scorecardresearch

৩ মাসেই ম্যাচ ওভার! ‘বৌমা একঘর’ বন্ধ হওয়ায় প্রচণ্ড মন খারাপ সুস্মিতার

টিয়া বৌমার ঘোষ পরিবারকে কেন মনে ধরল না দর্শকদের?

৩ মাসেই ম্যাচ ওভার! ‘বৌমা একঘর’ বন্ধ হওয়ায় প্রচণ্ড মন খারাপ সুস্মিতার
বন্ধ বৌমা একঘর!

অতি শীঘ্র একটি ধারাবাহিক শেষ হয়ে যেতে পারে, এ যেন মেনে নেওয়াই যায় না। বিশেষ করে টেলি দুনিয়ায় দিনের পর দিন একটি ধারাবাহিক চলতেই থাকে। তাতে প্লট বদলায়, স্ক্রিপ্টের অদল বদল হয়। কিন্তু এত তাড়াতাড়ি সম্প্রচার বন্ধ! এই ঘটনা ঘটেছে স্টার জলসার ধারাবাহিক বৌমা একঘর ধারাবাহিকের।

তিন মাসের মধ্যে শেষ ধারাবাহিক! দর্শকদের মণিকোঠায় একেবারেই জায়গা করে নিতে পারল না এই সিরিয়াল। আর সেই কারণেই, মন খারাপ ঘিরে ধরেছে ধারাবাহিকের নায়িকা টিয়া ওরফে সুস্মিতাকে। নিজেও যেন একেবারেই বিশ্বাস করতে পারছেন না। আগামী শুক্রবার শেষবারের মত সম্প্রচারিত হবে এই ধারাবাহিক। শুটিংও শেষ! কিন্তু ছোটপর্দার অপুকে টিয়া হিসেবে কেনই বা মনে ধরল না দর্শকদের – এটাই ভেবে পাচ্ছেন না সুস্মিতা।

আরও পড়ুন [ দোষ করেননি! তবুও শাহরুখকে করজোরে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করেন অমিতাভ ]

সন্ধের মুখেই ছিল সিরিয়ালের স্লট। সুতরাং TRP নিয়ে একেবারেই সমস্যা থাকার কথা নয়। কিন্তু আশানুরূপ ফল করতে পারে নি সুস্মিতা-দেবজ্যোতির রসায়ন। সংবাদমাধ্যমকে সুস্মিতা বলেন, “আমার প্রচন্ড মন খারাপ। হঠাৎ করেই শুনলাম সিরিয়াল বন্ধ হয়ে যাবে। আর দেখানো হবে না এই ধারাবাহিক। মুহুর্তের মধ্যেই যেন মাথায় বাজ পড়ল”। কিন্তু সবকিছুর যখন শুরু রয়েছে তখন শেষ অবশ্যই থাকবে – তাই কালের নিয়মকে মেনে নিয়েছেন অভিনেত্রী।

দর্শকদের কারওরই মনে ধরল না? ব্যাকুল কণ্ঠে অভিনেত্রী বলেন, “কেন যে কারওর পছন্দ হল না বুঝতেই পারলাম না”। TRP বেশি না থাকার দরুণ কিছুদিন আগেই একে রাতের স্লটে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে দর্শকদের বেশিরভাগই বলছেন, অতিরিক্ত পরকীয়া এবং কূটকচালি একেবারেই সহ্য করা যায় না। কেউ কেউ এমনও বললেন, সারাদিন কোন্দল লেগেই আছে, কী আর ভাল লাগবে! আপাতত নিজেকে সময় দিচ্ছেন সুস্মিতা। শীঘ্রই নতুন ভাবে ফিরছেন অভিনেত্রী।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Television news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Star jalsha bouma akghor serial finishes so early