scorecardresearch

বড় খবর

অতিমারী মোকাবিলায় তৎপর, চণ্ডীপুরে কোভিড সেফ হোম খুলছেন ‘বিধায়ক’ সোহম

অতি তৎপরতার সঙ্গে কোভিড সেফ হোম গড়ার কাজ শুরু হয়েছে ভগবানপুরে।

soham

প্রথমবার নির্বাচনী জয়ের স্বাদ পেয়েছেন। বিধায়ক হয়েই চণ্ডীপুরে (Chandipur) অতিমারী পরিস্থিতি পরিদর্শনে গিয়েছিলেন সোহম চক্রবর্তী (Soham Chakraborty)। এবার নিজস্ব কেন্দ্রের স্থানীয় বাসিন্দারা যাতে অতিমারী পরিষেবা থেকে বঞ্চিত না হন, তার জন্যে কোভিড সেফ হোম খোলার পরিকল্পনা করেছেন চণ্ডীপুরের নব নির্বাচিত বিধায়ক সোহম।

কোভিড সেফ হোম খোলার জন্য সম্প্রতি তিনি ব্লক ডেভেলপমেন্ট অফিসার ও চিফ মেডিক্যাল অফিসারের সঙ্গে বৈঠক করে এসেছেন। চণ্ডীপুরের এরাশাল এবং ভগবানপুর, এই দুই হাসপাতালের পাশেই কোভিড সেফ হোম চালু করার পরিকল্পনা করেছেন সোহম। পাশাপাশি কোনও কোভিড আক্রান্ত রুগীকে যাতে চিকিৎসা পেয়ে ফিরে যেতে হয়, সেদিকেও কড়া নজর তাঁর। হাসপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত পরিমাণ বেড এবং অক্সিজেন সরবরাহ করার উদ্যওগও নিয়েছেন সোহম।

প্রসঙ্গত, কোভিড (Covid-19) সচেতনতা প্রচারের জন্য শুক্রবার ভগবানপুরের ৬টি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিলি করেছেন এলাকার বিধায়ক তথা অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী। কাকরা, বিভীষণপুর, বেঁউদিয়া, গুড়গ্রাম, মহম্মদপুর-১ ও মহম্মদপুর-২ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাবাসীদের মধ্যে ২০হাজার মাস্ক এবং স্যানিটাইজার বিলি করা হয়। পাশাপাশি স্থানীয় বাসিন্দাদের করোনা সংক্রান্ত সমস্ত সরকারি বিধিনিষেধ সম্পর্কে অবগত করেন এবং সেগুলি যথাযথ মেনে চলার আবেদন জানান তৃণমূলের (TMC) তারকা বিধায়ক। সোহমের সঙ্গে ছিলেন বিডিও বিশ্বজিৎ মণ্ডল, ব্লক তৃণমূল সভাপতি অভিজিৎ দাস-সহ অন্যান্য নেতারা।

এদিকে ভগবানপুর গ্রামীণ হাসপাতালের কাছেই ব্লক ভূমি ও ভূমি সংস্কার দপ্তরের নিজস্ব অফিস তৈরি হলেও এখনও চালু হয়নি। সেই অফিসেই আপাতত কোভিড রোগীদের জন্য সেফ হোম তৈরির করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সোহম। শুক্রবার সেই ভবন পরিদর্শনেও যান তিনি। আগামী ৯দিনের মধ্যে সেখানে কোভিড সেফ হোম চালু করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Tmc mla soham chakraborty plans for covid safe home in chandipur