scorecardresearch

বড় খবর

হাপুস নয়নে কেঁদে চলেছেন ‘দিদি নম্বর ওয়ান’ রচনা, অভিনেত্রীকে স্বান্তনা অনুরাগীদের

কিন্তু কী এমন কারণ, যে কেঁদে ভাসাচ্ছেন অভিনেত্রী?

হাপুস নয়নে কেঁদে চলেছেন ‘দিদি নম্বর ওয়ান’ রচনা, অভিনেত্রীকে স্বান্তনা অনুরাগীদের
রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়

টেলিভিশনের পর্দায় অভিনেত্রী-সঞ্চালকরা কত কী করেন। কখনও হাসছেন, কখনও অন্যকে বিতর্কের মুখে ফেলে দেন। দীর্ঘদিন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় সঞ্চালনা করছেন দিদি নম্বর ওয়ান। এবার কোনও প্রতিযোগীর জীবনমুখী গল্প শুনে নয় বরং নিজেই কেঁদে ভাসালেন অভিনেত্রী।

প্রজাপতি ছবিতে বাবা-ছেলের অনবদ্য সম্পর্ক নিয়েই গল্প বোনা হয়েছে। সেই সবদিনের স্মৃতি মনে আসতেই চোখে জল রচনার। বাবার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ঠিক কেমন ছিল সেই নিয়ে মাঝেমধ্যেই স্মৃতিচারণ করেছেন অভিনেত্রী। আবারও পুরনো সেই দিনের কথার ঝুলি উজাড় করলেন রচনা। বাবার কথা মনে করতেই দীর্ঘশ্বাস ফেললেন অভিনেত্রী। বললেন, বাবার কথা কি আর বলব। সেই মানুষটাকে নিয়ে যখনই বলতে যাই, মন খারাপ হয়ে যায়।

সন্তানের সঙ্গে বাবার যে অমুল্য সম্পর্ক, নিজের সন্তানকে সম্পর্কে স্বতঃস্ফূর্ত দেখার মত আনন্দ আর কিছুতেই নেই। এই ছবিতে মিঠুনও দেবকে নিয়ে বেজায় আগ্রহী। ছেলেকে বিয়ে দিতে চান। সেই প্রসঙ্গেই আবারও নিজের ছোটবেলার কথা মনে করলেন তিনি। বললেন, বাবা মায়ের একমাত্র মেয়ে আমি। বরাবরই খুব আদরের। কিন্তু মা ছিলেন রাগি। বাবা কোনদিন বকাবকি করেন নি। আমার জীবনে এগিয়ে চলার সফলতার অর্থ বাবা। যাঁদের বাবা রয়েছেন তাঁদের আলাদাই সৌভাগ্য। এটা যে কতবড় আশীর্বাদ…বলতে বলতেই কেঁদে ফেললেন রচনা।

রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় এর বাবা মারা গিয়েছেন খুব বেশিদিন হয়নি। ভেঙে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। অনেকদিন শুটিং থেকে বিরত ছিলেন। সমস্ত নিয়ম মেনে বাবার শেষকৃত্য সম্পন্ন করেছিলেন। এক্কেবারে সে যে বাবার মেয়ে -এটা তাঁর কথাতেই পরিস্কার।

একে একে সব তারকাই তাঁদের বাবাদের সঙ্গে সম্পর্কের কথা শেয়ার করছেন দেবের ছবির মাধ্যমে। তবে, দেব বাস্তবের জীবনে বিয়ে থেকে অনেকটাই দূরে। এখনও ঠিক করে উঠতে পারছেন না কবে বিয়ে করবেন তিনি?

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Television news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Rachana banerjee cried on tv zee bangla