বড় খবর

Thugs of Hindostan Review: প্রাপ্তির নিরিখে ঠকলেন দর্শকরা

Aamir Khan and Amitabh Bachchan Starrer Thugs of Hindostan Movie Review: শুধুমাত্র অতীতের ছবি, সিনের রেফারেন্স মেলানো নয়, শেষ পর্যন্ত আপনার সংগ্রাম রয়ে যাবে জীর্ণতা আর বিরক্তির সঙ্গে। হ্যাঁ! বিশাল আকারে ঠকতে হবে দর্শকদের।

ঠাগস অফ হিন্দোস্থান আই রোল আর আই গ্লেজের বিরামহীন সংমিশ্রন।
Thugs of Hindostan movie cast: অমিতাভ বচ্চন, আমির খান, ক্যাটরিনা কাইফ, ফতিমা সানা শেখ, মহম্মদ জিশান আয়়ুব, রনিত রায়

Thugs of Hindostan movie director: বিজয় কৃষ্ণ আচার্য্য

Thugs of Hindostan movie rating: ১/৫

 Thugs of Hindostan Review: ঠাগস অফ হিন্দোস্থান শোনার পরই মননে আসে ঠগীদের দৌরাত্ম্য ও দেশপ্রমের এক অমোঘ কল্পচিত্র। কারণ ছবির নামটাই তো সেরকম। আর আপনি ছবি তৈরিতে সামান্য গুণমানও বিচার করবেন। কেননা যশরাজ ফিল্মস, অমিতাভ বচ্চন, আমির খানের মতো বাঘা বাঘা নাম জড়িয়ে আছে এই ছবির সঙ্গে। পরিবর্তে বিনোদনকারীদের থেকে আপনি কি পাবেন? একটা বিরাট মুখরোচক বিনোদন পিস এবং তাঁদের কাছ থেকে, যাঁরা অতীতের দুঁদে এন্টারটেইনার। আর শুধুমাত্র অতীতের ছবি, সিনের রেফারেন্স মেলানো নয়, শেষ পর্যন্ত আপনার সংগ্রাম রয়ে যাবে জীর্ণতা আর বিরক্তির সঙ্গে। হ্যাঁ! বিশাল আকারে ঠকতে হবে দর্শকদের।

১৭৯৫ সাল দিয়ে শুরু হয় ছবি। যেখানে এক বাবা ও মেয়ে তাদের বালির দুর্গ তৈরি করছেন। সঙ্গে সঙ্গে আপনি বুঝতে পারবেন এই গল্প আপনাকে কোথায় নিয়ে যাবে। কারণ বালির ইমারত তো ধুয়ে যায়, একটা ভঙ্গুর কাঠামোর তৈরি। অতএব, এই দুর্গে থাকা প্রতিটি মানুষের জীবন বিপন্ন থাকবে। তাঁরা ভারতীয় হোন বা আক্রমণকারী বিট্রিশ। আর এদিকে ইংরেজরা ব্যস্ত হিন্দুস্থানীদের নিষ্পেষিত করতে, রাজা এবং রাজত্বের দখল নিতে, গরীবদের কাছ থেকে খাজনা আদায় করতে। না, ভুল ভাবছেন, এটা ‘লগান’ নয়।

ঠাগস অফ হিন্দোস্থান ছবিতে আমির, ক্যাটরিনা, অমিতাভ বচ্চন, ফতিমা সানা শেখ

আরও পড়ুন: ঠাগস অফ হিন্দোস্তান মুক্তির আগে দেখে নেওয়া যাক আমির খানের আগের পাঁচ ছবির ব্যবসার হিসেব

এটা বললাম আপনাদের ধরিয়ে দেওয়ার জন্য, বাকিটা নিজেরাই বুঝতে পারবেন। সৈন্যদের বেছে বেছে নেওয়া কেবলমাত্র দড়ি বেয়ে জাহাজে উঠতে পারার জন্য (না এটা ‘পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ান’-ও নয়) এবং জঙ্গলে এ গাছ ও গাছে ঝুলে বেড়াতে পারার দক্ষতায়। তক্তার ওপর দিয়ে হাঁটা, জঙ্গলের মধ্যে ফাঁকা জায়গায় নাচতে পারা, আর এমন পোশাক পরা যাতে জলদস্যু হিসাবে যথেষ্ট স্টাইলিশ দেখায়।

খুদাবক্স জাহাজীর ভূমিকায় রয়েছেন অমিতাভ বচ্চন, যিনি ইংরেজদের দাসত্ব করতে অপছন্দ করেন এবং নিজের সৈন্যদল নিয়ে মুক্তির স্বপ্ন দেখেন। এই ছবিতে তিনি ভয়ঙ্কর তীক্ষ্ম ঈগলের ন্যায় (না, ছবিটা ‘কুলি’ নয়), এবং তাঁর রাজকুমারী জাফিরার (ফতিমা) জীবনের সুরক্ষা নিয়ে চিন্তিত। সঙ্গে চেষ্টা করেন লোভী-অসৎ ফিরঙ্গী মাল্লাকে (আমির) দেশপ্রেমী করে তোলার। যিনি ‘নাচানিয়া’ (ক্যাটরিনা) র জন্য ছোটবেলার বন্ধুকেও ঠকিয়েছেন।

ছবিতে স্থলে ও জলে তলোয়ার যুদ্ধ রয়েছে। নাটুকে সম্মুখসমর রয়েছে আমির খান ও অমিতাভ বচ্চনের মধ্যে। আমির ও ক্যাটরিনার মধ্যে উষ্ণ কথোপকথন রয়েছে। আর রয়েছে ক্যাটরিনার চিরাচরিত লোভনীয় নাচের দৃশ্য, সঙ্গে হাস্যকর সংলাপ। না এখানে ক্যাটের নাম শীলা নয়। একমাত্র সহ্য করা যাচ্ছে আমির খানকে, যিনি আশেপাশে থাকলে ছবিটা তবুও দেখা যাচ্ছে। বাকিটা ‘আই রোল’ আর ‘আই গ্লেজের’ বিরামহীন সংমিশ্রন।

Read the full story in English 

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Thugs of hindostan movie review

Next Story
প্রেসিডেন্সিতে ছাত্র আন্দোলন, ফের নতি স্বীকার কর্তৃপক্ষেরpreci
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com