বড় খবর


মানবসেবাই পরম ধর্ম, এবার ঈশ্বররূপে পূজিত হচ্ছেন সোনু সুদ, অভিনেতার নামে তৈরি হল মন্দির

তেলেঙ্গানাবাসীদের কথায়, “এই দেশে কেবল একজন ঈশ্বরই রয়েছেন। তিনি অভিনেতা সোনু সুদ।”

“জীবে প্রেম করে যে জন, সেই জন সেবিছে ঈশ্বর”, স্বামী বিবেকানন্দের এই বাণী সোনু সুদ যেন অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছেন। মানবসেবা যে ঈশ্বর পুজোর চেয়ে কোনও অংশে কম নয়, তা প্রমাণ করে দেখিয়েছেন তিনি। তাই এবার সোনু সুদকেই ঈশ্বররূপে পুজো করতে তাঁর মন্দির তৈরি হল।

অতিমারী আবহে গোটা লকডাউনে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শোনা গিয়েছে শুধু একটাই নাম- সোনু সুদ (Sonu Sood)। এমন কঠিন সময়ে তিনিই হয়ে উঠেছিলেন দুস্থ-দরিদ্রদের ‘মসিহা’। লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর পাশাপাশি বহু দুস্থ পরিবারের পাশেও দাঁড়িয়েছেন। কোথাও অনাথ শিশুদের দায়িত্ব নিয়েছেন, আবার কোথাও বা হতদরিদ্র পরিবারের সন্তানদের পড়াশোনার খরচ জুগিয়েছেন। দুস্থ পরিবারের সন্তানদের জন্য স্কলারশিপের ব্যবস্থা করে স্বপ্ন দেখার সাহস জুগিয়েছেন। এমন মানবসেবার জোরে ইতিমধ্যেই আদায় করে নিয়েছেন আন্তর্জাতিক প্রশংসা। সেই মানবদরদী অভিনেতাকে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানিয়েই এবার মন্দির তৈরি হল তেলেঙ্গানায়।

তেলেঙ্গানাবাসীদের কথায়, “এই দেশে কেবল একজন ঈশ্বরই রয়েছেন। তিনি অভিনেতা সোনু সুদ।” তেলেঙ্গানার সিদ্দিপেটের ডব্বা টাণ্ডা গ্রামের বাসিন্দারা তৈরি করেছেন সোনু সুদের নামের মন্দির। বসানো হয়েছে তাঁর আদলে মূর্তিও। আর সেই মন্দিরই কিনা “জয় হো সোনু সুদ!” স্লোগান দিতে দিতে উদ্বোধন করছেন অনুরাগীরা। শুধু তাই নয়, সোনুর মূর্তির সামনে আরতি করছেন। করজোরে প্রার্থনা করছেন। একসঙ্গে গান গেয়ে এই দিনটিকে উদযাপনও করলেন তাঁরা। আর তেলেঙ্গানার এই ছবি শেয়ার করে অভিনেতা সোনুন সুদ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে লিখেছেন, “আমি এর যোগ্য নই।” তবে সোনু নিজের যোগ্যতা নিয়ে যাই বলুন না কেন, সাধারণ এই মানুষগুলি তাঁকে কর্মের ভিত্তিতেই দেবত্বের স্থান দিয়েছেন।

Web Title: Temple built in telengana in sonu soods name

Next Story
ভগ্নীপতি আয়ুষের সঙ্গে সম্মুখ সমরে সলমন! প্রকাশ্যে ‘অন্তিম’-এর প্রথম ঝলকAntim
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com