বড় খবর

১ কোটি ছাড়াল সংক্রমণ, শীর্ষে পৌঁছতে এখনও দেরি

কর্নাটকে গত দুদিনে সংক্রমণ বেশ বাড়ছে, রবিবার তারা শীর্ষ ১০-এ ঢুকে পড়েছে। মধ্যপ্রদেশে বৃদ্ধি হার সবচেয়ে কম, তারা শীর্ষ ১০ থেকে বেরিয়ে গিয়েছে।

Corona Number 10 million
তেলেঙ্গানায় ব্যাপক সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এলাকায় ফের কঠোর লকডাউন চালু হয়েছে

সারা বিশ্বে করোনাভাইরাস সংক্রমিতের সংখ্যা রবিবার ১ কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে। এর মধ্যে অর্ধেকের বেশি ঘটেছে চার দেশে, আমেরিকা, ব্রাজিল, রাশিয়া ও ভারত। আমেরিকায় সংক্রমিতের সংখ্যা ২৫ লক্ষের বেশি, রাশিয়া ও ভারত দু দেশেই এই সংখ্যা ৫ লক্ষের বেশি।

সারা পৃথিবীতে সংক্রমণ বৃদ্ধির হার ১ থেকে ২ শতাংশ, যা অর্থ প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ হাজার নতুন সংক্রমণ ধরা পডছে। প্রতিদিন যত মানুষ সুস্থ হচ্ছেন তার তুলনায় নতুন সংক্রমণ বেশি ধরা পড়ছে। এর থেকে বোঝায় যাচ্ছে, এমনকি আন্তর্জাতিক স্তরেও এই রোগ চূড়ান্ত পরিস্থিতিতে পৌঁছতে এখনও কিছু দেরি আছে।

সংক্রমণে শীর্ষ ১০ রাজ্য

 

রাজ্য

 

মোট সংক্রমিত

 

নতুন সংক্রমণ

 

মোট আরোগ্য

 

মৃত্যু

 

 

মহারাষ্ট্র

 

১৬৪৬২৬

 

৫৪৯৩

 

৮৬৫৭৫

 

৭৪২৯

 

দিল্লি

 

৮৩০৭৭

 

২৮৮৯

 

৫২৬০৭

 

২৬২৩

 

তামিলনাড়ু

 

৮২২৭৫

 

৩৯৪০

 

৪৫৫৩৭

 

১০৭৯

 

গুজরাট

 

৩১৩৯৭

 

৬২৪

 

২২৮০৮

 

১৮০৯

 

উত্তরপ্রদেশ

 

২২১৪৭

 

৫৯৮

 

১৪৮০৮

 

৬৬০

 

পশ্চিমবঙ্গ

 

১৭২৮৩

 

৫৭২

 

১১১৯৩

 

৬৩৯

 

রাজস্থান

 

১৭১৫৮

 

৩২৭

 

১৩৪৯৮

 

৩৯৯

 

তেলেঙ্গানা

 

১৪৪১৯

 

৯৮৩

 

৫১৭২

 

২৪৭

 

হরিয়ানা

 

১৩৮২৯

 

৪০২

 

৮৯১৭

 

২২৩

কর্নাটক ১৩১৯০  

১২৬৭

 

৭৫০৭

 

২১১

ভারতে নতুন সংক্রমণ প্রতিদিন ১৮ থেকে ২০ হাজারের মধ্যে থাকছে। রবিবার মোট ১৯ হাজার সংক্রমণ ধরা পড়েছে, শনিবারের চেয়ে সামান্য কম। এর ফলে মোট সংক্রমণ দাঁড়িয়েছে ৫.৫ লক্ষ।

গত কয়েকদিনে দিল্লির সংক্রমণ সংখ্যা বেশ ভালভাবেই কমছে, অন্যদিকে প্রায় সম পরিমাণে বাড়ছে তামিলনাড়ুর সংক্রমণ।

শীর্ষ ১০ রাজ্যের মধ্যে তেলেঙ্গানায় সংক্রমণ বৃদ্ধির হার সবচেয়ে বেশি, তারা এখন অষ্টম স্থানে। কর্নাটকে গত দুদিনে সংক্রমণ বেশ বাড়ছে, রবিবার তারা শীর্ষ ১০-এ ঢুকে পড়েছে। মধ্যপ্রদেশে বৃদ্ধি হার সবচেয়ে কম, তারা শীর্ষ ১০ থেকে বেরিয়ে গিয়েছে।

তেলেঙ্গানায় ব্যাপক সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এলাকায় ফের কঠোর লকডাউন চালু হয়েছে। শনিবার সেখানে ১০৮৭ নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছে, এর মধ্যে হায়দরাবাদে ৮৮৮। অন্য জায়গাগুলিতেও ফের লকডাউনের চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। চেন্নাই গত ১০ দিনে এই ব্যবস্থা কার্যকর করেছে। বেঙ্গালুরুতে সংক্রমণ কম হলেও ফের লকডাউনের কথা সেখানেও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

মুম্বইয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে ব্যাখ্যা করেছেন রাজ্যের কিছু জায়গায় এ মাসের শেষেও লকডাউন চলবে। ঠাকরে বলেছেন কিছু জায়গায় এখনই বিধিনিষেধ শিথিল হবে না। ইতিমধ্যে মুম্বই পুলিশ শহরের বাসিন্দাদের জানিয়েছে জরুরি কাজ ছাড়া বাড়ির ২ কিলোমিটারের মধ্যে কার্যকলাপ সীমাবদ্ধ রাখতে। তা না হলে গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হবে।

এখনও পর্যন্ত রাজ্যে বৃদ্ধি হার ৩.৬৮ শতাংশ। শীর্ষ ১০ রাজ্যের মধ্যে জাতীয় বৃদ্ধির থেকে বেশি বৃদ্ধি হার রয়েছে দিল্লি, তামিলনাড়ু, হরিয়ানা, তেলেঙ্গানা ও কর্নাটকে। মহারাষ্ট্রে সংক্রমণের সংখ্যাবৃদ্ধি বেশি হলেও গত তিনদিনে সেখানে ৫০০০ সংক্রমণ ধরা পড়েছে, বৃদ্ধি হার তুলনামূলক কম, ৩.২ শতাংশ।

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Coronavirus number crosses 10 million still to touch peak

Next Story
সিবিএসই-র পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত, রাজ্য বোর্ডগুলিতে এর প্রভাবCBSE Exams
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com