scorecardresearch

বড় খবর

বয়স নেহাতই সংখ্যামাত্র, অল্পবয়সেই মা-শাশুড়ির চরিত্রে তাক লাগিয়েছেন যে অভিনেত্রীরা

হিরোর সঙ্গে ফারাক খুবই কম বাংলা সিরিয়ালের এই মুখদের

বয়স নেহাতই সংখ্যামাত্র, অল্পবয়সেই মা-শাশুড়ির চরিত্রে তাক লাগিয়েছেন যে অভিনেত্রীরা
মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন যারা …

অভিনয়ের কোনও জাত ধর্ম হয়? নিশ্চই না! কিন্তু কথায় বলে একটি নির্দিষ্ট চরিত্র কোন অভিনেতা বা অভিনেত্রী ফুটিয়ে তুলতে পারবেন, সেই নিয়ে ভিন্ন লোকে ভিন্ন মতামত দিয়ে থাকেন। অল্প বয়সেই কেউ কেউ মাঝ বয়সী চরিত্র করতে পছন্দ করেন আবার কেউ কেউ, পছন্দ করেন আরও প্রাপ্তবয়স্ক চরিত্রে অভিনয় করতে। বিশেষ করে টেলিদুনিয়ায় এমন বেশ কিছু অভিনেত্রীরা রয়েছেন যাঁরা খুব অল্প বয়সেই মা-মাসির চরিত্রে সঁপে দিয়েছেন।

তাঁদের নিয়ে শোরগোল অথবা খোরাক কম নেই। কেউ কেউ দোষারোপও করেন যে, এই বয়সেই কেন মায়ের চরিত্র বেছে নিলেন। কিন্তু, সবটাই তাঁদের পছন্দের বিষয়। চরিত্রের প্রয়োজনে, নিজেদের বয়সকে নেহাতই তুচ্ছ মনে করেন তাঁরা। এমনই বেশ কয়েকটি নামের মধ্যে, অরিজিতা মুখোপাধ্যায়, সোহিনী সেনগুপ্ত, ছাড়াও রয়েছেন অনেকেই। ধারাবাহিকে খেয়াল করলে দেখা যাবে, তাঁদের ছেলে কিংবা মেয়েদের চরিত্রে যাঁরা অভিনয় করছেন তাদের সঙ্গে বয়সের খুব একটা হেরফের কিন্তু নেই। তবে, নিজেদের মায়ের চরিত্রে অসাধারণ ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন এই অভিনেত্রীরা।

নিম ফুলের মধু’তে- অরিজিতা মুখোপাধ্যায়

অরিজিতা মুখোপাধ্যায় : একজন সুদক্ষ এবং সব চরিত্রের জন্য মানানসই অভিনেত্রীর কথা বলতে গেলে অরিজিতাকে একেবারেই বাদ দেওয়া যায় না। ওয়েব সিরিজেও বেশ জনপ্রিয় মুখ তিনি। বর্তমানে, ‘নিম ফুলের মধু’ ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন বাবুর মায়ের চরিত্রে অর্থাৎ রুবেলের মায়ের চরিত্রে। বলাই বাহুল্য, এই চরিত্রের সুবাদে গ্রাম বাংলার বেশ কিছু মাঝবয়সী নারীদের যেমন কাছের মানুষ হয়ে উঠেছেন তিনি তেমনই অল্পবয়সীদের অনেকের চোখের বিষ হয়ে উঠেছেন। ছেলেকে নিয়ে তথাকথিত আদিখ্যেতা অনেকেই পছন্দ করছেন না। তাতে অন্তত এটুকু প্রমাণিত, নিজের চরিত্রকে যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তিনি। কিন্তু হিরোর মা, এই চরিত্রটি আদৌ কি অরিজিতার বয়সের সঙ্গে যুক্তিযুক্ত? কেউ কেউ এমনও প্রশ্ন তুলছেন, নিতান্তই অল্প বয়সের এই অভিনেত্রী, অন্তত রুবেলের মা হওয়ার সময় হয় নি তাঁর।

সোহিনী সেনগুপ্ত : থিয়েটার এবং নাট্যমঞ্চের পরিচিত মুখ সোহিনী। অভিনয়ের কারণে তো বটেই তবে সপ্তর্ষি মৌলিককে বিয়ে করার পর থেকেও বেশ চর্চায় ছিলেন তিনি। স্বাতীলেখা এবং রুদ্রপ্রসাদের কন্যা সোহিনী নিজের অভিনয় দক্ষতায় মুগ্ধ করেছেন বাংলার মানুষজনকে। তবে, ‘গুড্ডি’ ধারাবাহিকে মাম্মাম এর চরিত্রে তাকে দেখে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন। তথাগত মুখোপাধ্যায় এর মায়ের চরিত্রে দেখা যাচ্ছে তাঁকে। বয়সের দিকে আঙ্গুল তুলেছিলেন অনেকেই। তথাগত মুখোপাধ্যায়ের মায়ের চরিত্রে সোহিনী? কিই বা এমন বয়স! এবং যদিও তাঁকে এই চরিত্রে দেখার পর থেকে সেই ধারণা অনেকের বদলেছে। চরিত্রের প্রয়োজনে নিজের অভিজ্ঞতা এবং শিল্পীসত্ত্বাকে নিংড়ে দিচ্ছেন অভিনেত্রী।

গুড্ডি’ ধারাবাহিকে সোহিনী ও অনিন্দিতা

অনিন্দিতা রায় চৌধুরী : বাংলা ধারাবাহিকে খলনায়িকা হোক কিংবা, অন্য কোনও চরিত্র অনিন্দিতা এখন টিভির পর্দায় চেনা মুখ। ধুলোকণা ধারাবাহিকে চড়ুই এর মায়ের চরিত্র পর্যন্ত তাও অনেকেই মেনে নিয়েছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি, ‘গুড্ডি’ ধারাবাহিকে দেবত্তম মজুমদারের মায়ের চরিত্রেও তাঁকে দেখা যাচ্ছে। এতেই বাঁকা চোখে তাকিয়েছেন অনেকেই। দুজনের মধ্যে বয়সের বিভেদ হয়তো একেবারেই বেশি নয়, তাই তো দেবত্তমের মা হিসেবে অনিন্দিতাকে দেখার পর থেকে কপালে হাত অনেকের। অল্প বয়সেই মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী, তবে যে হারে চরিত্রের প্রয়োজনে নিজেকে পাল্টে ফেলছেন সেও প্রশংসার মত।

গাঁটছড়ায়’ সোহিনী

সোহিনী স্যানাল : দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন তিনি, একটা সময় হিরোইন হিসেবে কাজ করলেও এখন বেশ কিছু বছর মা কাকিমার চরিত্রেই তাঁকে বেশি দেখা যায়। মা অসুস্থ ছিলেন, অর্থের প্রয়োজন ছিল। একবার জনপ্রিয় এক টেলিভিশন শোয়ে তিনি জানিয়েছিলেন, মায়ের চিকিৎসার প্রয়োজনে ছুটিও নেন নি, কিন্তু কাজ করে গেছেন। তাই কোনওদিন মায়ের চরিত্র কিংবা বয়সের চরিত্র করবেন না এই সিদ্ধান্তও নিতে পারেন নি তিনি। এখন ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকে কুণালের মায়ের চরিত্রে তাঁকে দেখা যাচ্ছে।

অভিনয়ের জন্য শুধুই পরিশ্রম আর দক্ষতা লাগে। সেই নির্দিষ্ট চরিত্রে যদি অভিনেতা-অভিনেত্রী সাবলীল হন তবে তাঁর পক্ষে এই চরিত্র ফুটিয়ে তোলা খুব স্বাভাবিক বিষয়। তবে, টলিপাড়ায় কিছু এমন অভিনেত্রীও আছেন যারা এত সহজে ঠাকুমা দিদিমার চরিত্র করতে নারাজ। সেই জায়গায়, অনিন্দিতা এবং অরিজিতারা যেভাবে নিজেদের কায়েম রেখেছেন তাঁদের কুর্নিশ।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Television news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bengali telly serial actress doing mothers role age gap is just a number