বড় খবর

প্রচারে বেরিয়ে ছন্দপতন! ‘শাড়ির কুঁচি ধরেই ছুটলেন’ তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ, হতবাক জনতা

মিছিলে অংশ নেওয়া অনেকেই প্রথমটায় বুঝে উঠতে পারেননি যে ঠিক কী হয়েছে! কেন-ই বা হঠাৎ ওভাবে দৌড়চ্ছেন সায়নী ঘোষ। তবে পরিস্থিতি আয়ত্তে আসতেই শোনা যায় মূল কারণ।

saayoni

আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের (TMC) ‘তুরুপের তাস’ সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)। প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই সেখানকার মাটি কামড়ে পড়ে রয়েছেন অভিনেত্রী। প্রতিপক্ষও হেভিওয়েট। আসানসোলের ‘ভূমিকন্যা’ অগ্নিমিত্রা পাল (Agnimitra Paul), যিনি কিনা বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রীও বটে! অতঃপর ২৬ এপ্রিল ভোটবাক্সে ভাগ্যগণনার লড়াই। কাজেই এখন একমুহূর্ত সময়ও নষ্ট না করে, নাওয়া-খাওয়া ভুলে এলাকার আট থেকে আশি সবার সঙ্গে হাসিমুখে জনসংযোগ সারতে ব্যস্ত তৃণমূলের তারকা প্রার্থী। ঘরের মেয়ের মতোই পৌঁছে যাচ্ছেন জনগণের দুয়ারে দুয়ারে। রবিবার এমন প্রচারের মাঝেই ঘটল ছন্দপতন! পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছল যে, বিরক্ত হয়ে শাড়ির কুঁচি ধরেই দৌড় লাগাতে বাধ্য হলেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী সায়নী।

ঠিক কী হয়েছিল? রবিবার আসানসোলের বার্নপুর এলাকায় প্রচারের জন্য গিয়েছিলেন সায়নী ঘোষ। বাজনা বাজিয়ে মিছিল করে সংশ্লিষ্ট এলাকার মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে প্রচার সারছিলেন অভিনেত্রী। হাসিমুখে কথা বলা, অনুরাগীদের আবদার মেটাতে তাঁদের সঙ্গে সেলফি তোলা সবই চলছিল। তবে তার মাঝেই ঘটল ছন্দপতন। দলীয় কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে খানিক গোলযোগের পরই তৃণমূলের তারকা প্রার্থীকে দেখা যায় শাড়ির কুঁচি ধরে দৌড় লাগাতে। প্রায় ৫০ মিটার ওইরকমভাবেই ছোটেন তিনি। আসলে বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনগণের সঙ্গে কথা বলার সময়ে মিছিলে থাকা অনেকেই অভিনেত্রীর গা ঘেঁষে ভীড় জমাতে শুরু করেন, আর তাতেই বেজায় আপত্তি জানান সায়নী ঘোষ। এরপরই তাঁকে দেখা যায় মিছিলের ভীড় থেকে বেরিয়ে কিছুটা এগিয়ে এসে হাঁটতে। তৃণমূলের তারকা প্রার্থীর নির্দেশেই নিরপত্তারক্ষীরা বলয় তৈরি করেন।

প্রসঙ্গত, মিছিলে অংশ নেওয়া অনেকেই প্রথমটায় বুঝে উঠতে পারেননি যে ঠিক কী হয়েছে! কেন-ই বা হঠাৎ ওভাবে দৌড়চ্ছেন সায়নী ঘোষ। তবে পরিস্থিতি আয়ত্তে আসতেই শোনা যায় মূল কারণ। দলীয় কর্মীরা আচমকাই তারকা প্রার্থীর গায়ে এসে পড়ায়, মেজাজ হারিয়ে ফেলেন তিনি। তখনই সেখান থেকে দৌড়ে কিছুটা এগিয়ে আসেন। এবং নিরাপত্তারক্ষীদের সুরক্ষা বলয় তৈরির নির্দেশ দেন। তবে এত গোলযোগের মধ্যেও প্রচার কিন্তু থেমে থাকেনি। নিজেকে সামলে নিয়েই ফের হাসিমুখে সবার সঙ্গে করমর্দন করতে দেখা যায় অভিনেত্রীকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একনিষ্ঠ সৈনিক হয়ে বাংলায় ফের জোড়াফুল ফোটানোর আবেদন রাখেন এলাকার মানুষদের কাছে।

কারণ, সামনেই কঠিন লড়াই। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র থেকে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে অগ্নিমিত্রা পালের নাম ঘোষণা হওয়ায় কি কিঞ্চিৎ চাপে পড়েছেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী সায়নী? রাজ্য়-রাজনীতি কিন্তু এখন এই প্রশ্নেই তোলপাড়। আসানসোল দক্ষিণে অগ্নিমিত্রা পাল বনাম সায়নী ঘোষের মধ্যে যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে, তা বলাই বাহুল্য। দুই শিবিরের তারকা প্রার্থীই ডাকসাইটে। একজন রাজনীতির ময়দানে নবাগত হলেও কাউকে রেয়াত করে কথা বলেন না! অন্যদিকে কম যান না গেরুয়া শিবিরের মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রাও। রাজনৈতিক মহলের একাংশের কথায়, ‘এবার আসল খেলা হবে আসানসোলে।’ তাই ভোটের (West Bengal Assembly Election 2021) মুখে কোনওরকম কসরত-ই বাকি রাখছেন না ঘাসফুল শিবিরের তারকা প্রার্থী।

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc candidate saayoni ghosh campaign

Next Story
ফের সৃজিতের ঝুলিতে জাতীয় পুরস্কার, বাজিমাত ‘গুমনামী’র, সেরা হিন্দি ছবি সুশান্তের ‘ছিঁছোড়ে’national award
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com