‘দেশবাসী কোভিডে মরছে, জাহাপনার লজ্জা নেই’, সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্প নিয়ে মোদীকে কটাক্ষ সায়নীর

রাজধানীতে কোভিড রোগীদের লাশের ভীড়। অক্সিজেন নেই। প্রধানমন্ত্রী ব্যস্ত স্বপ্নের বাসভবন তৈরীতে! আক্রমণ শানিয়ে সায়নীর মন্তব্য, “লজ্জায় মরে যাওয়া উচিত।”

saayoni

কোভিড (Covid-19) প্রতিষেধক বেপাত্তা। সেখানে অগ্রাধিকার মোদীর ‘প্রাসাদ’! হাসপাতালে শয্যা নেই। অক্সিজেনের অভাবে প্রতিমুহূর্তে দেশের কোনও না কোনও প্রান্তে মৃত্যু হচ্ছে করোনা রোগীর। চারিদিকে হাহাকার। লাশের ভীড়। গণ-শবদাহের আগুনে ডুকরে ডুকরে কাঁদছে দেশবাসী। দেশের এমন করুণ পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক মহলও উদ্বিগ্ন। তবে অতিমারির (Pandemic) এমন চরম পরিস্থিতিতেও কিন্তু ঘটা করে মোদীর নয়া বাসভবন নিমার্ণের কাজ চলছে। বন্ধ হয়নি। বরং, সেই কাজ যাতে চালু থাকে, নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) স্বপ্নের ‘সেন্ট্রাল ভিস্তা রিডেভেলপমেন্ট’ প্রকল্পের অন্তর্গত এই কর্মসূচিকে ‘অত্যাবশকীয় পরিষেবা’র অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। দেশের রাজধানী যেখানে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। কোভিড শবদেহ পোড়াতে পোড়াতে ক্লান্ত কর্মীরা, সেখানে কেন্দ্রীয় সরকারের এমন ‘অমানবিক’ পদক্ষেপ নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠেছে। সেই প্রেক্ষিতেই এবার মোদীকে ‘জাহাপনা’ সম্বোধন করে আক্রমণবাণ ছুঁড়লেন তৃণমূলের (TMC) তারকা সদস্য সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)।

দিল্লিতে (Delhi) হাজার দৌড়োদৌড়ি করেও অক্সিজেন জোগাড় করতে ব্যর্থ সিংহভাগ কোভিড রোগীর আত্মীয়রা। সৎকার কর্মীরা চোখে জল নিয়ে বলছেন, “আর দিন দুই পরে রাস্তায় কোভিড রোগীর মৃতদেহ পড়ে থাকলেও পোড়ানোর কেউ থাকবে না!” সেই পরিস্থিতিতে মোদীর এমন অতি-বাতুলতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠা কিংবা সমালোচনার শিকার হওয়া অস্বাভাবিক নয়! প্রধানমন্ত্রীর সেই ‘সেন্ট্রাল ভিস্তা রিডেভেলপমেন্ট’ প্রসঙ্গকে হাতিয়ার করেই এবার সায়নী ঘোষ কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন নরেন্দ্র মোদীকে।

দিদির ‘স্ট্রিটফাইটার’ সায়নীর মন্তব্য, “দেশ জ্বলছে, কিন্তু জাহাপনা জাহাপনাতেই রয়েছেন! দেশবাসী যখন কোভিডে মরছে। তখন ওঁদের লজ্জায় মরে যাওয়া উচিত।” তিনি বারবারই স্পষ্টবাদী। আসানসোল (Asansol) দক্ষিণে হেরেও সায়নীর জননেত্রী স্পিরিট বিন্দুমাত্র দমেনি। এবার প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন তাঁর স্বপ্নের বাসভবন গড়া নিয়ে।

প্রসঙ্গত, কোভিড পরিস্থিতির মধ্যেও নরেন্দ্র মোদী সরকার রাজধানী দিল্লিকে ঢেলে সাজানোর ‘সেন্ট্রাল ভিস্টা’ (Central Vista) প্রকল্পের কাজ থেকে সরেনি। বিরোধীদের দাবি ছিল, ২০ হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্প স্থগিত রেখে সেই টাকা এই মুহূর্তে স্বাস্থ্যখাতে কিংবা দেশের মানুষকে প্রতিষেধক দিতে খরচ হোক। মোদী সরকার তাতে বিন্দুমাত্র কর্ণপাত করেনি। নারাজও বটে! উল্টে এই প্রকল্পের কাজকে ‘অত্যাবশ্যক প্রকল্পে’র তকমা দিয়েছে। সেই প্রেক্ষিতেই এবার নাম না করে মোদীকে নির্লজ্জ আখ্যা সায়নী ঘোষের।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tmc leader actress saayoni ghosh slams modi for central vistas ongoing work amid of pandemic situation

Next Story
‘চিত্রনাট্যের নায়ক’ মমতা, ‘গুরুত্বপূর্ণ রোলে’ অভিষেক, অন্য ছবির কাজ শুরু ‘বিধায়ক’ রাজের