বড় খবর


ভিন্ন দল-লক্ষ্য এক, ‘মানুষের সেবা’, যশ ও দেবের ‘বন্ধুত্ব’ নয়া উদাহরণ ইন্ডাস্ট্রির কাছে

ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের খাতিরে যখন ইন্ডাস্ট্রির অনেক বন্ধুত্বের সম্পর্কই বর্তমানে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে, তখন দেব-যশের শুভেচ্ছা বিনিময় এক নয়া উদাহরণ প্রতিস্থাপন করলেন তাঁদের সামনে।

dev

পদ্মবনে যশ দাশগুপ্ত (Yash Dasgupta)। কৈলাস-মুকুলদের কাছে গেরুয়া মন্ত্রে দীক্ষিত হয়েই পদার্পণ করলেন রাজনীতিতে। যশের বিজেপিতে (BJP) যোগদান ‘চমক’-ই বটে! তৃণমূলকে (TMC) ছোঁড়া চ্যালেঞ্জও বলা যেতে পারে। সেই প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে সহকর্মী অভিনেতাকে শুভেচ্ছা জানালেন তৃণমূল সাংসদ দীপক অধিকারী তথা সুপারস্টার দেব (Dev)। ইন্ডাস্ট্রির অগ্রজ দেবের শুভেচ্ছাবার্তায় আপ্লুত যশও।

যশ বিজেপিতে যোগদানের পর অনেকেই দেবের ‘স্টার’ তকমার সঙ্গে তাঁর তুলনা টানা শুরু করেছেন। বলছেন, ঘাসফুল শিবিরের বাঘা-তারকা যদি দেব হন, তাহলে পদ্ম শিবিরের ‘স্টার’ যশ। তৃণমূল সাংসদের কানে সেকথা পৌঁছেছে কিনা জানা নেই। তবে তিনি কিন্তু বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখাতেই বিশ্বাসী। বিরোধী পক্ষকে তোপ দেগে কোনওদিনই কটু মন্তব্য করতে দেখা যায় না দেবকে। যশের যোগদান নিয়েও তিনি রীতিমতো ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন। আর সেখানে দাঁড়িয়েই নেটজনতার একাংশ যখন দেবের এই মানসিকতার ভূয়সী প্রশংসা করছেন, তখন অন্যদিকে কেউ কেউ আবার দেবের এই বিরোধী পক্ষের সহকর্মীকে ‘তোল্লাই’ দেওয়াতে বেজায় নারাজ! অতঃপর তাঁকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি!

তৃণমূলের সাংসদ টুইট করে যশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। দেব লিখেছেন, “যশ দাশগুপ্ত রাজনীতির ময়দানে তোমাকে স্বাগত ভাই। যে রাজনৈতিক মতাদর্শেই তুমি বিশ্বাস করো না কেন আমার শুভেচ্ছা সবসময় তোমার সঙ্গে থাকবে।” দেবের এমন মহানুভবতায় বিগলিত সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া অভিনেতা যশও। তাঁর পালটা উত্তর, “অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই। আমাদের আদর্শে মিল নেই তাতে কী হয়েছে, আমাদের আসল লক্ষ্য তো একই। আর তা হচ্ছে মানুষের সেবা করা।”

প্রসঙ্গত, অভিনেতারা এখন নেতাও বটে! রাজনীতি এবং গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রি এখন মিলেমিশে একাকার। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে পদ্ম কিংবা ঘাসফুল শিবির, কেউই কাউকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ! অতঃপর দুই দলের তরফেই নির্বাচনী প্রচারে ‘স্টার-স্ট্র্যাটেজি’ তুঙ্গে! একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে যে বিনোদুনিয়ার সঙ্গে রাজনৈতিক ময়দানের এরকম একটা ‘মাখো-মাখো’ সমীকরণ হতে চলেছে, তা আগেই আন্দাজ করা গিয়েছিল। ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের খাতিরে এখন ইন্ডাস্ট্রির অনেক বন্ধুত্বের সম্পর্কই তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। একে-অপরের থেকে মুখ ঘুরিয়েছেন তাঁরা। দোষারোপ। আর কাঁদা ছোঁড়াছুড়ি সর্বত্র। তবে সেই পথে হাঁটলেন না দেব-যশ। বিরোধী দলে থাকা সত্ত্বেও তাঁদের এই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কই যে ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রে এক নয়া উদাহরণ প্রতিস্থাপন করলেন, তা বলাই বাহুল্য।

Web Title: Tmc mp dev congratulate yash dasgupta after joining bjp sets new example in tollywood

Next Story
‘বিশেষ বন্ধু’, তবে ভিন্ন দলে! নুসরত প্রসঙ্গে যশের উত্তর ‘অক্ষয়-টুইঙ্কল বিবাহিত, আমরা নই’Yash
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com