বড় খবর

মিছিলের জন্য টাকা দিয়ে লোক কিনছে বিজেপি! বিস্ফোরক দাবি সাংসদ নুসরত জাহানের

প্রমাণস্বরূপ ভিডিও শেয়ার করেই গেরুয়া শিবিরকে আক্রমণ তৃণমূলের সাংসদ-নায়িকার।

Nusrat

রাজ্যের শাসক দলের মুখপাত্র হিসেবে নুসরত জাহানের (Nusrat Jahan) বিজেপি বিরোধী টুইট ইতিমধ্যেই ‘সুপারহিট’! বাজেট পেশ হোক কিংবা কৃষি বিল থেকে দেশে বাড়তে থাকা বেকারত্বের হার, মোদী সরকারের সমালোচনায় সর্বদাই সরব তৃণমূলের সাংসদ-নায়িকা। এবার ফের এক বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে। টাকার বিনিময়ে বিজেপির (BJP) মিছিলে যোগ দেওয়ার জন্য নাকি জনসাধারণকে ‘টোপ’ দেওয়া হচ্ছে, বলে দাবি নুসরতের।

শুধু মুখের কথাতেই নয়! হাতেনাতে একেবারে প্রমাণস্বরূপই ময়দানে নেমেছেন বসিরহাটের তৃণমূল (TMC) সাংসদ। টুইটারে একটি ভিডিও শেয়ার করে পদ্ম শিবিরের বিরুদ্ধে এই বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন তিনি। সংশ্লিষ্ট টুইটে ব্য়ঙ্গাত্মকভাবে বিঁধতেও ছাড়লেন না বিজেপিকে। ওই ভিডিওতে মুখ দেখানো ব্যক্তির কথায়, বিজেপি থেকে তাঁদেরকে জনে জনে তিনশো টাকা দেওয়া হচ্ছিল, যাতে তাঁরা মিছিলে যোগ দেন। কিন্তু সেই টাকা নিতে তাঁরা অস্বীকার করেন এবং বিজেপির মিছিলে যোগও দেননি। সেই ভিডিও শেয়ার করেই গেরুয়া শিবিরকে খোরাক করেছেন নুসরত জাহান।

সাংসদ নায়িকার মন্তব্য, “বিজেপির মিছিলে যোগ দেওয়ার জন্য বর্তমানে এই রেট-টাই চলছে! ওদের মিছিলে তো আদতেও এত লোক হয় না! দেখুন বাংলার মানুষ কীভাবে বিজেপির নোট-ব্যাঙ্ক রাজনীতিকে প্রত্যাখ্যান করছেন।”

উল্লেখ্য, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে ঘাসফুল-পদ্ম দুই শিবিরই যে কোমর বেঁধে নেমেছে তা বলাই বাহুল্য। তারকাখচিত সমাবেশে ‘এ বলে আমায় দেখ, তো ও বলে আমায়…’। কেউই কাউকে একচুল জমি ছেড়ে দিতে নারাজ। অতঃপর বাংলার সিংহাসন দখলের লড়াইয়ে বিজেপি-তৃণমূল দুই পক্ষই একে-অপরকে শাঁসাতে ব্যস্ত! আর সেই প্রেক্ষিতেই গেরুয়া শিবিরকে বিঁধতে কোনওরকম সুযোগ ছাড়েন না তৃণমূলের সাংসদ নুসরত জাহান।

Get the latest Bengali news and Entertainment news here. You can also read all the Entertainment news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Tmc mp nusrat jahan claims bjp buying people to join their rally

Next Story
গঙ্গারাম চৌধুরি কে? পরিচয় করালেন অভিষেক বচ্চনabhishek Bachchan
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com