বড় খবর


নেতা-মন্ত্রীদের ‘আদুরে রাজকন্যা’ বলে কটাক্ষ! রোষানলে পড়ে ক্ষমা চাইলেন বিক্রান্ত মাসে

কোন অজুহাতে শীতকালীন অধিবেশন বাতিল করা হল? প্রশ্ন তুলেছিলেন। তাতেই ট্রোলড হন অভিনেতা বিক্রান্ত।

vikrant

রাজনৈতিক পোস্ট করে বিপাকে বিক্রান্ত মাসে (Vikrant Massey)। সদ্য শীতকালীন অধিবেশন (Parliament’s Winter Session) বাতিল নিয়ে পোস্ট করেছিলেন অভিনেতা। আর তার জেরেই জোর সমালোচনার শিকার হন তিনি। সংশ্লিষ্ট পোস্টে বিক্রান্ত রাজনৈতিক নেতা-মন্ত্রীদের কটাক্ষ করে ‘আদুরে রাজকন্যা ‘ বলে তকমা সাঁটেন। আর তাতেই নেটিজেনদের একাংশ ভোক্ষে ফুঁসে ওঠে ‘ছপক’ অভিনেতার বিরুদ্ধে।

ঠিক কী হয়েছে? চলতি সপ্তাহেই শীতকালীন অধিবেশন বাতিলের সিদ্ধান্ত জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই অতিমারী আবহে এমন পরিস্থিতিতে শীতকালীন অধিবেশন না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে মোদি সরকারের তরফে। তবে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তই সম্ভবত মনে ধরেনি বিক্রান্ত মাসের। অতঃপর টুইটে এর সমালোচনা করেন তিনি।

টুইটারে মোদি সরকারের শীতকালীন অধিবেশন বাতিল নিয়ে গুরুতর প্রশ্ন তোলেন অভিনেতা। এই সিদ্ধান্তের ঘোরতর সমালোচনা করে শ্লেষাত্মক এক টুইটে বিক্রান্ত লেখেন, “নির্বাচনী প্রচারের জন্য লোক-লস্কর নিয়ে বড়সড় মিছিল হতে পারে, এমনকী দেশে করোনা পরিস্থিতি যখন চূড়ান্ত, সেই সময়ে বৃষ্টিকালীন অধিবেশন অর্থাৎ মনসুন সেশনও হতে পারে, কিন্তু এখন শীতকালীন অধিবেশন বাতিল? আর এখন অতিমারী আবহের অজুহাত দেখিয়ে শীতকালীন অধিবেশন বাতিল! আদুরে রাজকন্যে যেন সব!” বিক্রান্তের এমন টুইটের পরই জোর শোরগোল শুরু হয় নেটদুনিয়ায়। এরপরই ট্রোলের শিকার হন অভিনেতা। এমনকী, অনেকে মহিলার সম্মানহানির অভিযোগও আনেন বিক্রান্তের বিরুদ্ধে। জোর সমালোচনার মুখে পড়ে অবশেষে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হন তিনি।

এই টুইট ঘিরে নেটদুনিয়ায় বিতর্কের পরই বিক্রান্ত আরেকটি টুইট করে ক্ষমা চেয়ে নেন। তবে সেটাও খানিক ব্যাঙ্গাত্মকভাবেই। অভিনেতা লেখেন, “সেই মহান মানুষদের উদ্দেশে বলছি, যাঁদের মনে হয়েছে আমার আগের টুইটের জন্য মহিলাদের সম্মানহানি হয়েছে, আমি তাঁদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। এমন কোনও অভিপ্রায় আমার ছিল না।” এর পাশাপাশি অভিনেতা এও উল্লেখ করেন, টুইটার যে আদতে একটি জঘন্য স্থান, আমার এই বিশ্বাসকে আরও পোক্ত করার জন্য ধন্যবাদ। যেখানে কোনও বিষয়ে পুরোপুরি না জেনেই একটি ভ্রান্ত ধারণা সৃষ্টি করা হয়।”

প্রসঙ্গত, কৃষি বিল নিয়ে বিক্ষোভ, সীমান্তে চিনা আগ্রাসন এবং অর্থনীতির মন্দা নিয়ে আলোচনার জন্য সংক্ষিপ্ত শীতকালীন অধিবেশনের দাবিতে কেন্দ্রকে চিঠি দিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তার জবাবেই সোমবার সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী জানান, “দিল্লিতে নতুন করে করোনা বাড়ছে। আর শীতের এই কটা মাস মহামারী মোকাবিলার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। সেই কারণেই শীতকালীন অধিবেশন বাতিল করা হয়েছে।” স্বাভাবিকবশতই মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্তকে বিরোধী দলনেতারা অজুহাত হিসেবেই দেখছে। আর তা নিয়ে টুইট করেই বিপাকে পড়েছিলেন বলিউড অভিনেতা বিক্রান্ত মাসে।

Web Title: Vikrant massey question on parliaments winter session cancellation

Next Story
‘বিতর্কিত’ পার্টি নিয়ে বিপাকে, এবার মাদক কাণ্ডে করণ জোহরকে সমন পাঠাল NCBkaran-johar
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com