বড় খবর

বাম সমর্থক হওয়ায় ইন্ডাস্ট্রিতে ব্রাত্য! ‘বিস্ফোরক’ অভিযোগ অভিনেতা জিতু কমলের

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে লাল সেলাম জানিয়ে পোস্ট করেছিলেন অভিনেতা। সেখানেই বিস্ফোরক অভিযোগ তোলেন।

jeetu kamal

সোমবার, হোলির দিন দুপুরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে (Buddhadeb Bhattacharya) লাল সেলাম জানিয়েছিলেন জিতু কমল (Jeetu Kamal)। আর সেই প্রেক্ষিতেই বিস্ফোরক এক অভিযোগ তুললেন টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেতা। নেট মাধ্যমে আগাগোড়াই সক্রিয় তিনি। তবে এযাবৎকাল রাজনীতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে সেভাবে কথা বলতে শোনা যায়নি! সম্ভবত এই প্রথম তিনি প্রকাশ্যে এভাবে মুখ খুললেন। অভিযোগ তুলেছেন বাম শিবিরের সমর্থক হওয়ায় ইন্ডাস্ট্রিতে একসময় তাঁকেও ব্রাত্য থাকতে হয়েছে। তথ্য-সংস্কৃতি দপ্তরের তরফে টেলি সম্মান পুরস্কারে ভূষিত হলেও তিনি লাল শিবিরের সমর্থক একথা জানার পর আর রাজ্যের শাসকদলের তরফে পুরস্কার মঞ্চের আমন্ত্রণপত্র পাননি।

ঠিক কী বলেছেন জিতু? বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের একটি পুরনো ছবি শেয়ার করেছেন তিনি ক্যাপশনে লিখেছেন, “আপনাকে ভালোবাসি স্যর। আপনি বাম রাজনীতি করেন শুধু তাই জন্যে নয়। আপনি সততার, সত্যের, নিষ্ঠার আরেক নাম। আপনি বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।” এরপরেই তিনি জুড়ে দিয়েছেন আরও কয়েকটি কথা। যা দেখে রীতিমতো হতভম্ব নেটজনতার একাংশ। কারণ, জিতুর মতো অভিনেতাকে আজ অবধি কখনও এরকম মন্তব্য করতে শোনা যায়নি!

জিতু কমলের দাবি, “এই পোস্টের জন্যেও আমার কাজের ক্ষতি হবে। সংসার চালাতে অসুবিধে হবে। প্রচুর কমপ্লেন পড়বে। তবুও আমি রাজনীতির উর্দ্ধে গিয়ে সত্যের কথা বলবই। বাকি দু’বেলা পেট না হয় ঈশ্বরই চালিয়ে দেবেন। যদি সত্যের পথে থাকতে পারি।”

কেন এমন অভিযোগ? খোলসা করেছেন অভিনেতা। রবিবার নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভার বক্তৃতায় তাপসী মালিক খুনের প্রকৃত সত্যের অনেকটাই নগ্ন হয়েছে। দশ বছর আগেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ভভিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, এটা যে একটা নোংরা রাজনীতি মানুষ দশ বছর পর তা বুধতে পারবে। আজ তাঁর কথাই সত্যি হল। সুরেন্দ্রনাথ কলেজে বাম ছাত্র রাজনীতি করে আসা অভিনেতার কাছে তাই আজও বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যই আইডল।

তবে এখানেই থেমে থাকেননি জিতু। বর্তমানে ভিন্ন রাজনৈতিক মতার্দশের খাতিরে দ্বিবিভক্ত ইন্ডাস্ট্রির প্রসঙ্গও উত্থাপন করেছেন। তাঁর কথায়, একসময় তথ্য-সংস্কৃতি দপ্তরের তরফে পুরস্কার পেলেও তিনি যে বাম সমর্থক সেকথা জানার পর রাজ্যের শাসকদলের তরফে কোনও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ পাননি তিনি। তাঁর মতে, চন্দন সেন, বাদশা মৈত্রর মতো অভিনেতারাও হয়োত এই সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। কিন্তু কোনও দিন মুখ খোলেননি। আসলে বামপন্থীরা বরাবরই নালিশ কম করেন।

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Television actor jeetu kamals post on buddhadeb bhattacharya goes viral

Next Story
করোনা আক্রান্ত অভিনেতা ভরত কল ও স্ত্রী জয়শ্রী, রয়েছেন হোম কোয়ারেন্টাইনেbharat Kaul
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com
X