে চলে যাওয়ায় সংগঠনের যে ভয়ানক ক্ষতি হয়ে গেল, তা হয়তো ভবিষ্যতে কোনওদিনই পূরণ হবে না।” আদতে শ্রাবন্তীর বিজেপি ছাড়া নিয়ে মশকরাই করেছেন অনুপম। তিনি টুইটে বোঝাতে চেয়েছেন, শ্রাবন্তী কোনওদিনই সংগঠক ছিলেন না। ভোটপাখি হিসাবে দলে যোগ দিয়েছিলেন। তাই এখন দল ছেড়ে দিলে বিজেপির কোনও ক্ষতি হবে না।

প্রসঙ্গত, ভোটের পর থেকেই টালিগঞ্জের তারকামহল বিজেপি থেকে দূরত্ব তৈরি করেছেন। ভোটে ভরাডুবির কারণ হিসাবে নেতৃত্বের ব্যর্থতাকেই দুষে অনেকেই যাঁরা ভোটের আগে বিজেপিতে ভিড়েছিলেন, তাঁরা এবার পদ্মবিমুখ। দলীয় কর্মসূচিতেও দেখা যায় না। তারপর বিজেপি নেতা তথাগত রায় যেভাবে শ্রাবন্তী-পায়েল-তনুশ্রীদের আক্রমণ করেছেন টুইটারে তাতে তারকারা কিছুটা ক্ষুব্ধ। স্বাভাবিক ভাবেই শ্রাবন্তীর বিজেপি ছাড়া ছিল সময়ের অপেক্ষা, বলছে রাজনৈতিক মহল।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tathagata ray welcomes shrabantis decision to walk out from bjp state