scorecardresearch

বড় খবর

বনবিড়ালের মল থেকে তৈরি কফিতে চুমুক যশ-নুসরতের! নাক সিঁটকোচ্ছেন নেটিজেনরা

জানেন এই ‘লুয়াক কফি’ কীভাবে তৈরি হয়?

বনবিড়ালের মল থেকে তৈরি কফিতে চুমুক যশ-নুসরতের! নাক সিঁটকোচ্ছেন নেটিজেনরা
ইন্দোনেশিয়া ট্যুরে যশ-নুসরত

কাজের ফাঁকে সুযোগ পেলেই বেরিয়ে পড়েন যশ-নুসরত (Yash-Nusrat)। সম্প্রতি ঘুরে এসেছেন ইন্দোনেশিয়া থেকে। আর সেখানেই এক আজব পাণীয়তে চুমুক দিয়েছেন তারকা-দম্পতি, যা কিনা বন বিড়ালের মল থেকে তৈরি হয়। আর সেই ভিডিও দেখেই বর্তমানে নাক সিঁটকোচ্ছেন নেটিজেনরা।

প্রসঙ্গত, নুসরত সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়া ট্যুরের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানেই দেখা গেল জঙ্গলে ঘেরা একটা রিসর্ট। সেখানে ঢুকেই হঠাই খাঁচায় থাকা বনবিড়ালের দিকে নজর গেল। তারপর রিসর্টের ভিটরে থাকা কফি গাছের কাছে গেলেন অভিনেত্রী। নিজে হাতে উনুনে চড়ানো কড়াইতে নেড়ে-চেড়ে কফি রোস্ট করলেন নুসরত। পরে সেটা হামাং দিস্তায় গুঁড়ো করে দিলেন যশ। তারপর তাতে জল মিশিয়ে তৈরি করে ফেললেন ‘লুয়াক কফি’। যা কিনা বিশ্বের সবথেকে দামি কফির মধ্যে অন্যতম।

[আরও পড়ুন: ‘কালী’ পোস্টার বিতর্কে খুনের হুমকি! হিন্দুত্ববাদীদের রোষে লীনা মণিমেকালাই]

কিন্তু এই ‘লুয়াক কফি’ তৈরির পদ্ধতি আর পাঁচটা কফি মেকিংয়ের থেকে অনেকটাই আলাদা। যা শুনে অনেকেরই অন্নপ্রাশনের ভাত উলটে আসতে পারে! প্রথমে এই কফি গাছের ফল খাওয়ানো হয় বনবিড়ালকে। তবে ফলের বীজ হজম করতে পারে না বিড়ালরা। অতঃপর মল থেকে বেরিয়ে আসে লুয়াক কফির বীজ। মল থেকে বেরনো সেই বীজগুলো সংগ্রহ করে, সেগুলোকে শুকনো হয় ভাল করে। তারপর রোস্ট করে গুঁড়ো তৈরি করা হয়। তারপর তা থেকে তৈরি হয় দামি লুয়াক কফি। যার দাম প্রায় ৩৫ ডলার থেকে ১০০ ডলার অবধি। আর ইন্দোনেশিয়ায় গিয়ে প্রকৃতির মাঝে সেই দামি কফির স্বাদই নিয়েছেন যশ-নুসরত।

উল্লেখ্য, ইন্দোনেশিয়ার অনেক রিসর্টেই এই লুয়াক কিংবা গন্ধগোকুল কফির চাষ হয়। ভাম বিড়ালের মল থেকে তৈরি এই কফির স্বাদ নাকি অতুলনীয়। যশ-নুসরত নিজেরাই হাতে করে বানিয়ে সেই কফিতে চুমুক দিলেন এবার।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Entertainment news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Yash nusrat shares coffee making video